×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

কৃষি আইন বাতিল নয়, কমিটি গঠনের প্রস্তাব দিতে পারেন রাজনাথ সিংহ

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০১ ডিসেম্বর ২০২০ ১২:৪৯
প্রতিবাদ-আন্দোলনের মধ্যেই কৃষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসছেন রাজনাথ সিংহ।

প্রতিবাদ-আন্দোলনের মধ্যেই কৃষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসছেন রাজনাথ সিংহ।

কৃষকদের মূল দাবি, নতুন তিনটি কৃষি আইন বাতিল করতে হবে। কিন্তু সংসদে পাশ হওয়ার পর আর পিছু হঠতে নারাজ সরকার। এমনই কার্যত বিপরীত মেরুর দুই পক্ষ বৈঠকে বসছে আজ মঙ্গলবার। সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে আন্দোলনকারী কৃষকদের সঙ্গে কথা বলবেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। তাঁর ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, কৃষকদের প্রতি সহানুভুতি এবং অন্য সব রকম সহযোগিতা-সহমর্মিতার আশ্বাসবার্তা দেওয়া হলেও আইন যে আর প্রত্যাহার করা হবে না, সেটাও জানিয়ে দেওয়া হবে।

সরকারের একাধিক সূত্রে খবর মিলছে, আইন প্রত্যাহারের বদলে একটি কমিটি গঠনের প্রস্তাব দিতে পারেন রাজনাথ। সেই কমিটিতে কৃষক ও সরকার-সহ সব পক্ষকে রাখার আশ্বাস দেবে সরকার। ওই কমিটি কৃষকদের দাবিদাওয়া নিয়ে সরকারের সঙ্গে দর কষাকষি করবে।

নতুন কৃষি আইনে ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে (এমএসপি) ফসল বিক্রি নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। অভাবে কম দামে বহুজাতিক বা বড় সংস্থার কাছে ফসল বিক্রি করতে বাধ্য হতে পারেন কৃষকরা। সরকারের তরফে এ বিষয়ে কৃষকদের সব রকম ভাবে আশ্বস্ত করার চেষ্টা করা হবে বলে রাজনাথের ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর। তাঁদের বোঝানোর চেষ্টা করা হবে, এমএসপি-তে কৃষক মান্ডির মাধ্যমে ফসল কেনা যেমন চলবে, তেমনই বেশি দামে যে কোনও বড় সংস্থার কাছেও ফসল বিক্রি করতে পারেবন চাষিরা।

Advertisement

কিন্তু প্রশ্ন হল মূল সঙ্ঘাত তাতে মিটবে কি? নতুন কৃষি আইন বাতিল করার দাবিতে একবগ্গা কৃষকরাও। এই আইন প্রত্যাহার ছাড়া আর কোনও বিকল্পের পথে তাঁরা যাবেন না বলে আগেই জানিয়ে দিয়েছেন। অন্য দিকে নরেন্দ্র মোদী সরকারও কৃষি আইন থেকে বিন্দুমাত্র পিছু হঠতে রাজি নন। ফলে রাজনাথের সঙ্গে বৈঠকের পরেও বিপরীত মেরুর দুই পক্ষ সমঝোতায় পৌঁছয় কিনা, তার উপর নজর থাকবে পর্যবেক্ষকদের।

Advertisement