×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৮ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

বিজেপি ‘ভারতীয় ঝগড়া পার্টি’, কেজরীবাল বললেন, কেন্দ্রের উচিত ‘টিম ইন্ডিয়া’ হওয়া

সংবাদ সংস্থা
কলকাতা ১১ জুন ২০২১ ১৯:৩১
অরবিন্দ কেজরীবাল এবং নরেন্দ্র মোদী।

অরবিন্দ কেজরীবাল এবং নরেন্দ্র মোদী।

বিজেপি-র নতুন নাম দিলেন দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসৌদিয়া। ভারতীয় ঝগড়া পার্টি।

বাংলায় বিধানসভা ভোটের মুখে বিজেপিকে ‘ভারতীয় জঘন্য পার্টি’ বলে অভিহিত করেছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যেপাধ্যায়। রেশন নিয়ে কেন্দ্রের সঙ্গে ক্রমাগত বিবাদে বিরক্ত দিল্লি সরকারও এ বার কিছুটা মমতার পথেই হাঁটল। কেজরীবাল বললেন, ঝগড়া না করে কেন্দ্রের উচিত রাজ্যগুলিকে নিয়ে ‘টিম ইন্ডিয়া’র মতো কাজ করা।

কিছুটা মমতার মতোই দুয়ারে রেশন প্রকল্প নিয়েছিল দিল্লি সরকার। দিল্লি সরকারের সেই রেশন প্রকল্প নিয়েই কেন্দ্রের সঙ্গে বিরোধ শুরু হয় দিল্লির। কেন্দ্র ওই প্রকল্পে নিষেধাজ্ঞা জারি করায় শুরু হয় দিল্লি-কেন্দ্র টানাপড়েন। শুক্রবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেন, দিল্লির ঘরে ঘরে রেশন পৌঁছে দেওয়ার প্রকল্প আসলে দিল্লি সরকারের ‘দেখনদারি’। রবিশঙ্কর বলেন, ‘‘যে মুখ্যমন্ত্রী মানুষকে অক্সিজেন পৌঁছতে পারেননি, তিনি এখন ঘরে ঘরে রেশন পৌঁছে দেওয়ার কথা বলছেন।’’

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই আক্রমণের জবাবেই বিজেপিকে ‘ভারতীয় ঝগড়া পার্টি’ বলে পাল্টা আক্রমণ করেন মণীশ। তিনি বলেন, ‘‘ইদানীং কেন্দ্রের লক্ষ্য একটাই। কয়েকটি রাজ্যের সরকারের সঙ্গে অবিরাম ঝগড়া করে যাওয়া। এ প্রসঙ্গে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরীবালও টুইট করে বলেন, ‘মিলেমিশে থাকতে জানে না কেন্দ্র। তাদের টিম ইন্ডিয়ার মতো কাজ করা উচিত।’

দিল্লির দুয়ারে রেশন প্রকল্প নিয়ে কেন্দ্রের নিষেধাজ্ঞা প্রসঙ্গে এর আগে কেজরীবাল বলেছিলেন, কেন্দ্র রেশন মাফিয়াদের অঙ্গুলিহেলনেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শুক্রবার রবিশঙ্কর পাল্টা সেই দোষ চাপান দিল্লির সরকারের উপরই। তিনি বলেন, আসলে দিল্লি সরকারই রেশন মাফিয়াদের স্বার্থসিদ্ধির কথা ভাবছে।

Advertisement
Advertisement