Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ছত্তীসগঢ়ে আবার মাওবাদী হামলা, আহত ৬

সংবাদ সংস্থা
রায়পুর ১৫ নভেম্বর ২০১৮ ০৫:১০
ভোট-যুদ্ধ: মাওবাদী হামলায় আহত জওয়ানকে নিয়ে হাসপাতালের পথে। বিজাপুরে বুধবার। পিটিআই

ভোট-যুদ্ধ: মাওবাদী হামলায় আহত জওয়ানকে নিয়ে হাসপাতালের পথে। বিজাপুরে বুধবার। পিটিআই

ছত্তীসগঢ়ে দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের আগেই ফের হামলা চালাল মাওবাদীরা। আজ বিজাপুরে মাওবাদীদের আইইডি বিস্ফোরণে আহত হয়েছেন পাঁচ জওয়ান ও এক স্থানীয় বাসিন্দা।

বিজাপুরের পুলিশ সুপার মোহিত গর্গ জানিয়েছেন, আজ বিজাপুর জেলার মোদকপল থেকে ধামতারি জেলার দিকে রওনা হয়েছিল বিএসএফের একটি কনভয়। দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে সুরক্ষার জন্য বিএসএফের ওই দলটিকে ধামতারিতে নিয়োগ করা হয়েছিল। বিজাপুর ঘাটি এলাকায় পৌঁছনো মাত্রই কনভয়ের প্রথম ট্রাকটির নীচে বিস্ফোরণ হয়। তাতে আহত হন এএসআই নরেশ সিংহ, কনস্টেবল অলোক সিংহ, কনস্টেবল নারায়ণ সিংহ, কনস্টেবল ভগবান সিংহ, রাজ্য পুলিশের কনস্টেবল ওয়াসম গণপত ও ট্রাকচালক মিতরাম রাওতে। ট্রাকচালক মিতরাম স্থানীয় বাসিন্দা। বিস্ফোরণের পরে মাওবাদীদের সঙ্গে বাহিনীর সংঘর্ষ শুরু হয়। কিছু ক্ষণ গুলির লড়াইয়ের পরে পালায় জঙ্গিরা।

খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে যায় অতিরিক্ত বাহিনী। আহতদের প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁদের রায়পুরে আনা হয়েছে। জঙ্গিদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে বাহিনী। অন্য দিকে সুকমার চিন্তাগুফা থানা এলাকায় একটি আইইডি বিস্ফোরণে আহত হয়েছেন সোড়ি রাহুল নামে এক স্থানীয় গ্রামবাসী। রাহুল খেতে কাজ করতে যাওয়ার সময়ে হঠাৎ বিস্ফোরণ ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ। খবর পেয়ে তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করেছে পুলিশ। বাহিনীকে নিশানা করতেই ওই এলাকায় আইইডি পুঁতে রাখা হয়েছিল বলে ধারণা পুলিশের।

Advertisement

প্রথম দফার নির্বাচনের সময়েও জারি ছিল গেরিলা যুদ্ধ। নিহত হয় পাঁচ মাওবাদী। আহত হন কয়েক জন কম্যান্ডো। সরকারি সূত্রে খবর, ছত্তীসগঢ়ে প্রায় ১ লক্ষ ৩০ হাজার জওয়ান মোতায়েন করা হয়েছে। ২০ নভেম্বর দ্বিতীয় দফার ভোট। এখন বাহিনীর বিভিন্ন দলকে এক জেলা থেকে অন্য জেলায় সরানোর প্রক্রিয়া শুরু করেছে প্রশাসন। সেই সময়ে বাহিনীর কনভয়কে নিশানা করা সুবিধেজনক। নিরাপত্তা বাড়াতে কনভয়ের শুরুতে কয়েকটি ট্রাকে ব্যাগ, শিবির তৈরির মালপত্র নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সে ক্ষেত্রে কনভয় নিশানা করে বিস্ফোরণ ঘটানো হলেও ঝুঁকি কিছুটা কমবে।



Tags:

আরও পড়ুন

Advertisement