Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

যাত্রী ফেলে সময়ের আগেই উড়ল ইন্ডিগোর বিমান!

সোমবার রাতে গোয়া থেকে হায়দরাবাদের উদ্দেশে রওনা দেয় ইন্ডিগোর ফ্লাইট ৬ই ২৫৯। যাত্রীদের দাবি, গোয়া থেকে রাত ১০টা ৫০ মিনিটে ছাড়ার কথা ছিল বিমান

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ১৬ জানুয়ারি ২০১৮ ১৪:৫১
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

গোয়া থেকে ইন্ডিগোর বিমানটির ওড়ার কথা ছিল রাত ১০টা ৫০ মিনিটে। যাত্রীরা সকলে এসেও গিয়েছিলেন। কিন্তু, নির্দিষ্ট সময়ের পঁচিশ মিনিট আগেই উড়ে গেল বিমান। আর সে কারণেই ১৪ জন যাত্রী ওই বিমানে সওয়ার হতে পারলেন না।

ওই যাত্রীদের অভিযোগ, বোর্ডিং পাশ থাকা সত্ত্বেও তাঁদের না নিয়ে উড়েছে ইন্ডিগোর ওই বিমানটি। শুধু তাই নয়, কোনও ঘোষণা ছাড়াই নির্দিষ্ট সময়ের আগে তা আকাশে উড়েছে । যদিও এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে ওই বিমান সংস্থা।

সোমবার রাতে গোয়া থেকে হায়দরাবাদের উদ্দেশে রওনা দেয় ইন্ডিগোর ফ্লাইট ৬ই ২৫৯। যাত্রীদের দাবি, গোয়া থেকে রাত ১০টা ৫০ মিনিটে ছাড়ার কথা ছিল বিমানটির। হায়দরাবাদে পৌঁছনোর কথা ছিল রাত ১২টা ৫ মিনিটে। কিন্তু, নির্দিষ্ট সময়ের পঁচিশ মিনিট আগেই তা রওনা দেয়। এমনকী, বিমান ছাড়ার আগে সে কথা ঘোষণা করা হয়নি।

Advertisement

যাত্রীদের এই অভিযোগ অস্বীকার করে পাল্টা দাবি করেছে ইন্ডিগো। সংস্থার এক মুখপাত্রের দাবি, যাত্রীদের বিমানে ওঠার জন্য বার বারই ঘোষণা করা হয়েছে। বিমানবন্দরে তাঁদের খোঁজও করা হয়েছিল। এমনকী, হাতে মাইক নিয়েও ডাকাডাকি করা হয়। কিন্তু, ওই ১৪ জন যাত্রী ঠিক সময়ে এসে না পৌঁছনোয় তাঁদের ‘গেট নো শো’ ঘোষণা করা হয়। তাঁর দাবি, “বোর্ডিং গেট বন্ধ করা হয়েছে রাত ১০টা ২৫ মিনিটে। কিন্তু, ওই ১৪ জন রাত ১০টা ৩৩ মিনিটে এসে পৌঁছন।’’

আরও পড়ুন
আইবি দিয়ে ভয় দেখানো হচ্ছে, বিস্ফোরক অভিযোগ তোগাড়িয়ার



পরিষেবা নিয়ে এর আগেও যাত্রীদের ক্ষোভের মুখে পড়েছে ইন্ডিগো। গ্রাফিক্স: শৌভিক দেবনাথ।

সংস্থার আরও দাবি, এর পর ওই যাত্রীদের ফোন করা হয়। তবে যাত্রীদের নিজস্ব নম্বরের বদলে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রে একটি বেসরকারি ট্র্যাভেল সংস্থার এজেন্টের ফোন নম্বর দেওয়া ছিল। ফলে ওই যাত্রীদের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করা যায়নি। যাত্রীদের ফোন নম্বর না দিলেও বিষয়টি তাঁদের জানাবেন বলে ইন্ডিগোকে প্রতিশ্রুতি দেন ওই এজেন্ট।

অভিযোগ অস্বীকার করা ছাড়াও ইন্ডিগো জানিয়েছে, সংস্থার খরচে ওই যাত্রীদের পর দিন সকালেই অন্য একটি উড়ানে হায়দরাবাদ পৌঁছনোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে, বিমানবন্দরে ওই যাত্রীদের ব্যাগ চেক-ইন হয়েছিল কি না তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। নিয়ম অনুযায়ী, যাত্রীদের ব্যাগ চেক-ইন হওয়ার পর তা বিমানের কার্গোতে চলে যায়। কোনও যাত্রী শেষ পর্যন্ত বিমানে না উঠলেও তাঁদের চেক-ইন হওয়া ব্যাগ কার্গো থেকে নামিয়ে দিতে হয়। আদৌ তা করা হয়েছিল কি না সে নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। যদিও এ বিষয়ে কোনও সদুত্তর দেয়নি সংস্থা।

পরিষেবা নিয়ে এর আগেও যাত্রীদের ক্ষোভের মুখে পড়েছে ইন্ডিগো। গত নভেম্বরেই ভারতীয় ব্যাডমিন্টন তারকা পিভি সিন্ধু টুইটারে দাবি করেন, মুম্বই যাওয়ার পথে সংস্থার কর্মী-সহ বিমানসেবিকার দুর্ব্যবহারের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। এর মাসখানেক আগে রাজীব কাটিয়াল নামে এক যাত্রীকে দিল্লি বিমানবন্দরেই শারীরিক নিগ্রহ করেন ইন্ডিগোর কর্মীরা। সে হেনস্থার ছবিও ভাইরাল হয়। গত শুক্রবার ইন্ডিগোর গাফিলতির আরও এক নমুনা মিলল। ইনদওরের টিকিট থাকা সত্ত্বেও এক যাত্রীকে নাগপুরের বিমানে তুলে দেন সংস্থার কর্মীরা।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement