Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Himanta Biswa Sarma: ভোটের বিধি ভাঙার নোটিস হিমন্তবিশ্বকে

নিজস্ব সংবাদদাতা
গুয়াহাটি ২৭ অক্টোবর ২০২১ ০৫:৫১
অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মাকে নোটিস। ফাইল চিত্র।

অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মাকে নোটিস। ফাইল চিত্র।

নির্বাচন বিধি ভঙ্গের অভিযোগে অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মাকে নোটিস পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন। কংগ্রেসের অভিযোগের সূত্রে এই নোটিস। ক্ষুব্ধ হিমন্তের মন্তব্য, “সরকার মানুষের জন্য ভাল কিছু করলেই কংগ্রেসের আপত্তি।”

রাজ্যে উপনির্বাচন ৩০ অক্টোবর। তার প্রচারে গিয়ে বিভিন্ন সভায় হিমন্ত মেডিক্যাল কলেজ, স্পোর্টস কমপ্লেক্স, সেতু, রাস্তা, হাই স্কুল, স্টেডিয়াম তৈরির প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন বলে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করেছিল কংগ্রেস। বিরোধী দলনেতা দেবব্রত শইকিয়ার দাবি, ভোট প্রচারে সরকারি প্রকল্প ঘোষণা করার অর্থ নির্বাচনবিধি ভঙ্গ করা। দিল্লিতে মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের কাছেও স্মারকলিপি দিয়ে এআইসিসি দাবি জানিয়েছে, হিমন্তের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হোক, তাঁকে প্রচার থেকে বিরত রাখা হোক। কমিশনের নোটিসে বলা হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের ফুটেজ থেকে স্পষ্ট, তিনি নির্বাচনী প্রচারে সরকারি পদে থেকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ও সরকারি প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছেন। যদিও হিমন্ত মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বলেন, “মেডিক্যাল কলেজ, স্টেডিয়াম, সেতু তৈরি করা বা অরুণোদয় প্রকল্পের টাকা, এ সবই সরকারের পূর্বঘোষিত ও বাজেটে মঞ্জুর হওয়া প্রকল্প। নতুন কিছুই ঘোষণা করা হয়নি। কংগ্রেসের স্বভাবই হল সরকারের জনমুখী কাজের বিরুদ্ধে নালিশ ঠোকা।”

এর আগে বিধানসভা নির্বাচনের মুখে হিমন্ত বিপিএফ প্রধান হাগ্রামা মহিলারির বিরুদ্ধে এনআইএ তদন্ত চালিয়ে তাঁকে জেলে পাঠানোর হুমকি দিয়েছিলেন। তখন নির্বাচন কমিশন হিমন্তর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়। ৪৮ ঘণ্টার জন্য হিমন্তর প্রচার নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। পরে তিনি ক্ষমা চেয়ে নেওয়ায় শাস্তির মেয়াদ কমিয়ে ২৪ ঘণ্টা করা হয়। কংগ্রেস মুখপাত্র ববিতা শর্মার দাবি, কমিশনে জমা দেওয়া ফুটেজে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, হিমন্ত নির্বাচনবিধি ভেঙেছেন। তাই তাঁর জবাবের অপেক্ষা না করেই কমিশনের ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। অবিলম্বে তাঁর ভোট-প্রচার নিষিদ্ধ করা হোক।

Advertisement

রাজ্যের সেচ ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী অশোক সিঙ্ঘলের বিরুদ্ধেও নির্বাচনী বিধি ভাঙার অভিযোগ জমা দিয়েছে কংগ্রেস। কংগ্রেসের দাবি, সিঙ্ঘল গোঁসাইগাঁওয়ে হুমকি দিয়েছেন, বিজেপি মিত্রজোটের প্রার্থী না জিতলে এলাকায় সব উন্নয়নের কাজ বন্ধ করে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

Advertisement