Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

পাকিস্তানে ঢুকে পড়ে গ্রেফতার দুই ভারতীয়ের সঙ্গে দেখা করতে চায় দূতাবাস

ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক জানিয়েছে, ‘উদ্দেশ্যবিহীন’ ভাবে এই দু’জন পাকিস্তানে ঢুকে পড়েছিল।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২১ নভেম্বর ২০১৯ ১৯:১৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
সাংবাদিক বৈঠকে বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রবীশ কুমার। (ইনসেটে) প্রশান্ত বৈন্দম। ছবি: টুইটার থেকে

সাংবাদিক বৈঠকে বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রবীশ কুমার। (ইনসেটে) প্রশান্ত বৈন্দম। ছবি: টুইটার থেকে

Popup Close

‘উদ্দেশ্যবিহীন’ ভাবে পাকিস্তানে ঢুকে পড়ায় গ্রেফতার দুই ভারতীয় নাগরিকের অবিলম্বে কনস্যুলার অ্যাকসেস (কূটনীতিকদের দেখা করার অনুমোদন) চাইল ভারত। বৃহস্পতিবার বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রবীশ কুমার সাংবাদিক সম্মেলনে এই দাবির পাশাপাশি বলেন, ‘‘ওঁরা যেন পাকিস্তানের কূটনীতির শিকার না হন।’’ এত দিন পরে গ্রেফতারির খবর সামনে আসায় ভারত ‘হতবাক’ বলেও এ দিন মন্তব্য করেছেন রবীশ কুমার।

সম্প্রতি পাক সংবাদ মাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়, প্রশান্ত বৈন্দম ও ধারি লাল নামে দুই ভারতীয়কে গ্রেফতার করেছে পাকিস্তান। ভারতীয় বিদেশমন্ত্রক সূত্রে খবর, প্রশান্ত তেলঙ্গানার বাসিন্দা। পেশায় তথ্যপ্রযুক্তি ইঞ্জিনিয়ার। অন্য দিকে ধারি লাল মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দা। হায়দরাবাদের সাইবারাবাদ পুলিশ সূত্রে খবর, প্রশান্ত ২০১৭ সাল থেকে নিখোঁজ ছিলেন। সাইবারাবাদ পুলিশে নিখোঁজ ডায়েরিও করা হয়েছিল। পরিবারের দাবি, তিনি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। সম্প্রতি একটি ভিডিয়ো বার্তা মিলেছে। তাঁকে প্রতিবেশী রাষ্ট্রের পুলিশ গ্রেফতার করেছে বলে ওই ভিডিয়োয় জানিয়েছেন প্রশান্ত। তবে ধারি লালের সম্পর্কে সবিস্তার তথ্য এখনও পাওয়া যায়নি।

ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক জানিয়েছে, ‘উদ্দেশ্যবিহীন’ ভাবে এই দু’জন পাকিস্তানে ঢুকে পড়েছিলেন। রবীশ কুমার বলেন, ‘‘সংবাদ মাধ্যমে জানতে পেরেছি ২০১৬-’১৭ সালের কোনও একটা সময়ে দুই ভারতীয় নাগরিক উদ্দেশ্যবিহীন ভাবে পাকিস্তানে ঢুকে পড়েছিলেন। আমরা ইসলামাবাদকে জানিয়েছিলাম। কিন্তু তখন কোনও সাড়া পাওয়া যায়নি। হঠাৎ করে এই গ্রেফতারির ঘোষণা আমাদের হতবাক করেছে।’’

Advertisement

আরও পডু়ন: নির্বাচনী বন্ড ও বিলগ্নিকরণ ইস্যুতে উত্তাল সংসদ, স্পিকারের সঙ্গে অধীরের বাগযুদ্ধ, ওয়াকআউট কংগ্রেসের

এর পরেই পাকিস্তানকে নিশানা করেন রবীশ কুমার। তিনি বলেন, ‘‘আশা করি ওই দুই নাগরিককে যেন পাকিস্তান ব্যবহার না করে এবং তাদের কূটনীতির শিকার না বানায়। আমরা পাক সরকারের কাছে অবিলম্বে ওই দু’জনের কনস্যুলার অ্যাকসেস দেওয়ার দাবি করেছি।’’

কর্তারপুর করিডর চালু হলেও পঞ্জাব থেকে পাসপোর্ট পেতে দেরি-সহ নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে বলে অভিযোগ এসেছে বিদেশ মন্ত্রকে। এ প্রসঙ্গে রবীশ কুমার এ দিন বলেন, ‘‘পঞ্জাবে তিনটি পাসপোর্ট অফিস, পাঁচটি পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্র এবং ছ’টি পোস্ট অফিস পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্র (পিওপিএসকে) রয়েছে পঞ্জাবে। এর পাশাপাশি ডেরা বাবা নানকে আরও একটি পিওপিএসকে চালু হবে এবং ছ’টি পাসপোর্ট ক্যাম্প করা হবে।’’

আরও পডু়ন: রতন টাটার কাছ থেকে সরাসরি ফোন, সঙ্গে চাকরির প্রস্তাব!

শুক্রবার ইডেনে গোলাপি বলে ঐতিহাসিক ভারত-বাংলাদেশ দিন রাতের টেস্ট হতে যাচ্ছে। সেই উপলক্ষে কলকাতায় আসছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই প্রসঙ্গে রবীশ কুমার বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী আগামিকাল কলকাতায় আসছেন। এক জন ভাল বন্ধুর মাধ্যমে এই রকম একটা ঐতিহাসিক দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচের সূচনা যথাযথ বলে মনে করে নয়াদিল্লি।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement