Advertisement
১৮ জুলাই ২০২৪
National News

কাশ্মীর সীমান্তে যুদ্ধবিরতি: রাজি হল ভারত, পাকিস্তান

এ ব্যাপারে দু’দেশের মধ্যে ১৫ বছর আগে যে যুদ্ধবিরতি চুক্তি হয়েছিল, মঙ্গলবার তাকে ‘পুরোপুরি বাস্তবায়িত’ করতে রাজি হয়েছেন দু’দেশের ডিরেক্টর জেনারেল অফ মিলিটারি অপারেশনস (ডিজিএমও)। এও ঠিক হয়েছে, কেউ যুদ্ধবিরতির শর্ত ভাঙলে সঙ্গে সঙ্গেই হটলাইন যোগাযোগ ও বর্ডার ফ্ল্যাগ মিটিংয়ের মাধ্যমে এ বার তা মিটিয়ে ফেলা হবে। সমস্যাকে আর জিইয়ে রাখা হবে না।

কাশ্মীরের সুচেতগড়ে ভারত-পাকিস্তান আন্তর্জাতিক সীমান্ত।-ফাইল চিত্র।

কাশ্মীরের সুচেতগড়ে ভারত-পাকিস্তান আন্তর্জাতিক সীমান্ত।-ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৯ মে ২০১৮ ২১:৩২
Share: Save:

জম্মু-কাশ্মীরে আন্তর্জাতিক সীমান্ত ও নিয়ন্ত্রণ রেখায় দু’পক্ষের লাগাতার গুলিযুদ্ধ আক্ষরিক অর্থেই, বন্ধ করতে একমত হল ভারত ও পাকিস্তান।

এ ব্যাপারে দু’দেশের মধ্যে ১৫ বছর আগে যে যুদ্ধবিরতি চুক্তি হয়েছিল, মঙ্গলবার তাকে ‘পুরোপুরি বাস্তবায়িত’ করতে রাজি হয়েছেন দু’দেশের ডিরেক্টর জেনারেল অফ মিলিটারি অপারেশনস (ডিজিএমও)। এও ঠিক হয়েছে, কেউ যুদ্ধবিরতির শর্ত ভাঙলে সঙ্গে সঙ্গেই হটলাইন যোগাযোগ ও বর্ডার ফ্ল্যাগ মিটিংয়ের মাধ্যমে এ বার তা মিটিয়ে ফেলা হবে। সমস্যাকে আর জিইয়ে রাখা হবে না।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ হটলাইনে ভারত ও পাকিস্তানের মিলিটারি কম্যান্ডারদের মধ্যে আলাপচারিতায় ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ভারতীয় সেনাবাহিনী জানিয়েছে, এ দিন হটলাইনে ফোনটা এসেছিল পাকিস্তানের ডিজিএমও মেজর জেনারেল শাহির শামসাদ মির্জার কাছ থেকেই। ফোনটা ধরেছিলেন ভারতের ডিজিএমও লেফটেন্যান্ট জেনারেল অনিল চৌহান।

আরও পড়ুন- হুরিয়ত-কথা ফাঁস প্রাক্তন পাক কর্তার​

আরও পড়ুন- ‘আজাদি’র স্বপ্ন ভুলে যান, কাশ্মীরী যুবদের বার্তা দিলেন সেনাপ্রধান​

ওই আলাপচারিতার পর দু’দেশের সেনাবাহিনীও একটি বিবৃতিতে সই করেছে। সেই যৌথ বিবৃতিতেও বলা হয়েছে, ২০০৩ সালের যুদ্ধবিরতি চুক্তিকে এ বার পুরোপুরি ও আক্ষরিক অর্থেই বাস্তবায়িত করা হবে জম্মু-কাশ্মীরের আন্তর্জাতিক সীমান্ত ও নিয়ন্ত্রণ রেখায়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE