Advertisement
২৯ মে ২০২৪
separate country for South

বাজেটে বঞ্চিত কর্নাটক, অভিযোগ কংগ্রেস সাংসদের! দক্ষিণ ভারতকে আলাদা দেশ ঘোষণার দাবি

সুরেশের দাবি, বাজেটে দক্ষিণ ভারতের প্রতি অবিচার করা হচ্ছে। তাঁর কথায়, ‘‘দক্ষিণে যে তহবিল পৌঁছনোর কথা ছিল, তা সরিয়ে নিয়ে উত্তর ভারতে বিতরণ করা হচ্ছে।’’

Karnataka Congress MP’s demand for separate country for South sparks controversy

ডি কে সুরেশ। ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৮:৩১
Share: Save:

বৃহস্পতিবার লোকসভা নির্বাচনের আগে কেন্দ্রের অন্তর্বর্তী বাজেট পেশ করা হয়েছে। সেই বাজেট নিয়ে প্রবল ক্ষোভ প্রকাশ করে দক্ষিণ ভারতকে আলাদা দেশ ঘোষণার দাবি করলেন কর্নাটক কংগ্রেসের লোকসভা সাংসদ ডি কে সুরেশ। তাঁর দাবি, সদ্য পেশ হওয়া বাজেটে কর্নাটকের জন্য কেন্দ্রের বরাদ্দ তহবিল ‘পর্যাপ্ত’ নয়।

সংসদে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের পেশ করা বাজেটের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে সুরেশের দাবি, বাজেটে দক্ষিণ ভারতের প্রতি অবিচার করা হচ্ছে। তাঁর কথায়, ‘‘দক্ষিণে যে তহবিল পৌঁছনোর কথা ছিল, তা সরিয়ে নিয়ে উত্তর ভারতে বিতরণ করা হচ্ছে।’’ হিন্দিভাষী অঞ্চলগুলি দক্ষিণ ভারতের উপর যে বঞ্চনা চাপিয়ে দিচ্ছে, তার ফলস্বরূপ আলাদা দেশ চাওয়া ছাড়া আর কোনও বিকল্প ছিল না বলে দাবি সুরেশের।

কংগ্রেস সাংসদের এই দাবি নিয়ে বিতর্ক ছড়িয়েছে। সুরেশের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন বিজেপি সাংসদ তেজস্বী সূর্য। তাঁর কথায়, ‘‘কংগ্রেসের তো ‘ডিভাইড অ্যান্ড রুল’-এর ইতিহাস রয়েছে, তাদের সাংসদ ডি কে সুরেশ এখন আবার সেটাই করে উত্তর ও দক্ষিণকে বিভক্ত করতে চাইছেন।’’ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকারের অধীনে কর্নাটকে কর হস্তান্তর কীভাবে বেড়েছে তার সপক্ষে তথ্য পেশ করেছেন সূর্য।

এক্স হ্যান্ডলে বিজেপি সাংসদ লেখেন, ‘‘এক দিকে ওদের নেতা রাহুল গান্ধী ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’র মাধ্যমে দেশকে একত্রিত করার চেষ্টা করছেন। অন্য দিকে, আমাদের এমন একজন সাংসদ আছেন যিনি দেশকে ভাঙবেন বলে পণ করেছেন। কংগ্রেসের ‘ডিভাইড অ্যান্ড রুল’-এর ধারণা ঔপনিবেশিকদের সেই কাজের চেয়েও বেশি খারাপ। কর্নাটকের মানুষ কখনওই এটা হতে দেবে না। আমরা লোকসভা নির্বাচনে ওদের উপযুক্ত জবাব দেব এবং কংগ্রেসমুক্ত ভারত গড়া নিশ্চিত করব।’’

রাজ্যের আর এক বিজেপি নেতা আর অশোকাও সূর্যের সুরে সুর মিলিয়েছেন। তাঁর কথায়, ‘‘কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী যখন ‘ভারত জোড়ো ন্যায় যাত্রা’ করছেন, কর্নাটকের কংগ্রেস নেতা এবং সাংসদ ডি কে সুরেশ তখন ‘ভারত তোড়ো’ নিয়ে কথা বলছেন৷ কংগ্রেসের ‘ডিভাইড অ্যান্ড রুল’-এর কারণে ইতিমধ্যেই দেশের মানুষের একবার বিভাজনের অভিজ্ঞতা হয়েছে, এখন ওরা আবার ভারত ভাগ করার কথা বলছে।’’

অশোকার দাবি, ‘‘একজন সংসদ সদস্য, যিনি দেশের অখণ্ডতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার শপথ নিয়েছেন, তিনি এই ভাবে কথা বললে তা কংগ্রেসের ভাগাভাগির মানসিকতাই প্রকট করে।’’

কংগ্রেসের তরফে যদিও এখনও সুরেশের মন্তব্যের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Congress Karnataka different country
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE