Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ধর্নায় বসলেন নীতীশ, অস্ত্র সেই বিশেষ মর্যাদাই

ফের বিহারের বিশেষ মর্যাদার দাবি নিয়ে মাঠে নামলেন জেডিইউ নীতীশ কুমার। এবং এ বার নীতীশের আন্দোলনের লক্ষ্য সরাসরিই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

নিজস্ব সংবাদদাতা
পটনা ২১ অক্টোবর ২০১৪ ০২:৫৪

ফের বিহারের বিশেষ মর্যাদার দাবি নিয়ে মাঠে নামলেন জেডিইউ নীতীশ কুমার। এবং এ বার নীতীশের আন্দোলনের লক্ষ্য সরাসরিই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আজ পটনায় গাঁধী ময়দানের কাছে জয়প্রকাশ নারায়ণের মূর্তির পাদদেশে ধর্নায় বসেন নীতীশ। একই সঙ্গে রাজ্যের শাসক দল জেডিইউয়ের নেতৃত্বে ধর্না চলে বিহারের সবক’টি জেলাসদরে।

লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে এসে মোদী কার্যত ছিনিয়ে নিয়েছিলেন নীতীশের এই ‘অস্ত্র’। তাঁর প্রায় প্রতিটি জনসভায় মোদী জানিয়েছিলেন, কেন্দ্রে ক্ষমতায় এলে তাঁর সরকার বিহারের জন্য বিশেষ মর্যাদার ব্যবস্থা করবেন। কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদী নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় এসেছেন কয়েক মাস হয়ে গেল। কিন্তু এ ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত কোনও উচ্চবাচ্য শোনা যায়নি কেন্দ্রের তরফে। আজ প্রধানমন্ত্রীকে সেই কথাই মনে করিয়ে দিয়ে নীতীশ বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, আপনি গাঁধী ময়দানে যে ভাষণ দিয়েছিলেন তাতে ক্ষমতায় এলে বিহারকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। আপনি কথা রাখেননি।”

মুখ্যমন্ত্রী পদে তাঁর দ্বিতীয় পর্বের শুরু থেকেই নীতীশ রাজ্যের বিশেষ মর্যাদাকে অস্ত্র করে লাগাতার আন্দোলনে নামেন। সভা করেন দিল্লিতেও। তৎকালীন ইউপিএ সরকারের তরফে বিশেষ ইতিবাচক সাড়া মেলেনি। লোকসভা ভোটে রাজ্যে দলের বিপর্যয়ের পর নীতীশ কুমার মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ান। কয়েক মাস চুপচাপ থাকার পর আজ ফের রাজ্যের বিশেষ মর্যাদাকে হাতিয়ার করে নীতীশ মোদীর সরকারকে আক্রমণ করেন, “রাজ্যের জন্য অনেক প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু কিছুই তো দিলেন না। উল্টে কৃষকদের ভর্তুকির টাকা কেটে দিলেন, পটনা-দিঘা রেল প্রকল্পের বরাদ্দ কমিয়ে দিলেন।”

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement