×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

ফের নয়া নজির! এক দিনে দেশে সংক্রমিত ৮৩৮০ জন, মৃত্যু ছাড়াল ৫০০০

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ৩১ মে ২০২০ ১১:০০
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

আগামিকাল অর্থাৎ সোমবার থেকে দেশে শুরু হয়ে যাচ্ছে আনলক-১। অর্থাৎ লকডাউন শিথিল করে ধীরে ধীরে সব কিছু চালু করার প্রক্রিয়া শুরু করছে কেন্দ্র। কিন্তু তার আগের দিনই ফের করোনাভাইরাসের সংক্রমণে নয়া নজির দেশে। রবিবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া হিসেবে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৮৩৮০ জন। এক দিনে এত সংখ্যক মানুষ আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা এই প্রথম। শুধু তাই নয়, এর আগে কখনও এক দিনে ৮ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হওয়ার নজিরও নেই দেশে। এই নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৮২ হাজার ১৪৩। এর মধ্যে শুধু মহারাষ্ট্রেই আক্রান্ত ৬৫ হাজারের বেশি মানুষ।

বিভিন্ন রাজ্যে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকরা দলে দলে ঘরে ফিরছেন। তাঁদের প্রায় সবাইকে স্ক্রিনিং এবং টেস্ট করানো হচ্ছে। ফলে এক দিকে যেমন টেস্টের সংখ্যা বাড়ছে, তেমনই এই পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে আক্রান্তের হারও বেশি। সেই কারণেই প্রতি দিন লাফিয়ে লাফিয়ে রেকর্ড সংখ্যক করোনা সংক্রমিত রোগীর সন্ধান মিলছে বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।

অন্য দিকে, দেশে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যাও ছাপিয়ে গেল পাঁচ হাজারের গণ্ডি। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১৯৩ জনের। এই নিয়ে সারা দেশে মৃতের সংখ্যা ৫,১৬৪। আক্রান্তের মতো মৃতের সংখ্যাতেও শীর্ষে মহারাষ্ট্র। সে রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ২১৯৭ জনের। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে গুজরাত। সে রাজ্যে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ১,০০৭ জনের। এর পর মৃতের সংখ্যায় পর পর রয়েছে দিল্লি (৪১৬), মধ্যপ্রদেশ (৩৪৩), পশ্চিমবঙ্গ (৩০৯), উত্তরপ্রদেশ (২০১), রাজস্থান (১৯৩), তামিলনাড়ু (১৬০)।

Advertisement

আরও পড়ুন: আনলকডাউন শুরু হচ্ছে কাল, তবে কন্টেনমেন্ট জ়োন লকডাউনেই

দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত মহারাষ্ট্রে। সে রাজ্যে আক্রান্তের ৬৫ হাজার ১৫৮ জন। দ্বিতীয় স্থানে দিল্লি। রাজধানীতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৮৫৪৯। এর পর করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যার হিসেবে ক্রমান্বয়ে রয়েছে তামিলনাড়ু (২১,১৮৪), গুজরাত (১৬,৩৪৩), রাজস্থান (৮,৬১৭), মধ্যপ্রদেশ (৭,৮৯১), উত্তরপ্রদেশের (৭,৪৪৫) মতো রাজ্য।

পশ্চিমবঙ্গে মোট করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৫,১৩০। কেন্দ্রের হিসেবে রাজ্যে মৃতের সংখ্যা ৩০৯। তবে রাজ্য সরকারের হিসেবে মৃত্যু হয়েছে ২৩৭ জনের। ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে কো-মর্বিডিটির কারণে।

আরও পড়ুন: রাজ্যে লকডাউন কতটা? দেখে নিন ১৫ দিনের নির্দেশিকা

তবে কিছুটা আশার আলো রয়েছে সুস্থ হওয়ার পরিসংখ্যানে। সোমবার দেওয়া কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের হিসেবে সারা দেশে চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮৬ হাজার ৯৮৪ জন করোনা আক্রান্ত। দেশে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮৯ হাজার ৯৯৫ জন।

Advertisement