Advertisement
২২ জুন ২০২৪
Donald Trump

দরিদ্র, মধ্যবিত্তদের অবস্থা পাল্টাবে না, ট্রাম্পের সফর নিয়ে এবার কটাক্ষ শিবসেনার

সোমবার সপরিবারে দু’দিনের ভারত সফরে এসেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ট্রাম্পের সফর নিয়ে কটাক্ষ সেনার।—ফাইল চিত্র।

ট্রাম্পের সফর নিয়ে কটাক্ষ সেনার।—ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১২:০১
Share: Save:

বড় ধরনের বাণিজ্য চুক্তির সম্ভাবনায় জল ঢেলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নিজেই। তার পরেও ডোনাল্ড ট্রাম্পের সফর ঘিরে আড়ম্বরে খামতি নেই। এরই মধ্যে ট্রাম্পের সফর নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিল শিবসেনা। তাদের দাবি, ট্রাম্পের এই সফরে দেশের দরিদ্র এবং মধ্যবিত্ত মানুষের অবস্থা বিন্দুমাত্র পাল্টাবে না।

সোমবার সপরিবারে দু’দিনের ভারত সফরে এসেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আমদাবাদ হয়ে আগরা ছুঁয়ে রাজধানী দিল্লিতে পা রাখবেন তিনি। তা নিয়ে সাজো সাজো রব চারিদিকে। তারই মধ্যে ট্রাম্পের এই সফর নিয়ে কটাক্ষ করেছে শিবসেনা।

দলের মুখপত্র ‘সামনা’য় এ দিন বলা হয়, ‘‘ট্রাম্পের সফরে ভারতের দরিদ্র ও মধ্যবিত্ত মানুষের জীবনে বিন্দুমাত্র পরিবর্তন আসবে না। তাই মানুষ এই সফর নিয়ে আগ্রহী এবং উৎসাহী কি না, এ প্রশ্ন আসছে কোত্থেকে? ট্রাম্পের সফর নিয়ে কোথাও যদি কোনও কৌতূহল থাকে, তা আমদাবাদেই, সফরের শুরুতেই যেখানে পা রাখছেন ট্রাম্প।

আরও পড়ুন: আমদাবাদ পৌঁছলেন মোদী, হিন্দিতে টুইট ট্রাম্পের​

আরও পড়ুন: ‘আবার ভারতে আসছি, আমি সম্মানিত’, উচ্ছ্বসিত ট্রাম্প-কন্যা ইভাঙ্কা​

আমদাবাদে যে রাস্তা দিয়ে যাবেন ট্রাম্প, তার দু’পাশের বস্তিগুলি ঢাকতে সম্প্রতি পাঁচিল গেঁথে দেওয়া হয়েছে, যাতে ট্রাম্প বা তাঁর সফরসঙ্গীরা বস্তি দেখতে না পান। তা নিয়ে সম্প্রতি তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। শিবসেনার দাবি, ট্রাম্পের সফর নিয়ে যত না কথা হচ্ছে, তার চেয়ে বেশি কথা হচ্ছে রাস্তার ধারের ওই পাঁচিল নিয়ে।

মঙ্গলবার দিল্লিতে নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠকে ট্রাম্প এ দেশে ধর্মীয় স্বাধীনতার বিষয়টি তুলতে পারেন বলে ইতিমধ্যেই ওয়াশিংটনের তরফে জানানো হয়েছে। কিন্তু এ দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বাইরের কারও হস্তক্ষেপ কাম্য নয় বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে শিবসেনা। তাদের কথায়, ‘‘ভারতে ধর্মীয় স্বাধীনতা বর্তমান অবস্থা নিয়ে নাকি আলোচনা করবেন ট্রাম্প। এ গুলো আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে মানুষ যাঁদের বেছে নিয়েছেন, তাঁরাই সরকার চালাচ্ছেন। বাইরের কারও পরামর্শ দরকার নেই।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE