Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪
Opposition party meet at Bengaluru

অবশেষে কেন্দ্রের দিল্লি অধ্যাদেশের বিরোধিতায় কংগ্রেস, ঘোষণা বিরোধী বৈঠকের আগের দিনেই

শনিবারই কংগ্রেসের শীর্ষনেতা জয়রাম রমেশ বলেছিলেন,  ‘‘মোদী সরকারের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর উপর চালানো হামলার অতীতেও বিরোধিতা করেছে কংগ্রেস। ভবিষ্যতেও করবে।’’ 

অরবিন্দ কেজরীওয়াল।

অরবিন্দ কেজরীওয়াল। ফাইল ছবি।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৬ জুলাই ২০২৩ ১৬:০৭
Share: Save:

আপের মানভঞ্জনের চেষ্টা করল কংগ্রেস। বেঙ্গালুরুতে বিরোধীদের সাক্ষাতের আগের দিনই কংগ্রেস ঘোষণা করল অধ্যাদেশ বিতর্কে তারা আপের পাশেই থাকবে। দিল্লির আমলাদের নিয়ন্ত্রণ করার যে অধ্যাদেশ কেন্দ্র জারি করেছে, তাকে কোনও ভাবেই সমর্থন করবে না তারা। রবিবার কংগ্রেসের তরফে দলের জাতীয় স্তরের সাধারণ সম্পাদক কে সি বেণুগোপাল এই ঘোষণা করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘‘কংগ্রেস কেন্দ্রের ওই অধ্যাদেশকে সমর্থন করবে না। আর আমাদের আশা আপ বিরোধীদের বৈঠকে থাকবে। ’’ দ্বর্থ্যহীন ভাষায় তারা এই অবস্থান স্পষ্ট করছে বলেও জানিয়েছে কংগ্রেস।

লোকসভা ভোটের আগে বিজেপি বিরোধী ঐক্যের জন্য বিরোধী দলগুলি সোম এবং মঙ্গলবার দ্বিতীয়বারের জন্য বৈঠকে বসতে চলেছে বেঙ্গালুরুতে। কিন্তু আপ বৈঠকে যোগ দেওয়ার প্রশ্নে অনেক আগেই জানিয়ে দিয়েছিল, যদি দিল্লির আমলাদের নিয়ন্ত্রণকারী কেন্দ্রীয় অধ্যাদেশ নিয়ে কংগ্রেস নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট না করে তবে তারা ওই বৈঠক বয়কট করবে। ইতিমধ্যেই বাকি সব বিরোধী দল কেজরীওয়ালকে সমর্থন জানিয়েছে। এই আবহে কেজরীওয়াল বিরোধী জোটের বৈঠক বয়কট করলে তার যাবতীয় দায় কংগ্রেসের উপর এসে পড়ার আশঙ্কা ছিল। সেই সম্ভাবনা এড়াতে শনিবারই কংগ্রেস এই সমর্থনের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন।

শনিবার কংগ্রেসের শীর্ষনেতা জয়রাম রমেশ বলেছিলেন, ‘‘মোদী সরকারের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর উপর চালানো হামলার অতীতেও বিরোধিতা করেছে কংগ্রেস। দল সংসদ ও সংসদের বাইরে এ ধরনের হামলার প্রতিবাদ ভবিষ্যতেও করবে।’’ সরাসরি আপের কথা না বললেও এই বক্তব্যের লক্ষ্য যে অরবিন্দ কেজরিওয়ালেরই দল, সে ব্যাপারে কোনও দ্বিধা ছিল না কেন্দ্রীয় রাজনীতির কারবারিদের। রবিবার সেই ইঙ্গিতকেই স্পষ্ট করলেন কংগ্রেসের জাতীয় স্তরের সাধারণ সম্পাদক বেণুগোপাল। তিনি বলেন, ‘‘আশা করব ওঁরা (আপ নেতারা) বেঙ্গালুরুর বৈঠকে আসবেন। কারণ যে অধ্যাদেশের কথা ওঁরা বলেছিল, সে ব্যাপারে আমাদের অবস্থান আমরা স্পষ্ট জানিয়েছি। আমরা কেন্দ্রের ওই অধ্যাদেশকে সমর্থন করব না।’’

আপের তরফে পরে এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানানো হয়েছে। রবিবার আপ নেতা রাঘব চাড্ডা একটি টুইটে লেখেন, ‘‘কংগ্রেস ঘোষণা করেছে দিল্লি সংক্রান্ত অধ্যাদেশের দ্বর্থ্যহীন ভাবে বিরোধিতা করবে তারা। এটি নিঃসন্দেহে একটি ইতিবাচক ঘটনা।’’ কংগ্রেসের তরফে এই ঘোষণার পর আপের তরফে বেঙ্গালুরুর বৈঠকে যোগ দেওয়ার ব্যাপারে একটি বৈঠকও ডাকা হয়। সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে বেঙ্গালুরুতে বিরোধীদের ডাকা বৈঠকে যোগ দেবে আপ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE