Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Railways

পানীয় জল না জলকামান! তিরের বেগে ছুটছে, ভিজে যাচ্ছেন রেলযাত্রীরা, ভিডিয়ো ঘিরে কৌতুক

দরজায় দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রীরা অতর্কিত এই জলকামানের জন্য প্রস্তুত ছিলেন না। অনেকেই ভিজে গেলেন। পরের কামরার যাত্রীরা বুঝতে পেরে কোনও মতে ছিটকে গেলেন।

ভিডিয়োটি এক ঝলক দেখলে মনে হতেই পারে, স্টেশনে জলকামান ছোড়া হচ্ছে।

ভিডিয়োটি এক ঝলক দেখলে মনে হতেই পারে, স্টেশনে জলকামান ছোড়া হচ্ছে। — ছবি টুইটার থেকে।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৮ অক্টোবর ২০২২ ১৬:৩৩
Share: Save:

এ যেন জলকামান! ভিডিয়োটি এক ঝলক দেখলে মনে হতেই পারে, স্টেশনে জলকামান ছোড়া হচ্ছে। তাক করা হচ্ছে ট্রেনের ভিতরে থাকা যাত্রীদের। নাহ্, সে রকম কিছু নয়। স্টেশনে একটি জলের কল ভেঙে গিয়েছে। সেখানে থেকে সবেগে ছুটে আসছে জলস্রোত যার মুখ স্টেশনে আসা-যাওয়া ট্রেনের দিকে।

টুইটারে ভিডিয়োটি পোস্ট করেছিলেন জনৈক। লিখেছেন, ‘‘আপনাদের পরিষেবায় ভারতীয় রেল।’’ ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, স্টেশনে যে কল রয়েছে, সেটি ভেঙে ধূমকেতুর মতো ছুটে যাচ্ছে জল। তখনই স্টেশনে ঢুকছে ট্রেন। দরজায় দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রীরা অতর্কিত এই জলকামানের জন্য প্রস্তুত ছিলেন না। অনেকেই ভিজে গেলেন। পরের কামরার যাত্রীরা বুঝতে পেরে কোনও মতে ছিটকে গেলেন। তবু বাঁচতে পারলেন না। এর মধ্যেই লাখ লাখ বার ভিডিয়োটি দেখা হয়েছে।

কোন স্টেশনের ঘটনা, তা অবশ্য বলা হয়নি টুইটে। ট্রেনের গায়ে ‘ইস্টার্ন রেলওয়ে’ লেখা। দেখে অনেকেই মনে করছেন,পশ্চিমবঙ্গের কোনও স্টেশনের কাণ্ড। ভিডিয়ো দেখে ঠাট্টার বন্যা বয়ে গিয়েছে সামাজিক মাধ্যমে। কেউ লিখেছেন, ‘‘বাড়ি থেকে যাত্রীরা স্নান করে আসেননি, রেল কর্তৃপক্ষ সেটা বুঝে ফেলেছেন।’’ অন্য এক জন লিখলেন, ‘‘স্টেশনের এক জন যাত্রীও কলের মুখে একটা রুমাল বেঁধে জল আটকানোর চেষ্টা করেননি।’’ কেউ আবার ঠাট্টা করে লিখেছেন, যাত্রীদের তৃষ্ণা মেটানোর দায়িত্ব নিয়েছে ভারতীয় রেল। কারও আশঙ্কা, দরজায় দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রীদের মোবাইলগুলি বোধ হয় গেল!

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE