Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

দেশ

উত্তরাখণ্ডে ২০০ কোটির এনআরআই বিয়েতে সিকিউরিটি ডিপোজিট ৩ কোটি! নাচলেন ক্যাটরিনা, সিদ্ধার্থরা

সংবাদ সংস্থা
২৩ জুন ২০১৯ ১৩:২২
অম্বানীদের পর এ বার হাই প্রোফাইল জোড়া বিয়ের সাক্ষী থাকল ভারত। প্রবাসী ভারতীয় তথা দক্ষিণ আফ্রিকার বিতর্কিত ব্যবসায়ী পরিবার গুপ্ত ব্রাদার্স-এর দুই উত্তরাধিকারীর বিয়ে হল। বিয়ের আসর বসেছিল উত্তরাখণ্ডের আউলিতে। যে বিয়েতে মোটা টাকার বিনিময়ে পারফর্ম করলেন ক্যাটরিনা কইফ থেকে বাদশা, টেলিভিশনের ‘নাগিন’ থেকে ইন্ডিয়ান আইডল অভিজিত সবন্ত, এমনকি যোগগুরু বাবা রামদেবও!

সব মিলিয়ে এই বিয়েতে ২০০ কোটি টাকা খরচ হয়েছে বলে জানা গিয়ে‌ছে। বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে প্রায় ২০০ অতিথি বিয়েতে যোগ দিয়েছিলেন। নিমন্ত্রণ রক্ষা করতে গিয়েছিলেন এ দেশের তাবড় রাজনীতিকরাও। এখনও পর্যন্ত এটাই এ বছরের সবচেয়ে দামি বিয়ে বলে মনে করা হচ্ছে। সেই এলাহি আয়োজনের খুঁটিনাটি জেনে নিন।
Advertisement
আদতে উত্তরপ্রদেশের সাহরানপুরের বাসিন্দা এই গুপ্ত পরিবার। ১৯৯৩ সালে তাঁরা দক্ষিণ আফ্রিকা চলে যান। সেখানে সাহারা কম্পিউটার্সের প্রতিষ্ঠা করেন। ‘দ্য নিউ এজ’ নামে একটি সংবাদপত্রও তাঁদের মালিকানাধীন।

তিন ভাই অজয় গুপ্ত, অতুল গুপ্ত এবং রাজেশ গুপ্ত মিলে ব্যবসা সামলান। অজয় গুপ্তর ছেলে সূর্যকান্ত গুপ্তর বিয়ে ছিল গত বৃহস্পতিবার। আর এক ভাই অতুল গুপ্তর ছেলে শশাঙ্কের বিয়ে ছিল শনিবার। দিল্লি নিবাসী হিরে ব্যবসায়ী সুরেশ সিঙ্ঘলের মেয়ে কৃতিকার সঙ্গে বিয়ে হয়েছে সূর্যকান্তের। শশাঙ্কের বিয়ে হয়েছে দুবাইয়ের ব্যবসায়ী বিশাল জালানের মেয়ে শিবাঙ্গির সঙ্গে।
Advertisement
আউলিতে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১০ হাজার ফুট উঁচুতে অবস্থিত একটি বিলাসবহুল রিসর্টে এই বিয়ের অনুষ্ঠান বসে। তার বেশ কিছু দিন আগে থেকেই ওই এলাকার সমস্ত হোমস্টে এবং হোটেল বুক করে নেওয়া হয়। বিমানে চাপিয়ে বিদেশ থেকে উড়িয়ে আনা হয় অতিথিদের। তাঁদের দামি উপহারও দেওয়া হয়।

বিয়ের অনুষ্ঠানের মধ্যেই গত ২০ জুন আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে সেখানে এসে পৌঁছন বাবা রামদেব। বিয়েতে আমন্ত্রিত সমস্ত অতিথি, ইন্দো-টিবেটান সীমান্ত পুলিশের কর্মী, টিভি তারকা কর্ণবীর বোহরা ও তাঁর স্ত্রীকে দু’ঘণ্টা ধরে যোগব্যায়ান সেখান তিনি। কর্ণবীর এবং তাঁর স্ত্রী তিজে দু’জনেই সেখানে পারফর্ম করেন।

মোটা টাকার বিনিময়ে ওই বিয়েতে পারফর্ম করেন বলিউডের ‘টাইগ্রেস’ ক্যাটরিনা কাইফও। সেই অনুষ্ঠানে ‘শীলা কি জওয়ানি’ গানে তাঁর নাচের ভিডিয়ো ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। এ ছাড়াও অভিনেতা সিদ্ধার্থ মলহোত্র, নোরা ফতেহি, ঊর্বশী রাউতেলা, র‌্যাপার বাদশা, কৈলাশ খের, জাভেদ আলি, আস্থা গিল এবং শ্রুতি পাঠকের মতো শিল্পীরাও পারফর্ম করেন।

টেলি জগতের একাধিক পরিচিত মুখকেও দেখা যায় ওই বিয়েতে। যাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন ‘নাগিন’ খ্যাত সুরভি জ্যোতি, রোশনি চোপড়া, সানা খান, নিয়া শর্মা, হুসেন কুয়াজেরওয়ালা, ইন্ডিয়ান আইডল খ্যাত অভিজিত সবন্ত এবং সঙ্গীত পরিচালক মিঠুন।

রামদেবের ঘনিষ্ঠ সহযোগী বালকৃষ্ণও বিয়েতে আমন্ত্রিত ছিলেন। আমন্ত্রিত ছিলেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হরিশ রওয়তও।

তবে জাঁকজমক করে এই বিয়ের আয়োজন নিয়ে কম বিতর্কও হয়নি। বিয়েতে হেলিকপ্টার ব্যবহার করতে চেয়ে সেখানে একটি হেলিপ্যাড বানাতে চেয়েছিল গুপ্ত পরিবার। কিন্তু পরিবেশের ক্ষতি করে সেখানে তাঁদের হেলিপ্যাড বানানোর অনুমতি দেয়নি উত্তরাখণ্ড হাইকোর্ট। বিয়ের অনুষ্ঠান চলাকালীন পরিবেশের যাতে কোনও ক্ষতি না হয়, তার জন্য তিন কোটি টাকা আগাম জমাও করতে হয়েছিল তাঁদের।

বহু বারই বিতর্কে নাম জড়িয়েছে এই গুপ্ত পরিবারের। দুর্নীতিতে অভিযুক্ত দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট জেকব জুমার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল তাঁদের। এমনকি গুপ্ত পরিবারই আড়াল থেকে জুমা সরকারকে পরিচালনা করত বলেও অভিযোগ উঠেছিল সে দেশে।