Advertisement
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
MP borewell incident

প্রিন্স হতে পারল না তন্ময়, কুয়োতে আটকে থেকেই মৃত্যু হল আট বছরের শিশুর

গত ৬ ডিসেম্বর বিকাল ৫টা নাগাদ মধ্যপ্রদেশের বেটুলে একটি ফাঁকা জায়গায় খেলতে খেলতে গভীর কুয়োয় পড়ে যায় তন্ময়। তার পর থেকেই চলছিল উদ্ধারকাজ। শুক্রবার সকালে সে জ্ঞান হারায়।

৬৫ ঘণ্টা পেরিয়ে কুয়ো থেকে তন্ময়ের দেহ বাইরে বার করে আনা হয়।

৬৫ ঘণ্টা পেরিয়ে কুয়ো থেকে তন্ময়ের দেহ বাইরে বার করে আনা হয়। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
ভোপাল শেষ আপডেট: ১০ ডিসেম্বর ২০২২ ০৯:৩৪
Share: Save:

প্রিন্স পারলেও তন্ময় পারল না। বাঁচানো গেল না তন্ময় সাহুকে। মধ্যপ্রদেশের বেটুলে গভীর কুয়োতেই মারা গেল আট বছর বয়সি সেই বালক। ৬৫ ঘণ্টা পেরিয়ে কুয়ো থেকে তন্ময়কে বাইরে বার করে আনা হয়। তার দেহ যখন ৫৫ ফুট ওই গভীর কুয়ো থেকে বার করা হয়, তখন তন্ময়ের মৃত্যু হয়েছে বলে প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে। তন্ময়ের মৃতদেহ বেটুল জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

Advertisement

তন্ময়ের মৃত্যুর জন্য প্রশাসনের দিকেই আঙুল তুলেছে তার বাবা-মা। তন্ময়ের মা জ্যোতি সাহু কান্নায় ভেঙে পড়ে বলেন, “আমার সন্তান আমাকে ফিরিয়ে দাও। নেতা বা অফিসারের সন্তান হলেও কি উদ্ধার করতে এত সময় লাগত? অনেক সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরও ওরা কিছু বলছে না। আমাকে ওর দেহ দেখতেও দিচ্ছে না।’’

তার বাবা সুনীল সাহু বলেন, “তন্ময়কে কুয়োয় পড়ে যেতে দেখে আমার মেয়ে আমাকে ঘটনাটি জানায়। আমরা সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। ৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। এতক্ষণ ধরে উদ্ধারকাজ চালিয়েও আমার ছেলেকে বাঁচানো গেল না।’’

প্রসঙ্গত, গত ৬ ডিসেম্বর বিকাল ৫টা নাগাদ মধ্যপ্রদেশের বেটুলে একটি ফাঁকা জায়গায় খেলতে খেলতে গভীর কুয়োয় পড়ে যায় তন্ময়। তাকে উদ্ধার করার জন্য তড়িঘড়ি এসে পৌঁছয় পুলিশ। সঙ্গে ছিলেন বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, দমকল এবং আধা সেনার আধিকারিকরা। বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যরা জানিয়েছিলেন, পাথুরে মাটি থাকার কারণে দ্রুত খননকাজ চালানো যায়নি। উপর থেকেই তন্ময়ের রক্তচাপ, শ্বাস-প্রশ্বাসের হার মাপা হচ্ছিল। কিন্তু আতঙ্কে বা অন্য কোনও কারণে সে শুক্রবার সকালে অজ্ঞান হয়ে যায়। উপর থেকে বিশেষ পদ্ধতিতে বার্তা পাঠালেও কোনও সাড়া মেলেনি।

Advertisement

যদিও অরক্ষিত কুয়োয় পড়ে যাওয়ার ঘটনা এই প্রথম নয়। আগেও বহু বার শিশুদের অসাবধানতার ফলে অরক্ষিত কুয়োয় পড়ে যেতে দেখা গিয়েছে। যাদের মধ্যে অনেককেই জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা যায়নি।

২০০৬ সালে ৬০ ফুট গভীর কুয়োয় পড়ে গিয়েছিল প্রিন্স। সে সময় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়েছিল দেশের সংবাদমাধ্যম। বহু চেষ্টায় তাঁকে সুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে আনা সম্ভব হয়। সে সময় সরকারের তরফে জানানো হয়েছিল, দেশের অরক্ষিত কুয়োগুলিকে দ্রুত ঢেকে দেওয়া হবে। কিন্তু দেড় দশক পরেও পরিস্থিতির বদল হয়নি। আর তার জেরেই প্রাণ গেল তন্ময়ের।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.