×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

দেশের জিডিপি-র হার সঙ্কুচিত ৭.৫ শতাংশ, নিশ্চিত করল সরকারি তথ্য

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি২৮ নভেম্বর ২০২০ ০৮:৩০
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

অনেক দিন ধরেই আশঙ্কাটা করা হচ্ছিল। এ বার সেই আশঙ্কাকে সত্যি করে পর পর দু’টি ত্রৈমাসিকে ভারতীয় অর্থনীতির সঙ্কোচন ঘটল। শুক্রবার সরকারি তথ্য প্রকাশ করে জানানো হল, গত অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের তুলনায় ২০২০-২১ অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) গড় জাতীয় উৎপাদন (জিডিপি)-এর সঙ্কোচন হয়েছে ৭.৫ শতাংশ। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পর পর দুটি ত্রৈমাসিকে জিডিপি সঙ্কোচন হলে তাকে ‘টেকনিক্যাল রিসেশন বা আপাত মন্দা’ বলা হয়। ১৯৯৬-এর পর এই প্রথম এমন আর্থিক সঙ্কোচনের মুখে পড়তে হল ভারতের অর্থনীতিকে।

Advertisement

জিডিপি-র সঙ্কোচন নিয়ে সরকারি তথ্য প্রকাশের পরই কেন্দ্র এবং প্রধানমন্ত্রীকে নিশানা করেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গাঁধী। 

জিডিপি কমলেও মুখ্য আর্থিক উপদেষ্টা কে সুব্রহ্মণ্যম বলেন, “আমাদের অর্থনীতি ভালই চলছে। অতিমারির আগে থেকেই অর্থনীতির অবস্থা ভাল। গত মার্চে অতিমারির কারণে প্রথম ত্রৈমাসিকে জিডিপি-র বৃদ্ধিতে প্রভাব পড়েছিল। তা ২৩.৯ শতাংশ কমে। তৃতীয় এবং চতুর্থ ত্রৈমাসিকে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াবে।”

আরও পড়ুন: বুলেট ট্রেন নিয়ে ২৫ হাজার কোটি টাকার চুক্তি


এপ্রিল-জুনে দেশের জিডিপি ব্যাপক ধাক্কা খায় লকডাউন এবং করোনা সংক্রমণের জেরে। রিজার্ভ ব্যাঙ্কও আশঙ্কা করেছিল জুলাই-সেপ্টম্বর এই দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে জিডিপি আর্থিক বৃদ্ধি কমতে পারে। বিশেষজ্ঞরাও এমন আশঙ্কার কথা জানিয়েছিলেন। পাশাপাশি তাঁরা এটাও বলেছিলেন, তুলনায় জিডিপি-র সঙ্কোচন কম হবে অক্টোবর-ডিসেম্বরে।

করোনার জেরে যে ভাবে অর্থনীতির উপর প্রভাব পড়েছিল, আনলক পর্বে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াবে বলে আশা করা হয়েছিল। অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার জন্য  বিভিন্ন ক্ষেত্রে বেশ কিছু আর্থিক প্যাকেজও ঘোষণা করেছিল কেন্দ্র। কিন্তু তার পরেও দুই ত্রৈমাসিকে এমন ধাক্কা ফের অর্থনীতিকে একটু টালমাটাল অবস্থায় দাঁড় করালো বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। যদিও তাঁরা আশা প্রকাশ করেছেন, ২০২১-এর শুরু থেকেই ধীরে ধীরে ঘুরে দাঁড়াবে অর্থনীতি।

Advertisement