Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

আয়কর হানা স্ট্যালিন-কন্যার বাড়িতে, বিতর্ক

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৩ এপ্রিল ২০২১ ০৬:৪১
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

তামিলনাড়ুতে বিধানসভা নির্বাচনের মাত্র চার দিন বাকি। ভোটের প্রচার যখন তুঙ্গে উঠেছে, সেই সময়েই আয়কর আধিকারিকেরা হানা দিলেন ডিএমকে-র শীর্ষ নেতা এম কে স্ট্যালিনের জামাই সাবারিসানের বাড়িতে। ডিএমকে-কংগ্রেস জোটের নেতাদের অভিযোগ, এডিএমকে-বিজেপিকে সুবিধা করে দিতেই কেন্দ্রীয় সংস্থাকে ব্যবহার করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আজ সকাল আটটা থেকেই চেন্নাইয়ের উপকণ্ঠে স্ট্যালিনের মেয়ে সেন্থামারাইয়ের বাসভবন ও সাবারিসানের সহযোগী কার্তিক ও বালার ঠিকানায় তল্লাশি চলে। আয়কর বিভাগের সূত্রের দাবি, ভোটের প্রচারে টাকার অবৈধ লেনদেনের খবর মিলতেই তল্লাশি চালানো হয়েছে। সাবারিসান নিজে ডিএমকে-র এক জন শীর্ষস্থানীয় নেতা, স্ট্যালিনের পরামর্শদাতা। মেয়ে-জামাইয়ের বাসভবনে তল্লাশির খবরপেয়েই ডিএমকে-র শীর্ষনেতা আক্রমণ করেন মোদীকে।

তিরুচিরাপল্লিতে একটি নির্বাচনী সভায় স্ট্যালিন বলেন, ‘‘সকালে এখানে এসে খবর পেয়েছি, চেন্নাইয়ে আমার মেয়ের বাড়িতে তল্লাশি চলছে। মোদী এখন এডিএমকে সরকারকে বাঁচাতে চাইছেন। তবে তাঁকে বলতে চাই, ভুলে যাবেন না, এটা ডিএমকে। আর আমি করুণানিধির ছেলে। আমাকে এ ভাবে ভয় দেখানো যাবে না।’’ মোদীকে হুঁশিয়ারি দিয়ে তাঁর মন্তব্য, ‘‘আমার নাম স্ট্যালিন। জরুরি অবস্থা, মিসা-র মোকাবিলা করেছি। আয়কর হানায় ভয় পাচ্ছি না। মোদীর জানা উচিত, আমরা এডিএমকে-র নেতা নই যে তাঁর সামনে মাথা নুইয়ে দেব।’’ স্ট্যালিন-কন্যার বাড়িতে আয়কর হানা নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন রাহুল গাঁধীও।

Advertisement

টুইটারে রাহুল লিখেছেন, ‘‘ভোটে হারের সম্ভাবনা এলেই বিরোধী নেতাদের নিশানা করে তল্লাশির ঘটনা ঘটিয়ে থাকে বিজেপি।’’

এই ঘটনা নিয়ে ডিএমকে যে রাজনৈতিক প্রচারে নামতে চলেছে, সকাল থেকেই স্পষ্ট হয়ে যায়। স্ট্যালিনের মেয়ের বাসভবনে যখন তল্লাশি চলছে, তখন সেই বাড়ির বাইরে ভিড় করেন ডিএমকে-র সমর্থকেরা। সেই ছবি রিটুইট করে স্ট্যালিন একে জনসভার সঙ্গে তুলনা করেন। স্ট্যালিনের ছেলে উদয়নিধি গত কালই একটি জনসভায় অমিত শাহের পুত্র জয় শাহের উত্থান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। আজ বোনের বাড়িতে তল্লাশির ঘটনা নিয়ে উদয়নিধি আয়কর আধিকারিকদের উদ্দেশে বলেন, ‘‘আপনারা আমার বাড়িতে এলেন না কেন? আমি করুণানিধির নাতি। এমন তল্লাশিতে ভয় করি না।’’

এ দিকে, প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে উদয়নিধির একটি বিতর্কিত মন্তব্যকে ঘিরে উত্তপ্ত হয়েছে চেন্নাই থেকে দিল্লি। গত কাল তিনি মন্তব্য করেছিলেন, ‘‘বিজেপিতে সুষমা স্বরাজ নামে এক নেত্রী ছিলেন। নরেন্দ্র মোদী ক্রমাগত চাপ সৃষ্টি করে তাঁকে মেরে ফেলেছেন। অরুণ জেটলিও মারা গিয়েছেন মোদীর অত্যাচারে।’’

উদয়নিধির বক্তব্যে আপত্তি জানিয়েছেন সুষমার মেয়ে বাঁশরী স্বরাজ। টুইটারে উদয়নিধির উদ্দেশে তিনি লিখেছেন, ‘‘ভোটের প্রচারের জন্য আমার মায়ের স্মৃতিকে ফিরিয়ে আনবেন না। আপনার বিবৃতি মিথ্যা। আমার মায়ের প্রতি মোদীজির ভীষণ শ্রদ্ধা ও সম্মান ছিল। আমাদের পরিবারের দুঃসময়ে তিনি পাশে ছিলেন।’’

অরুণ জেটলির মেয়ে সোনালিও টুইটারে স্ট্যালিন-পুত্রের উদ্দেশে লিখেছেন, ‘‘জানি, ভোটের চাপ রয়েছে। কিন্তু এমন মিথ্যে ও অশ্রদ্ধা দেখে চুপ থাকতে পারলাম না। রাজনীতির বাইরেও আমার বাবার সঙ্গে মোদীজির বিশেষ সম্পর্ক ছিল।’’ উদয়নিধির মন্তব্য নিয়ে দিল্লিতে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করেছে বিজেপি। দলের নেতা প্রকাশ জাভড়েকর জানিয়েছেন, স্ট্যালিন-পুত্রের শাস্তির দাবি তুলেছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন

Advertisement