Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Covid 19: কোভিডে মৃতের জন্য ৪ লক্ষ টাকা চাইবে কংগ্রেস

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৫ নভেম্বর ২০২১ ০৭:২৯


ফাইল চিত্র।

সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে নরেন্দ্র মোদী সরকারকে কোণঠাসা করতে কংগ্রেসের হাতিয়ার হবে অতিমারি। রাহুল গাঁধী বুধবার টুইটে তাঁদের দাবি ও একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে যে সুর বেঁধে দিয়েছেন, কংগ্রেসের সংসদীয় দল সেই সুরেই আক্রমণকে ঝাঁঝালো করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
গত কয়েকটি অধিবেশনে রাহুল তথা কংগ্রেস সাংসদেরা যে তিনটি বিষয় নিয়ে সরকারকে নিশানা করেছেন, তার একটিরও জবাব দিতে পারেননি মন্ত্রীরা। পাল্টা হিসেবে রাহুলের বিরুদ্ধে অশালীন এবং অপপ্রচারের অভিযান চালিয়েছেন বিজেপির আইটি সেল। তিনটি বিষয়ের প্রথমটি রাফাল কেনার ক্ষেত্রে দুর্নীতি ও কাটমানি লেনদেন। ফরাসি সরকারও বিষয়টির তদন্ত শুরু করে কার্যত রাহুলের অভিযোগের স্বীকৃতিই দিয়েছে। নিজস্ব তদন্তে দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে বলে জানিয়েছে একটি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমও। দ্বিতীয়টি পেগাশাস স্পাইওয়্যার ব্যবহার করে বিরোধীদের ফোনে আড়ি পাতার অভিযোগ। এ বিষয়েও আদালতে মুখ পুড়িয়েছে মোদী সরকার। সুপ্রিম কোর্ট বিষয়টির নিরপেক্ষ তদন্তের নির্দেশ দিয়ে বলেছে, জাতীয় সুরক্ষার অজুহাত দিয়ে যা খুশি তাই করা যায় না। তবে সব চেয়ে সঙ্গিন অবস্থা সরকারের হয়েছে কৃষক আন্দোলন নিয়ে, যার সমর্থনে সংসদে বরাবর সরব থেকেছে কংগ্রেস। আলোচনা ছাড়া সংসদে পাশ করানো তিনটি কৃষি আইন চাপে পড়ে প্রত্যাহার করে নিতে হয়েছে মোদী সরকারকে।
এর পরে এ বার কোভিড অতিমারীকে হাতিয়ার করে প্রধানত দু’টি বিষয়ে সরকারকে চাপে ফেলতে চাইছে কংগ্রেস। প্রথমত কোভিডে মৃতের সঠিক সংখ্যা জানতে চাইবে তারা। উত্তরপ্রদেশ বা বিহারে গঙ্গায় ভেসে আসা সেই সব বেওয়ারিশ লাসের বিষয়েও প্রশ্ন উঠবে। সঙ্গে কোভিডে মৃত সব নাগরিকের পরিবারের জন্য অন্তত ৪ লক্ষ টাকা করে সাহায্য ঘোষণার দাবি জানাবে কংগ্রেস। এ দিন রাহুল টুইটে যে ভিডিয়োটি পোস্ট করেছেন, তাতে কোভিডে স্বজনের মৃত্যুতে অসহায় হয়ে পড়া বহু মানুষ কথা বলেছেন। এঁদের একটা বড় অংশ আবার গুজরাতের। এই রাজ্যের কংগ্রেস সাংসদ শক্তিসিন গোভিল বলেন, “বাড়তি কিছু চাইছে না কংগ্রেস। মোদী সরকার দেশে যে অতিমারি আইন প্রয়োগ করেছে, তাতেই করোনা সংক্রমণে মৃতদের জন্য ৪ লক্ষ টাকা করে সাহায্যের কথা বলা হয়েছে। কিন্তু কোন জাদুবলে সরকার সেটা কমিয়ে ৫০ হাজার করে দিল, মানুষ সেটাই জানতে চান।”
ভারতে প্রথম কোভিড মেলে ২০২০-র ২৭ জানুয়ারি চিনের উহান থেকে আসা এক ভারতীয় ছাত্রের দেহে। তবে অভ্যন্তরীণ সংক্রমণ প্রথম পাওয়া যায় ওই বছর মার্চের গোড়ায়। তথ্য বলছে, কোভিডে প্রথম মৃত্যুটি হয়েছিল ১২ মার্চ। সরকারি হিসেব অনুযায়ী কোভিড সংক্রমণের কারণে ভারতে বুধবার সকাল পর্যন্ত ৪ লক্ষ ৬৬ হাজার ৫৮৪ জন মারা গিয়েছেন। কংগ্রেসের অভিযোগ, প্রকৃত সংখ্যা এর চেয়ে অনেক বেশি।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement