Advertisement
০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
rajeev kumar

রোজ ভ্যালি কাণ্ডেও রাজীব কুমারের বয়ান রেকর্ড! শিলংয়ে সিবিআইয়ের আলাদা দল

রবিবার সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ সিবিআই দফতরে প্রবেশ করেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার

রাজীব কুমার এবং কুণাল ঘোষ। —ফাইল চিত্র।

রাজীব কুমার এবং কুণাল ঘোষ। —ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১১:২৬
Share: Save:

১২ ঘণ্টারও বেশি সময় কাটিয়ে শিলংয়ের সিবিআই অফিস থেকে বেরোলেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। তার মধ্যে দু’ঘণ্টা বাদ দিলে বাকি প্রায় পুরো সময়টাই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ পর্ব চলে। সোমবার ফের তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন সিবিআই আধিকারিকরা। অন্য দিকে, সারদার পাশাপাশি এবার রোজভ্যালি কাণ্ডেও রাজীব কুমারের বয়ান রেকর্ড করা হবে সিবিআই সূত্রে খবর। তার জন্য রবিবারই শিলং পৌঁছেছেন রোজভ্যালি কাণ্ডের তদন্তকারী সিবিআই অফিসাররা। সোমবারই তাঁরাও রাজীব কুমারের মুখোমুখি বসবেন বলে সিবিআই খবর সিবিআই সূত্রে। রবিবার রাজীব কুমারের পাশাপাশি রবিবার কুণাল ঘোষকেও জেরা করেছেন সিবিআই-এর তদন্তকারী অফিসাররা। সন্ধ্যার দিকে দু’জনকে মুখোমুখি বসিয়েও জেরা করা হয়।

Advertisement

সিবিআইয়ের সঙ্গে প্রশ্নোত্তর পর্বের দ্বিতীয় দিনে রবিবার সাড়ে ১০টা নাগাদ সিবিআই দফতরে যান রাজীব কুমার। বেলা সওয়া ১টা পর্যন্ত তিনি সিবিআই দফতরেই ছিলেন। তারপর নিজের ত্রিপুরা কাসল-এ ফিরে আসেন মধ্যাহ্নভোজের জন্য। মধ্যাহ্নভোজ সেরে বেলা ৩টে ১৪ মিনিট নাগাদ তিনি ফের ওকল্যান্ডে সিবিআই দফতরে যান। সেখানেই দ্বিতীয় দফার জেরা শেষে রাত ১০টা ৪০ মিনিট নাগাদ বার হন রাজীব কুমার।

এ দিন রাজীব পৌঁছনোর আগে সকাল ১০টা নাগাদ সিবিআই দফতরে পৌঁছে যান তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার প্রাক্তন সংসদ কুণাল ঘোষ। তবে তাঁকে এবং রাজীব কুমারকে মুখোমুখি বসিয়ে প্রশ্নোত্তর পর্ব প্রথম দফাতে হয়নি বলে জানা গিয়েছে। দু’জনে আলাদা ঘরে ছিলেন।দ্বিতীয় দফায় তাঁদের মুখোমুখি বসানো হতে পারে বলে প্রথম দিনেই জানা গিয়েছিল। রাজীব কুমার এবং কুণাল ঘোষকে বসিয়ে প্রশ্নোত্তর পর্ব চালান সিবিআই অফিসাররা।

আরও পড়ুন: ১০ ঘণ্টা সিবিআই অফিসে রাজীব, এক সঙ্গে বসানো হল কুণালকেও, আজ ফের তলব

Advertisement

এ দিনও সিবিআই দফতরে যাওয়ার সময় রাজীব কুমারের সঙ্গে ছিলেন মুরলীধর শর্মা এবং জাভেদ শামিম। তবে ঢোকার সময় প্রথম দিনের থেকে এ দিন রাজীব কুমারকে অনেক বেশি উদ্বিগ্ন লেগেছে।

শিলংয়ে সিবিআই অফিসের পাশেই একটি সরস্বতী পুজোর মণ্ডপ। দফতরে প্রবেশ করার আগে সেখানে দেবী মূ্র্তিতে প্রণাম করে কুণাল ঘোষ সিবিআই দফতরে প্রবেশ করেন। দফতরে প্রবেশের আগে তিনি বলেন, ‘‘আমি সিবিআইকে যথাসাধ্য সহযোগিতা করব। যতটা পারব সাহায্য করব।’’

আরও পড়ুন: সুপারি কিলার দিয়েই খুন কৃষ্ণগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক, অনুমান তদন্তকারীদের​

শনিবারই রাজীব কুমারকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল আজ রবিবার ফের তাঁকে সিবিআই অফিসারদের মুখোমুখি হতে হবে। সিবিআই সূত্রের খবর, ওই দলে এসপি ও ডিএসপি ছাড়া যে পাঁচ জন আধিকারিক দিল্লি থেকে এসেছেন, তাঁরাও রাজীব কুমারের সঙ্গে কথা বলবেন। গতকাল তাঁকে সিট নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল। বিশেষ তদন্তকারী কমিটি সিট কী ভাবে তৈরি করা হয়েছিল, কারা সদস্য ছিলেন, কে কে দায়িত্বে ছিলেন ইত্যাদি প্রশ্ন তাঁকে করা হয়েছিল।

সিবিআই দফতরে পৌঁছলেন রাজীব কুমার। —নিজস্ব চিত্র।

অন্য দিকে, কলকাতা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এই গোটা জিজ্ঞাসাবাদ পর্বের ভিডিয়ো রেকর্ডিং করতে বলেছিলেন রাজীব কুমার নিজেই। তিনিই গতকাল প্রশ্নোত্তর পর্ব শুরু হওয়ার আগে বলেন, ‘‘আমার সঙ্গে সিবিআই অফিসারদের কথোপকথনের গোটা পর্ব যেন ভিডিয়ো রেকর্ড করা হয়।’’ গোটা প্রশ্নোত্তর পর্ব ভিডিয়ো রেকর্ডিং করা হচ্ছে বলেই খবর।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.