Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বিতর্কিত চিঠি কাণ্ডে আর্চবিশপকে নোটিস নির্বাচন কমিশনের

সংবাদ সংস্থা
গাঁধীনগর ২৬ নভেম্বর ২০১৭ ১৮:৪০
আর্চবিশপ ম্যাকওয়ান জাতীয়তাবাদী শক্তিকে হারানোর ডাক দিয়েছেন এক চিঠিতে। তার জেরেই কমিশনের নোটিস। ছবি সৌজন্য: archgandhinagar.org

আর্চবিশপ ম্যাকওয়ান জাতীয়তাবাদী শক্তিকে হারানোর ডাক দিয়েছেন এক চিঠিতে। তার জেরেই কমিশনের নোটিস। ছবি সৌজন্য: archgandhinagar.org

নির্বাচন প্রক্রিয়ায় ধর্মীয় নেতাদের তৎপরতা বরদাস্ত করা হবে না। বুঝিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন। গাঁধীনগরের আর্চবিশপের লেখা বিতর্কিত চিঠির প্রেক্ষিতে কমিশন কড়া পদক্ষেপ করল। নোটিস ধরানো হল আর্চবিশপ টমাস ম্যাকওয়ানকে।

গাঁধীনগরের আর্চবিশপের লেখা চিঠিটি প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই বিতর্ক শুরু হয়েছে গুজরাতের রাজনৈতিক শিবিরে। ২১ নভেম্বর তারিখে চিঠিটি লেখা হয়েছিল। গুজরাতের বিভিন্ন গির্জার প্রধানদের এবং ধর্মীয় পদাধিকারীদের উদ্দেশে চিঠিটি লিখেছিলেন ফাদার টমাস ম্যাকওয়ান। চিঠিতে তিনি ‘জাতীয়তাবাদী শক্তি’কে পরাস্ত করার আহ্বান জানিয়েছিলেন। ‘জাতীয়তাবাদী শক্তিগুলির হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে’ ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করুন— এমনই আহ্বান জানিয়েছিলেন ম্যাকওয়ান।

আরও পড়ুন: স্পর্শকাতর অঞ্চলে অমিত, চায়ের কাপ হাতে ‘মনের কথা’

Advertisement

‘‘আমাদের দেশের ধর্মনিরপেক্ষ এবং গণতান্ত্রিক কাঠামো বিপন্ন। মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। সাংবিধানিক অধিকার পদদলিত হচ্ছে। এমন একটা দিনও যায় না, যে দিন আমাদের গির্জাগুলির উপরে, বিশ্বাসীদের উপরে বা প্রতিষ্ঠানের উপরে আক্রমণ হয় না। সংখ্যালঘু, অনগ্রসর শ্রেণি, অন্যান্য অনগ্রসগর শ্রেণি, গরিব এবং আরও অনেকের মধ্যে নিরাপত্তাহীনতার বোধ ক্রমশ বাড়ছে।’’ চিঠিতে লেখেন গাঁধীনগরের আর্চবিশপ। তিনি আরও লিখেছেন, ‘‘জাতীয়তাবাদী শক্তিগুলি গোটা দেশে সম্পূর্ণ দখল কায়েম করার মুখে। গুজরাত বিধানসভার নির্বাচন পরিস্থিতি বদলে দিতে পারে।’’

আরও পড়ুন: গুজরাতে চাপ বাড়ছে গেরুয়া শিবিরের

আর্চবিশপের এই চিঠি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত হতেই বিতর্কের ঝড় ওঠে। রাজনৈতিক বিষয়ে ধর্মীয় নেতার হস্তক্ষেপ কেন? সে প্রশ্ন তো ওঠেই। ফাদার ম্যাকওয়ান নির্বাচনে সাম্প্রদায়িক মেরুকরণ ঘটাতে চাইছেন, এমন অভিযোগও অনেকেই তোলেন। ‘জাতীয়তাবাদী শক্তি’ বলে তিনি আসলে বিজেপি-কেই বোঝাতে চেয়েছেন, এ বিষয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অনেকেই একমত। গির্জায় গির্জায় চিঠি পাঠিয়ে আসলে তিনি খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষকে বিজেপির বিরুদ্ধে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বলে একাংশের দাবি।

তীব্র বিতর্কের প্রেক্ষিতে বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করল নির্বাচন কমিশন। বিতর্কিত চিঠির বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের নজরে যে এসেছে, তা বুঝিয়ে দেওয়া হল। ফাদার ম্যাকওয়ানকে নোটিস ধরানো হল।

আর্চবিশপ ম্যাকওয়ান অবশ্য দাবি করছেন, এমন চিঠি নতুন নয়। যে কোনও নির্বাচনের আগেই এই ধরনের চিঠি লিখে যোগ্য প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার জন্য খ্রিস্টান ভোটারদের প্রতি গির্জা আহ্বান জানায় বলে তাঁর দাবি। যে চিঠিটি নিয়ে বিতর্ক হচ্ছে, তাতে তিনি শুধু প্রার্থনা করার কথা বলেছেন এবং জনসাধারণের উদ্দেশে নয়, গির্জার পদাধিকারীদের উদ্দেশে চিঠিটি লেখা হয়েছে, সাফাই আর্চবিশপের।

আরও পড়ুন

Advertisement