Advertisement
২৯ জানুয়ারি ২০২৩
Sundar Pichai

পদ্মভূষণ পেলেন সুন্দর পিচাই, অভিভূত গুগল সিইও বললেন, ‘ভারত আমার অন্তরে’

ভারত সরকারের তরফে এই সম্মাননায় অভিভূত খড়্গপুর আইআইটির প্রাক্তনী পিচাই তাঁর ব্লগে লেখেন, ‘‘আমার জীবনের একটা অংশ ভারত। যেখানেই যাই, এ দেশ আমার বুকে থাকে।’’

সুন্দর পিচাইকে পদ্মভূষণে সম্মানিত করল কেন্দ্রীয় সরকার।

সুন্দর পিচাইকে পদ্মভূষণে সম্মানিত করল কেন্দ্রীয় সরকার। ছবি: টুইটার।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ ১০:৪১
Share: Save:

ভারতের তৃতীয় সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মাননা পদ্মভূষণ পেলেন গুগল এবং অ্যালফাবেট সিইও সুন্দর পিচাই। ব্যবসা এবং শিল্প বিভাগে পিচাইয়ের অবদানের জন্য তাঁকে এই সম্মানে ভূষিত করল ভারত সরকার। শুক্রবার সান ফ্রান্সিসকোয় পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে সুন্দরকে এই সম্মান তুলে দেন আমেরিকার ভারতীয় রাষ্ট্রদূত তরণজিৎ সিংহ সান্ধু। তিনি বলেন,‘‘সুন্দরের যাত্রা অনুপ্রেরণামূলক। উদ্ভাবনী শক্তিতে বিশ্বব্যাপী ভারতীয় প্রতিভার এক উজ্জ্বল প্রকাশ তিনি।’’

Advertisement

টুইটারে সিন্ধু লেখেন, ‘‘সান ফ্রান্সিসকোয় গুগলের সিইও সুন্দর পিচাইকে পদ্মভূষণ হস্তান্তর করতে পেরে আমরা আনন্দিত। মাদুরাই থেকে মাউন্টেন ভিউ পর্যন্ত তাঁর অনুপ্রেরণামূলক যাত্রা ভারত-আমেরিকার অর্থনৈতিক এবং প্রযুক্তিগত সম্পর্ককে শক্তিশালী করেছে। তিনি বিশ্বব্যাপী উদ্ভাবনে ভারতীয় প্রতিভার অবদানকে নিশ্চিত করেছেন।’’

ভারত সরকারের তরফে এই সম্মাননায় অভিভূত খড়্গপুর আইআইটির প্রাক্তনী পিচাই তাঁর ব্লগে লেখেন, ‘‘ভারত আমার জীবনের একটা অংশ। যেখানেই যাই, এ দেশ আমার বুকে থাকে। আমি ভাগ্যবান যে, এমন একটি পরিবারে জন্মেছি যাঁরা শিক্ষার উপর আলাদা গুরুত্ব দিতেন। আমি কৃতজ্ঞ আমার বাবা-মায়ের কাছে। আমার ভবিষ্যতের জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে তাঁদের।’’ গুগল সিইও-র আরও সংযোজন, ‘‘এই সম্মানের জন্য ভারত সরকার এবং প্রতিটি ভারতবাসীর কাছে আমি কৃতজ্ঞ। যে দেশ আমায় তৈরি করেছে, তার কাছে এমন সম্মান পাওয়া বিরাট ব্যাপার।’’

সুন্দর পিচাই ওরফে পিচাই সুন্দর রাজনের জন্ম ১৯৭২ সালের ১২ জুলাই। তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ে তাঁর পৈতৃক বাড়ি। খড়্গপুর আইআইটির এই প্রাক্তনীর গুগলে যাত্রা শুরু হয়েছিল ২০০৪ সালে। প্রথমে গুগল ক্রোম, ক্রোম ওএস ইত্যাদি নিয়ে কাজ শুরু করেন তিনি। পরে ওই সংস্থারই সিইও নিযুক্ত হন। পদ্মভূষণে সম্মানিত পিচাই বলেন, ‘‘ভারত এবং গুগল সংস্থার মধ্যে সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে আমার উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.