Advertisement
০৭ ডিসেম্বর ২০২২
Hyderabad

‘আমি যখন খেতে বসতাম, বাবা আমাকে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দিত’

অচ্যুত জানান, ‘‘’প্রাপ্তবয়স্কদের সমস্যার বলি হচ্ছে শিশুরা। বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের ফলে সমস্যার শিকার হচ্ছে বর্তমান প্রজন্মের বেশিরভাগ শিশু। এই শিশুটিও তাঁর ব্যতিক্রম নয়।’’ শিশুটিকে উদ্ধার করে সরকারচালিত আবাসিক হোমে পাঠানো হয়েছে। 

ছবি সৌজন্যে উমা সুধীরের  টুইটার অ্যাকাউন্ট

ছবি সৌজন্যে উমা সুধীরের টুইটার অ্যাকাউন্ট

সংবাদ সংস্থা
হায়দরাবাদ শেষ আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১৩:১৫
Share: Save:

বয়স মাত্র চার। খেতে বসলে অল্প-স্বল্প বায়নাও করে বাচ্চা মেয়েটি। সে জন্যই তার গায়ে দেওয়া হয় গরম খুন্তির ছ্যাঁকা! মারাও হয় সেই খুন্তি দিয়ে! এমনকি চিমটিও কাটা হয়। আর এই কাজগুলো করেন শিশুটির ‘বাবা’! এবং নিয়মিত। হায়দরাবাদের এই ঘটনাটি সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে।

Advertisement

বাচ্চাটির কান্না শুনে কেমন সন্দেহ হত প্রতিবেশীদের। তাঁরাই প্রথমে বিষয়টি জানান স্থানীয় এক নেতাকে। সেখান থেকেই খবর পান অচ্যুত রাও নামে এক সমাজকর্মী। তিনি এসে উদ্ধার করেন শিশুটিকে। শিশুটিকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই সে বলে, ‘‘খেতে বসলেই বাবা আমাকে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেয়। মারধর করে, চিমটিও কাটে।’’

এই ঘটনায় স্থানীয় থানায় অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে ওই শিশুটির ‘বাবা’র নামে।

আরও পড়ুন: গয়নার লোভে অন্তঃসত্ত্বা প্রতিবেশীকে শ্বাসরোধ করে খুন, নয়ডায় গ্রেফতার দম্পতি

Advertisement

পুলিশ জানিয়েছে, শিশুটির মায়ের সঙ্গে তার বাবার বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে বেশ কিছু দিন আগেই। বর্তমানে তিনি অন্য এক ব্যক্তির সঙ্গে লিভ ইন সম্পর্কে রয়েছেন। মায়ের সঙ্গে বচসা হলেই তার ‘কোপ’ পড়ত শিশুটির উপরে। শিশুটির নিজের মা-ও নিয়মিত মারধর করত তাকে।

আরও পড়ুন: টাকার পতন নিয়ে কিছু একটা করুন! রিজার্ভ ব্যাঙ্ককে বলল মোদী সরকার

সমাজকর্মী অচ্যুত জানিয়েছেন, ‘‘প্রাপ্তবয়স্কদের সমস্যার বলি হচ্ছে শিশুরা। বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের ফলে সমস্যার শিকার হচ্ছে বর্তমান প্রজন্মের বেশির ভাগ শিশু। এই শিশুটিও তাঁর ব্যতিক্রম নয়।’’ শিশুটিকে উদ্ধার করে আপাতত একটি সরকারি আবাসিক হোমে পাঠানো হয়েছে।

ভোটের খবর, জোটের খবর, নোটের খবর, লুটের খবর- দেশে যা ঘটছে তার সেরা বাছাই পেতে নজর রাখুন আমাদের দেশ বিভাগে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.