Advertisement
০৩ ডিসেম্বর ২০২২
Madhya Prdesh

১৫ মাসের শিশুসন্তানকে বাঁচাতে বান্ধবগড়ে বাঘের সঙ্গে খালি হাতে লড়লেন মধ্যপ্রদেশের তরুণী

সন্তানকে বাঁচাতে খালি হাতেই বাঘের সঙ্গে লড়ে যান ২২ বছরের তরুণী। বাঘের সঙ্গে অসম লড়াইয়ে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই তরুণী।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
ভোপাল শেষ আপডেট: ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২০:০৩
Share: Save:

১৫ মাসের শিশুপুত্রের মন ভোলানোর জন্য তাকে নিয়ে গভীর জঙ্গলে গিয়েছিলেন মা। সেই সময়ই শিশুপুত্রের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঘ। সন্তানকে বাঁচাতে খালি হাতেই বাঘের সঙ্গে লড়ে যান ২২ বছরের তরুণী। বাঘের সঙ্গে অসম লড়াইয়ে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই তরুণী। সামান্য চোটআঘাত পেলেও বিপন্মুক্ত তাঁর ১৫ মাসের সন্তান। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের উমারিয়া জেলার বান্ধবগড় অভয়ারণ্যে। সোমবার জেলা প্রশাসনের তরফে এই ঘটনা জানানো হয়েছে।

Advertisement

গুরুতর আহত তরুণীর নাম অর্চনা চৌধুরী। হাসপাতালে শুয়ে অর্চনা জানিয়েছেন তাঁর শিশুপুত্রকে তাঁর সামনে থেকে ছিনিয়ে নিয়ে বাঘটি প্রায় পাঁচ মিটার দূরে গিয়ে লাফায়। সেই অবস্থায় বাঘটিকে নিরস্ত করতে খালি হাতেই বাঘটির পিঠে মুখে মারতে থাকেন তিনি। বাঘটি তখন তাঁর শিশুসন্তানকে ছেড়ে তাঁর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তাঁর চিৎকার শুনে গ্রামবাসীরা দৌড়ে এলে বাঘটি রণে ভঙ্গ গিয়ে গভীর জঙ্গলের মধ্যে ঢুকে যায়।

বান্ধবগড় টাইগার রিজার্ভের অধিকর্তা বিএস অ্যানেগিরি জানিয়েছেন, বাঘটি দীর্ঘদিন ধরে ওই এলাকায় থাকলেও আগে কখনও কোনও মানুষকে আক্রমণ করেনি। তবে তিনি জানিয়েছেন, ঘটনার দিন একটি গবাদি পশুকে শিকার করতে গিয়ে ব্যর্থ হয় বাঘটি। তাতে ক্ষুণ্ণ হয়েই সহসা এই আক্রমণ বলে মনে করছেন তিনি।

শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় উমারিয়া জেলা হাসপাতাল থেকে অর্চনাকে জব্বলপুর মেডিকেল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তাঁর নাকের হাড় ভেঙে গিয়েছে। পিঠে এবং পেটে গুরুতর আঘাত আছে।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.