Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

নারী সুরক্ষায় মন্ত্রীর ‘না’ বিকিনি আর মদে

সৈকতে সর্বসমক্ষে বিকিনি নয়। রাতে মেয়েদের ছোট পোশাকে পাবে গিয়ে মদ্যপানও নয়। সোমবার এ কথা বলেছিলেন গোয়ার পূর্তমন্ত্রী সুদিন দাভলিকর। আজ, সুদিন

সংবাদ সংস্থা
পানজিম ০২ জুলাই ২০১৪ ০২:৩৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

সৈকতে সর্বসমক্ষে বিকিনি নয়। রাতে মেয়েদের ছোট পোশাকে পাবে গিয়ে মদ্যপানও নয়। সোমবার এ কথা বলেছিলেন গোয়ার পূর্তমন্ত্রী সুদিন দাভলিকর। আজ, সুদিন দাভলিকরের মতকে সমর্থন করলেন শ্রী রামসেনা প্রধান প্রমোদ মুতালিক।

তৃণমূল-সাংসদ তাপস পালের ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসার পর পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল গোটা দেশ জুড়ে সমালোচনার মুখে পড়েছে। এ বার সুদিন দাভলিকরের কথায় বিতর্কের ঝড় উঠল বিজেপিকে নিয়েও। কিন্তু সোমবার সুদিন দাভলিকর ঠিক কী বলেছেন? তিনি বলেছিলেন, “আমি মহিলাদের কাছে অনুরোধ করছি, গোয়ায় যেন তাঁরা কেউ মদ্যপান না করেন। এটা তাঁদের স্বাস্থ্যের পক্ষেও ভাল। রাতে ছোট পোশাকে পাবে গিয়ে নাচানাচি ও মদ খাওয়াও ভাল নয়। আমরা খুব শীঘ্রই রাজ্যের পাবগুলির বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করব। অনেকেই বিদেশ থেকে গোয়ায় বেড়াতে আসেন। সৈকতে তাঁদের বিকিনির মতো ছোট পোশাকে ঘুরে বেড়ানোটাও ঠিক নয়। কারণ, খারাপ কিছু ঘটলে পুলিশ আসা অবধি অপ্রীতিকর যা ঘটার ঘটে যায়। তা আটকানো যায় না। আরও বোঝা উচিত, এ সব গোয়ার সংস্কৃতি নয়।”

কালাঙ্গুটে, বাগা, আনজুনা ইত্যাদি একের পর এক সৈকতের নাম মনে পড়ে গোয়ার নাম শুনলেই। গোয়ার সোনালি সৈকতে সমুদ্রের স্বচ্ছ নীল জল দেখতে বিদেশ থেকেও ভিড় জমান পর্যটকেরা। যাঁদের মধ্যে অনেকেই সমুদ্র সৈকতে বিকিনি পরে নির্দ্বিধায় ঘুরে বেড়ান। তাই তাঁদের উদ্দেশে সুদিন দাভলিকর জানান, বিদেশি পর্যটকদেরও ভারতীয় সংস্কৃতিটা জেনে গোয়ায় আসা উচিত।

Advertisement

তবে সুদিন দাভলিকরের মন্তব্যে দলের অন্দমহলে সমালোচনা শুরু হলেও মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিক্কর কিন্তু কার্যত সুদিনের সুরেই কথা বলেছেন। মনোহর জানিয়েছেন, তিনিও মনে করেন শহরের পাবগুলি এবং মদ্যপানের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা উচিত।

মঙ্গলবার শ্রী রামসেনা প্রধান মুথালিক জানান, পূর্তমন্ত্রীকে ধন্যবাদ। তিনি রাজ্যের এক জন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি। তিনি নিজেও বুঝতে পেরেছেন, গোয়ায় পাব-সংস্কৃতি কী হারে বাড়ছে। এর আগে ২০০৯ সালে ম্যাঙ্গালোরের একটি পাবে মেয়েরা দেশের ঐতিহ্য নষ্ট করছেন বলে তাঁদের উপর হামলা করেছিল। মুতালিক আজ আরও জানান, মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিক্কর এবং সুদিন দাভলিকরের সঙ্গে দেখা করবেন। যাতে রাজ্যে পাব-সংস্কৃতি না বাড়তে পারে।

মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পারিক্কর মেয়েদের ছোট পোশাক, মদ্যপান নিয়ে সুদিনের সুরে সুর মেলালেও, গোয়ার বিজেপির মুখপাত্র উইলফ্রেড মেসকুইটা বলেছেন, “গোটা দেশে এখনও কোথাও বলা হয়নি যে বিকিনি খারাপ পোশাক। তা হলে গোয়াতেই বা সেটা হবে কেন?”

গত কালের বক্তব্যের সমর্থনে আজ আবার দাভলিকর বলেছেন, “কোনও পরিবারের লোক চাইবে না তাঁদের বাড়ির মেয়ে, বৌ-রা পাবে যান। পাব বন্ধ হোক এ কথা বলিনি। শুধু বলতে চেয়েছি, পাবের ভেতরে যা হয়, তা ঠিক নয়।”

তবে আজ দাভলিকরের সমালোচনা করেছেন কংগ্রেসের দুর্গাদাস কামাত। তিনি জানান, দেশের সংবিধান অনুযায়ী ১৮ বছর বয়স হলে নিজের ভালটা নিজেই বোঝেন সবাই। দাভলিকরের নীতি পুলিশের মতো কাজ মেনে নেওয়া যায় না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement