• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অপূর্ব উত্থানের চলমান গল্প আপনি, মোদীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ ট্রাম্প

trump
মোতেরায় মোদীর প্রশংসায় ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি সৌজন্য টুইটার।

নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক বরাবরই ভাল। ভারতের প্রসঙ্গ উঠলে এ কথা বার বার শোনা গিয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মুখে। মোদীকে তাঁর প্রকৃত বন্ধু বলেও বার বার উল্লেখ করতে শোনা গিয়েছে ট্রাম্পকে। ভারতে এসেও মোদীর প্রশংসায় এতটুকুও কার্পণ্য করলেন না তিনি। বরং বললেন, এক জন চা-ওয়ালা হিসেবে জীবন শুরু করেছিলেন মোদী। কিন্তু আজ বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতন্ত্রকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি।  এর থেকেই এটা প্রমাণিত হয় যে, কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে ভারত যে কোনও পর্যায়ে পৌঁছতে পারে।

মোদীকে উদ্দেশ করে ট্রাম্প বলেন, “আপনাকে সকলেই ভালবাসে। আপনি শুধু গুজরাতের গর্ব নন। কঠোর পরিশ্রম এবং অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে যে অনেক কিছু অর্জন করা যায়, তার জীবন্ত উদাহরণ আপনি। অভূতপূর্ব উত্থানের একটা চলমান গল্প আপনি।” তবে পাশাপাশি ট্রাম্প এটাও বলেন, “মোদী এক জন দৃঢ় মনোভাবাপন্ন ব্যক্তিও বটে।” নরেন্দ্র মোদীর আমলে ভারতে অনেক তাত্পর্যপূর্ণ সংস্কারও হয়েছে, এমন মন্তব্যও করেন ট্রাম্প। তবে সারা বিশ্ব আরও এ ধরনের সংস্কার দেখতে চায় বলেও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

ট্রাম্পের এই সফরকে ঘিরে একটা আশঙ্কাও কাজ করছিল নয়াদিল্লিতে। মোদী কি ধর্মীয় স্বাধীনতার কথা তুলবেন? একটা অস্বস্তি যেন ঘিরে রেখেছিল শাসকদলকে। কিন্তু সে প্রসঙ্গে বিশেষ কিছু বলেননি ট্রাম্প। বরং বলেছেন, “এ দেশের সব ধর্মের মানুষ একসঙ্গে মিলেমিশে থাকেন। আর এই একতাই বিশ্বের কাছে অনুপ্রেরণা।” ট্রাম্প আরও বলেন, “মানুষের স্বাধীনতাকে গুরুত্ব দিয়েছে ভারত। গণতান্ত্রিক, শান্তিপূর্ণ ও সহিষ্ণু দেশ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে ভারত।”

সোমবার নির্ধারিত সময়েই ভারতে পৌঁছন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সকাল ১১.৪০ মিনিটে আমদাবাদ বিমানবন্দরে অবতরণ করে তাঁর বিমান ‘এয়ারফোর্স ওয়ান’। ট্রাম্পকে স্বাগত জানাতে আগেই আমদাবাদ বিমানবন্দরে পৌঁছে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিমান থেকে নেমেই মোদীকে আলিঙ্গন করেন ট্রাম্প। এর পরই সপরিবারে ট্রাম্প রওনা দেন সাবরমতী আশ্রমের উদ্দেশে। সঙ্গে ছিল মোদীর কনভয়ও। সাবরমতী আশ্রমে ট্রাম্প ও মেলানিয়াকে উত্তরীয় পরিয়ে স্বাগত জানানো হয়। এর পর গাঁধীজির মূর্তিতে মাল্যদান করেন ট্রাম্প ও মোদী। গোটা আশ্রমটি স্বয়ং মোদী ঘুরিয়ে দেখান তাঁদের। ট্রাম্প ও মোলানিয়া দু’জনে চরকাও কাটেন। কিছু ক্ষণ সময় কাটিয়ে সেখান থেকে মোতেরায় ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠানে যোগ দেন মোদী ও ট্রাম্প।

ভারতে আসার আগে থেকে একের পর এক টুইট করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাঁর বিমান ‘এয়ার ফোর্স ওয়ান’ আমেরিকা ছাড়তেই ট্রাম্প হিন্দিতে টুইট করেন, “আমরা ভারতে আসতে আগ্রহী। এখন মাঝপথে আছি। কিছু ক্ষণের মধ্যেই সকলের সঙ্গে দেখা হবে।  (হাম ভারত আনে কে লিয়ে তত্পর হ্যায়। হাম রাস্তে মে হ্যায়। কুছ ঘণ্টো মে হাম সবসে মিলেঙ্গে।)” সোমবার সকালেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আমদাবাদে পৌঁছেছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্টকে স্বাগত জানাতে তিনিও মুখিয়ে রয়েছেন। এ দিন সকালেই ট্রাম্পের উদ্দেশে মোদী টুইট করেন, “অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে ভারত।” তার পরই পাল্টা হিন্দিতে টুইট করে সকলকে চমকে দিয়েছেন ট্রাম্প। 

মোদী যা বললেন—

• ভারত-আমেরকিা একসঙ্গে মিলে তাদের স্বপ্ন পূরণ করবে।

• ১৩০ কোটি ভারতবাসী মিলে নতুন ভারতের সূচনা করছে।

• আজ ভারত বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্যানিটেশন প্রোগ্রাম চালাচ্ছে।

• ভারত-আমেরিকার সম্পর্কের আধার বিশ্বাস।

• দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরও মজবুত হয়েছে।

• ভারতকে ডিজিটাল বানাতে আমেরিকার সহযোগিতা অনস্বীকার্য।

 

ট্রাম্প যা বললেন—

• ভারতকে সাঁজোয়া কপ্টার দেবে আমেরিকা।

• আধুনিকতম অস্ত্র সরবরাহ করবে।

• পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করেছি। সন্ত্রাস দমনে কড়া ব্যবস্থা নিয়েছি।

• সন্ত্রাসে মদত দিলে বড় মূল্য চোকাতে হবে।

• বিনিয়োগের পথে বাধা দূর করতে দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্য চুক্তিতে জোর দেওয়া হবে।

• ভারতকে অ্যাডভান্সড এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম দেবে আমেরিকা।

• আগামিকাল ৩ বিলিয়ন ডলারের প্রতিরক্ষা চুক্তি হবে।

• আপনাদের একতাই বিশ্বের কাছে অনুপ্রেরণা।

• সবার সম্মান রক্ষা করে চলেছে ভারত।

• মানুষের স্বাধীনতাকে গুরুত্ব দিয়েছে ভারত।

• গণতান্ত্রিক, শান্তিপূর্ণ ও সহিষ্ণু দেশ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে ভারত।

• এখানে হিন্দু, মুসলিম, খ্রিস্টান সব ধর্মের মানুষ একসঙ্গে বসবাস করেন।

• আমেরিকা ভারতের সদা বিশ্বস্ত বন্ধু।

• মোদীকে সবাই ভালবাসেন।

• বিশ্বের সমস্ত মানবতাকে ভরসা দেয় ভারত।

• এক জন চা-ওয়ালা দেশকে নেতৃত্ব ডিচ্ছেন: ট্রাম্প।

• বন্ধু নরেন্দ্র মোদীর জন্য গর্বিত: ট্রাম্প।

• এমন একটা সুন্দর স্টেডিয়ামে আপনাদের মধ্যে এসে আমার খুব ভাল লাগছে: ট্রাম্প।

• ৮০০০ মাইল পেরিয়ে এখানে এসেছি একটা বার্তা দিতেই যে আমেরিকা ভারত এবং ভারতবাসীকে ভালবাসে: ট্রাম্প।

মোদী যা বললেন—

• ১৩০ কোটি ভারতীয়র পক্ষ থেকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে আমন্ত্রণ জানালাম: মোদী

• আমাদের মাঝে ইভাঙ্কা এসেছে। এটাও আমাদের কাছে বড় সম্মানের বিষয়।

• মেলানিয়া ট্রাম্পের ভূয়সী প্রশংসা করলেন মোদী।

• মেলানিয়া ট্রাম্পের এখানে আসা আমাদের জন্য বড় সম্মানের বিষয়।

• আপনি সেই দেশে এসেছেন যেখানে বৈচিত্রের  মধ্যে ঐক্য রয়েছে: মোদী। 

• ইভাঙ্কা ও জ্যারেডের উপস্থিতি এবং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এ দেশে আসা দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক আরও দৃঢ় করল: মোদী।

• আপনাকে স্বাগত জানানোর জন্য গোটা দেশ উন্মুখ হয়েছিল।

• ভারতে পৌঁছেই ট্রাম্প সোজা সাবরমতী আশ্রমে যান, বললেন মোদী।

• এর পর মোদী বললেন ইন্ডিয়া-ইউএস ফ্রেন্ডশিপ।

• নমস্তে ট্রাম্প তিন বার উচ্চারণ করলেন মোদী।

• মোতেরায় ‘নমস্তে ট্রাম্প’ মঞ্চে একসঙ্গে ট্রাম্প-মোদী। তাঁদের স্বাগত জানালেন স্টেডিয়ামে উপস্থিত দর্শকরা। মোদী...মোদী ধ্বনিতে মুখরিত হল স্টেডিয়াম।

• মোতেরায় পৌঁছলেন ইভাঙ্কা ট্রাম্প।

• মোতেরা স্টেডিয়ামে পৌঁছলেন ট্রাম্প। সেখানে তাঁকে স্বাগত জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপাণী এবং রাজ্যপাল আচার্য দেবরত।

• সাবরমতী আশ্রম ছেড়ে মোতেরা স্টেডিয়ামের উদ্দেশে রওনা দিল ট্রাম্প-মোদীর কনভয়।

• আশ্রমের ভিজিটর্স বুক-এ নিজের মন্তব্য লিখলেন ট্রাম্প।

 

• সাবরমতী আশ্রমে চরকা কাটলেন সস্ত্রীক ট্রাম্প।

• সস্ত্রীক ট্রাম্পকে সাবরমতী আশ্রমের হৃদয়কুঞ্জ ঘুরিয়ে দেখালেন মোদী। 

• গাঁধীজির ছবিতে মাল্যদান করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং নরেন্দ্র মোদী।

• সাবরমতী আশ্রমে ট্রাম্প ও মেলানিয়াকে উত্তরীয় পরিয়ে অভ্যর্থনা জানানো হল।

• সাবরমতী আশ্রমে সপরিবার পৌঁছলেন ট্রাম্প।

• ট্রাম্পকে স্বাগত জানাতে রাস্তার দু’পাশে প্রচুর মানুষ জড়ো হয়েছেন। কারও হাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পতাকা। কারও হাতে ভারতের পতাকা।

• বিমানবন্দর থেকে সাবরমতী আশ্রম পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার পথে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলছে। 

• ট্রাম্পের সঙ্গে রয়েছেন ১০০ জনের প্রতিনিধি দল।

• সাবরমতী আশ্রমের পথে ট্রাম্প-মোদীর কনভয়।

• বিমানবন্দর ছেড়ে বেরিয়ে গেলেন সপরিবার ট্রাম্প।

• ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং মেলানিয়া  বিমানবন্দরে নামতেই নাচ-গানে এবং শঙ্খ বাজিয়ে ভারতীয় রীতিতে স্বাগত জানানো হয় তাঁদের।

• মোদীর সঙ্গে আলিঙ্গন করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

• বিমান থেকে নামলেন সস্ত্রীক মার্কিন প্রেসিডেন্ট এবং তাঁর স্ত্রী। তাঁদের উষ্ণ অভ্যর্থনা জানালেন মোদী। 

• মোতেরায় পৌঁছেছেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং সচিব জয় শাহ।

• ট্রাম্পের হিন্দি টুইটের প্রেক্ষিতে মোদী পাল্টা টুইট করে বলেন, “অতিথি দেব ভব।”

• ট্রাম্পকে স্বাগত জানানোর জন্য বিমানবন্দরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

দু’দিনের সফরে ভারতে এসেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তাঁর এই সফরকে স্মরণীয় করে রাখতে খামতির কোনও জায়গা রাখেনি মোদী সরকার। তা সে নিরাপত্তা হোক বা তাঁর থাকার ব্যবস্থা— সব দিক থেকে নজিরবিহীন ব্যবস্থা করা হয়েছে। সর্দার বল্লভভাই পটেল বিমানবন্দর থেকে আমদাবাদ পর্যন্ত দীর্ঘ ২২ কিলোমিটার রাস্তা গত কয়েক দিনে সেজে উঠেছে।  নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে গোটা আমদাবাদ শহরটিকে। ১০ হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ছাড়াও নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে মার্কিন সিক্রেট সার্ভিস, ন্যাশনাল সিকিউরিটি গার্ড (এনএসজি) এবং স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ (এসপিজি)।

ষষ্ঠ মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ভারত সফরে এসেছেন ট্রাম্প। এ দিন সকালেই নরেন্দ্র মোদী মার্কিন প্রেসিডেন্টে উদ্দেশে টুইট করে বলেন, “ভারত আপনার আসার অপেক্ষায় মুখিয়ে। আপনার এই সফর দু’দেশের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ককে আরও মজবুত করবে। আমদাবাদে খুব শীঘ্রই আপনার সঙ্গে দেখা হচ্ছে।”

আরও পড়ুন: এসেছেন ওবামা, ক্লিন্টন, পুতিন... এ বার ‘ট্রাম্প প্ল্যাটার’ নিয়ে তৈরি হচ্ছে দিল্লির এই রেস্তরাঁ

আরও পড়ুন: ট্রাম্পের জন্য সাজছে তাজ, চিন্তা বাড়াচ্ছে বাঁদরকুল

অন্য দিকে, আমেরিকা ছাড়ার আগে রবিবার রাতেই ট্রাম্প টুইট করে এই সফর নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, “লাখ লাখ মানুষের জমায়েত হবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে আমার সম্পর্ক বেশ ভাল। ও আমার বন্ধু। মোদী জানিয়েছেন, এই দেশের মধ্যে সবচেয়ে বড় অনুষ্ঠান।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন