Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে, নয়া স্ট্রেনই চিন্তার

গত শনিবার পর্যন্ত দেশে নয়া স্ট্রেনে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৯০। স্বাস্থ্য মন্ত্রক আজ বলেছে, ‘‘দেশে এখনও পর্যন্ত ৯৬ জনের দেহে করোনাভাইরাসের নয়া

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১২ জানুয়ারি ২০২১ ০৪:৪১
Save
Something isn't right! Please refresh.
ছবি: পিটিআই।

ছবি: পিটিআই।

Popup Close

দেশের সার্বিক করোনা পরিস্থিতি মোটের উপরে নিয়ন্ত্রণ রয়েছে বলে দাবি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের। যদিও করোনাভাইরাসের নয়া স্ট্রেনে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে।

দৈনিক করোনা সংক্রমণ গত তিন দিন ধরে ১৮ হাজারের ঘরে ঘোরাফেরা করছিল। আজ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৬ হাজার ৩১১। ওই সময়ের মধ্যে ১৬১ জন করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে, ২২৯ দিন পরে করোনায় দৈনিক মৃত্যু ১৭০-এর নীচে নামল। দেশের করোনা পরিস্থিতি মোটামুটি নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রয়েছে বলে কেন্দ্র দাবি করলেও কেরলের পরিস্থিতি যথেষ্টই উদ্বেগের। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে এখনও শীর্ষে কেরল। গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণের ওই রাজ্যে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৪৫৪৫ জন। তবে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা কেরলে অনেকটাই কম। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থের সংখ্যা ১৬ হাজার ৯৫৯। যার ফলে ওই সময়ের মধ্যে অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা ৮০৯ জন কমেছে।

কেন্দ্রকে কিছুটা হলেও উদ্বেগে রেখেছে করোনাভাইরাসের নয়া স্ট্রেনের সংক্রমণ। গত শনিবার পর্যন্ত দেশে নয়া স্ট্রেনে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৯০। স্বাস্থ্য মন্ত্রক আজ বলেছে, ‘‘দেশে এখনও পর্যন্ত ৯৬ জনের দেহে করোনাভাইরাসের নয়া স্ট্রেনের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: কেবল দু’টি প্রতিষেধককেই কেন বাছা হল? মোদীকে প্রশ্ন মমতার

আরও পড়ুন: ২০০ টাকায় করোনা টিকা, প্রস্তুতকারী সংস্থাকে বরাত কেন্দ্রের

সংক্রমণ নিয়ে সম্প্রতি আইআইটি মাদ্রাজ একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছে। তাতে বলা হয়েছে, শ্বাস বন্ধ করে রাখা এবং শ্বাসের হার কম করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা বাড়িয়ে থাকে। ওই গবেষণার নেতৃত্বে ডিপার্টমেন্ট অব অ্যাপ্লায়েড মেকানিক্সের অধ্যাপক মহেশ পঞ্চাগুলা। তিনি বলেন, ‘‘এই গবেষণায় বিশ্লেষণ করা হয়েছে, বাতাসে ভাসমান ধূলিকণা বা জলকণা কী ভাবে ফুসফুসের গভীরে চলে যায় এবং সেখানে জমা হয়।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement