×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

বেঙ্গালুরুতে খালি করা হল ইনফোসিস অফিস, দেশে আক্রান্ত বেড়ে ৮৪

সংবাদ সংস্থা
বেঙ্গালুরু ১৪ মার্চ ২০২০ ১৩:১০
করোনা আতঙ্কে বেঙ্গালুরুতে একটি দফতর খালি করে দিল ইনফোসিস। —ফাইল চিত্র।

করোনা আতঙ্কে বেঙ্গালুরুতে একটি দফতর খালি করে দিল ইনফোসিস। —ফাইল চিত্র।

করোনা আতঙ্কে এ বার বেঙ্গালুরুতে নিজেদের একটি দফতর খালি করে দিল তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা ইনফোসিস। সংস্থার এক কর্মীর শরীরে সম্প্রতি নোভেল করোনার উপসর্গ ধরা পড়েছে। তাতেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

শুক্রবার সংস্থার তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, ‘‘কর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আইআইপিএম বিল্ডিংয়ে আমাদের এক সদস্যের শরীরে কোভিড-১৯-এর লক্ষণ দেখা গিয়েছে। তাই শুধুমাত্র ওই বিল্ডিংটিই খালি করা হয়েছে।

বেঙ্গালুরুতে ইনফোসিসের ডেভলপমেন্ট সেন্টারের প্রধান গুরুরাজ দেশপান্ডে বলেন, ‘‘নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে বিল্ডিংটিকে জীবাণুমুক্ত করা হবে। তবে সমস্ত কর্মীদের কাছে অনুরোধ, সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া কোনও রকম গুজবে কান দেবেন না এবং কোনও রকম গুজব ছড়াবেন না। অত্যন্ত দায়িত্বশীলতার সঙ্গে গোটা পরিস্থিতি সামাল দিতে হবে। এ ব্যাপারে আপনাদের সকলের সহযোগিতা কাম্য।’’

Advertisement



আরও পড়ুন: ইউরোপকে করোনার ভরকেন্দ্র বলছে হু, ভারতীয়দের ফেরাতে ইটালি যাচ্ছে এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান​

আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় নির্দেশ না-মেনে নতুন বিজ্ঞপ্তি, বিতর্ক​

আপাতত ওই বিল্ডিংয়ের সমস্ত কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করতে নির্দেশ দিয়েছেন ইনফোসিস কর্তৃপক্ষ। জরুরি পরিস্থিতিতে সংস্থার গ্লোবাল ডেস্কের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। প্রায় সাড়ে তিন মাস আগে চিনেই প্রথম নোভেল করোনাভাইরাস থাবা বসায়। সেই থেকে বিশ্বের প্রায় সর্বত্রই এই ভাইরাস ছড়িয়ে গিয়েছে। ভারতও এই প্রাণঘাতী ভাইরাসের কবলে পড়েছে। এ মাসের শুরু থেকে এখনও পর্যন্ত এ দেশে ৮৪ জন নোভেল করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। প্রাণ হারিয়েছেন দু’জন। কর্নাটকে এখনও পর্যন্ত ৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। পরিস্থিতি বিবেচনা করে রাজ্যের সমস্ত তথ্য প্রযুক্তি সংস্থাগুলির জন্য বিশেষ নির্দেশিকা জারি করেছে রাজ্য সরকার। তাতে বলা হয়েছে, যত দিন পর্যন্ত পরিস্থিতি না নিয়ন্ত্রণে আসে, তত দিন পর্যন্ত সমস্ত কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করতে দেওয়া হোক।

Advertisement