Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

BJP: টিকাকরণ নিয়ে মোদীরই সাফল্য প্রচারে বিজেপি

গত বছরের ১৬ জানুয়ারি থেকে এখনও পর্যন্ত সারা দেশে কোভিডের প্রতিষেধকের মোট ১৫৬ কোটি ডোজ় দেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১৭ জানুয়ারি ২০২২ ০৬:৩৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

Popup Close

করোনার টিকাকরণের এক বছর পূর্তিতে হইহই করে ময়দানে নেমে পড়েছেন বিজেপির মন্ত্রী-নেতারা। টিকাকরণের সাফল্য প্রচারের পাশাপাশি, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আর এক দফায় ‘নায়ক’ হিসাবে তুলে ধরতে চেষ্টার ত্রুটি রাখছেন না তাঁরা। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী থেকে শুরু করে বিজেপি সভাপতি জে পি নড্ডা— সকলেই দাবি করেছেন, টিকাকরণের সাফল্যে বিশ্বের সামনে নজির গড়ছে ভারত এবং তা সম্ভব হয়েছে মোদীর সুযোগ্য নেতৃত্বেই। প্রতিষেধক প্রদানের প্রথম বর্ষপূর্তিতে আজ টিকাকরণ নিয়ে একটি স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডবিয়া। বিরোধীরা অবশ্য বলছেন, শাসক শিবিরের এ সব কর্মসূচি নেহাতই ‘নিজেদের ঢাক পেটানো’ ছাড়া আর কিছু নয়।

গত বছরের ১৬ জানুয়ারি থেকে এখনও পর্যন্ত সারা দেশে কোভিডের প্রতিষেধকের মোট ১৫৬ কোটি ডোজ় দেওয়া হয়েছে। টিকাকরণ নিয়ে কেন্দ্রের দাবি, এখনও পর্যন্ত ৯৩ শতাংশ দেশবাসী প্রতিষেধকের প্রথম ডোজ় পেয়েছেন। দ্বিতীয় ডোজ় প্রাপকের হার ৭০ শতাংশ। ভারতে টিকাকরণের এক বছর পূর্ণ হয়েছে আজই। সেই উপলক্ষে সকালেই বেশ কয়েকটি টুইট করে দেশবাসীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আমজনতার পাশাপাশি, তিনি অভিনন্দন জানান, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদেরও। মোদীর টুইট, ‘টিকাকরণ প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত প্রত্যেক ব্যক্তিকে সেলাম। আমাদের টিকাকরণ কর্মসূচি অতিমারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অসীম শক্তি সঞ্চার করেছে। প্রতিষেধক জীবন ও জীবিকাকে সুরক্ষিত রেখেছে’। একই সঙ্গে চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরলস পরিশ্রমের জন্য সাধুবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

টিকাকরণের সাফল্যের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। শাহি-টুইট, ‘প্রধানমন্ত্রীর অনুপ্রেরণা এবং বলিষ্ঠ নেতৃত্বে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বিশ্বের দরবারে ভারত একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। সরকার এবং নাগরিক একসঙ্গে মিলে কী ভাবে চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করা যায়, তা দেখিয়ে দিয়েছে’। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাণ্ডবিয়া এক কদম এগিয়ে দাবি করেছেন, ‘বিশ্বে সবচেয়ে সাফল্যের সঙ্গে টিকাকরণ’ চলছে ভারতে। টুইটারে নিজের হ্যান্ডলে তিনি লিখেছেন, ‘আজ বিশ্বের বৃহত্তম টিকাকরণ প্রক্রিয়ার এক বছর পূর্ণ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে ‘সবকা প্রয়াস’-এ শুরু হওয়া অভিযান আজ বিশ্বের সবচেয়ে সফল টিকাকরণ অভিযানে পরিণত হয়েছে। স্বাস্থ্যকর্মী, বিজ্ঞানী এবং আমজনতাকে অভিনন্দন জানাই’।

Advertisement

পিছিয়ে নেই বিজেপি নেতারাও। দলের সভাপতি নড্ডা টুইট করে বলেছেন, ‘টিকাকরণের সাফল্যে গোটা বিশ্ব উঠে দাঁড়িয়ে আমাদের প্রশংসা করছে’।

বিজেপির এই উচ্চগ্রামের প্রচারকে তেমন আমল দিচ্ছেন না বিরোধীরা। দেশবাসীর প্রতি মোদীর অভিনন্দন-বার্তাকে সরকারের ‘ঢোল বাজানো’ বলে কটাক্ষ করেছেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী। তিনি বলেন, “ভারতবর্ষের স্বাস্থ্য মন্ত্রক বলেছিল ২০২১ সালের মধ্যে সমস্ত প্রাপ্তবয়স্ক করোনা প্রতিষেধকের দু’টি ডোজ় পেয়ে যাবেন। টিকা দেওয়ার এক বছর শেষে দেশের অর্ধেক মানুষ এখনও দু’টি ডোজ়ই পাননি। আর ফোন তুললেই শোনা যাচ্ছে সরকার ১০০ কোটি মানুষকে টিকা দিয়েছেন। আসলে টিকা নিয়ে সরকার নিজের ঢোল নিজেই পেটাচ্ছে অথচ কথা দিয়ে কথা রাখছে পারছেন না তাঁরা।”

টিকাকরণ নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কাজে ত্রুটি রয়েছে বলে মনে করেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। তিনি বলেন, ‘‘সরকার এখনও সকলকে জোড়া ডোজ় দিয়ে উঠতে পারেনি। কেন্দ্রের হাতে সমস্ত টিকা গচ্ছিত। অথচ পশ্চিমবঙ্গ এখনও জনসংখ্যার ৪০ শতাংশকে টিকার দ্বিতীয় ডোজ় দিতে পারেনি। কেন্দ্র সেই টিকা রাজ্যকে দিতে না পারায় এই অবস্থা। অথচ টিকা বিদেশে রফতানি করা হচ্ছে। ওই টিকা রাজ্যগুলোকে দিলে এত দিনে সবাইকে টিকা দিয়ে দেওয়া সম্ভব হত।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement