Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২২
National News

খাটাল উচ্ছেদে গিয়ে মোষের তাড়া! আহত ১৪

প্রায় ৫০০ মোষ তেড়ে আসছে জনা কয়েক মানুষের দিকে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে প্রাণপণে দৌড়চ্ছেন তাঁরা। পালাতে গিয়ে কেউ রাস্তায় পড়ে গেলেন, তো কাউকে আবার বাগে পেয়ে শিঙে তুলে আছাড় মারল মোষ।

কয়েকশো মোষ লেলিয়ে দেওয়া হয় জেলা আধিকারিকদের দিকে। ছবি: সংগৃহীত।

কয়েকশো মোষ লেলিয়ে দেওয়া হয় জেলা আধিকারিকদের দিকে। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ০৪ জুন ২০১৭ ১৭:৪১
Share: Save:

প্রায় ৫০০ মোষ তেড়ে আসছে জনা কয়েক মানুষের দিকে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে প্রাণপণে দৌড়চ্ছেন তাঁরা। পালাতে গিয়ে কেউ রাস্তায় পড়ে গেলেন, তো কাউকে আবার বাগে পেয়ে শিঙে তুলে আছাড় মারল মোষ। শনিবার এমনই অবাক করা দৃশ্য দেখা গেল মধ্যপ্রদেশের জব্বলপুরের ইমলিয়া গ্রামে। গোটা ঘটনায় আহত হয়েছেন জনা ১৪ মানুষ।

Advertisement

আরও পড়ুন: অ্যাম্বুল্যান্স না পেয়ে মোটরসাইকেলে স্ত্রীর দেহ নিয়ে ফিরলেন বৃদ্ধ

ঠিক কী হয়েছিল?

পুলিশ জানিয়েছে, এই ইমলিয়া গ্রামে পারিয়াত নদীর ধারে বহু বছর ধরে প্রায় ২০টি অবৈধ খাটাল রমরমিয়ে চলছিল। জেলা প্রশাসন থেকে প্রথমে নোটিস ধরানো হয় খাটাল মালিকদের। অভিযোগ, তাতেও কোনও হেলদোল ছিল না তাঁদের। পরে হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয় এখনই খাটাল না তুলে নিলে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হবে। তাতেও খাটাল মালিকরা গুরুত্ব না দেওয়ায় শনিবার জেলা প্রশাসন পুলিশ ও জব্বলপুর পুরসভার বেশ কিছু আধিকারিককে সঙ্গে নিয়ে ইমলিয়া গ্রামে অভিযান চালায়। এমন একটা কিছু হতে পারে আঁচ পেয়ে আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছিলেন খাটাল মালিকরা। পুলিশ ও প্রশাসনিক আধিকারিকরা গ্রামে পৌঁছনো মাত্রই খাটাল থেকে মোষ লেলিয়ে দেয় প্রশাসনিক আধিকারিকদের দিকে। প্রথম দিকে বিষয়টা বুঝে উঠতে পারেননি তাঁরা। কেননা একটা, দুটো, দশটা এবং আস্তে আস্তে মোষের সংখ্যা বাড়তে দেখে বিপদের গন্ধ পান পুলিশ ও জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরা। নিজেদের সামাল দেওয়ার আগেই মোষগুলো তেড়ে যায় তাঁদের দিকে। পড়িমরি করে যে যে দিকে পেরেছে ছুট লাগান। কিন্তু তাতেও শেষ রক্ষা হয়নি। মোষের শিঙের গুঁতোয় বেশ কয়েক জন আহত হন। পড়ে গিয়েও আহত হয়েছেন জনা কয়েক। তাঁদের অসহায়তার সুযোগ নিয়ে খাটাল মালিকরা আধিকারিকদের লক্ষ্য করে আবার পাথরও ছুড়তে শুরু করেন। জোড়া আক্রমণে নাস্তানাবুদ হয়ে পুলিশ সেখান থেকে পিঠটান দেয়। প্রশাসনিক আধিকারিকরা কোনও মতে সেখান থেকে বেঁচে ফিরে নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নেন। ঘটনার কথা জেলা পুলিশের কাছে পৌঁছতেই বিশাল পুলিশবাহিনী এসে প্রথমে মোষগুলোকে তাড়িয়ে জাতীয় সড়কে তোলে। তার পর খাটাল মালিকদের বাগে আনতে শূন্যে আট রাউন্ড গুলি ও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। সেই সঙ্গে চলে লাঠিচার্জ।

Advertisement

মহকুমাশাসক ওম নমঃ আরজারিয়া বলেন, “হাইকোর্ট ও গ্রিন ট্রাইব্যুনাল-এর নির্দেশ পেয়ে ইমলিয়া গ্রামে উচ্ছেদ চালাতে গিয়েছিলেন আধিকারিকরা। আদালতের নির্দেশ সত্ত্বেও ৯০টি খাটাল লাইসেন্স এর জন্য আবেদন করেনি। তার মধ্যেই বেশ কিছু খাটালের মালিক এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদে নামে।” এক পুলিশ আধিকারিক জানান, নির্দেশ পেয়েই সেখানে হাজির হতেই কয়েকশো মোষ লেলিয়ে দেওয়া হয় তাঁদের দিকে। তার সঙ্গে সমান তালে চলে পাথরবৃষ্টি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.