Advertisement
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
National News

লোকসভা-বিধানসভার ভোট একসঙ্গে হোক: সুপারিশ নীতি আয়োগের

বারে বারে নয়, গোটা দেশে লোকসভা এবং বিধানসভা নির্বাচন হোক এক বারেই। সুপারিশ করল নীতি আয়োগ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বেশ কিছু দিন ধরেই লোকসভা নির্বাচন এবং বিভিন্ন রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন একসঙ্গে করানোর পক্ষে সওয়াল করছিলেন।

নীতি আয়োগ গভর্নি কাউন্সিলের সদস্যদের কাছে পৌঁছে গিয়ে নির্বাচনী সংস্কার সংক্রান্ত রিপোর্ট। —ফাইল চিত্র।

নীতি আয়োগ গভর্নি কাউন্সিলের সদস্যদের কাছে পৌঁছে গিয়ে নির্বাচনী সংস্কার সংক্রান্ত রিপোর্ট। —ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০১৭ ২০:০৫
Share: Save:

বারে বারে নয়, গোটা দেশে লোকসভা এবং বিধানসভা নির্বাচন হোক এক বারেই। সুপারিশ করল নীতি আয়োগ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বেশ কিছু দিন ধরেই লোকসভা নির্বাচন এবং বিভিন্ন রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন একসঙ্গে করানোর পক্ষে সওয়াল করছিলেন। দেশের সর্বোচ্চ পরিকল্পনা সংস্থাও এ বার প্রধানমন্ত্রীর মতই অনুমোদন করল। নির্বাচন কমিশনের কাছে নীতি আয়োগের সুপারিশ— ২০১৪ সালে যাতে লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গেই সব ক’টি রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন করিয়ে নেওয়া যায়, সেই লক্ষ্যেই নির্বাচন কমিশন কাজ করুক।

লোকসভা এবং বিধানসভা নির্বাচনের মতো দু’টি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন গোটা দেশে একসঙ্গেই হয়ে গেলে প্রশাসনিক কাজকর্মে অনেক সুবিধা হয়, মত প্রধানমন্ত্রীর। নির্বাচনী আচরণ বিধির কারণে যে ভাবে বার বার বিভিন্ন রাজ্যে প্রশাসনিক এবং উন্নয়নী কাজ আটকে যায়, তা থেকে মুক্তি পেতেই লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচন গোটা দেশে একসঙ্গে হওয়া উচিত বলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একাধিক বার মত প্রকাশ করেছেন। রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ও দুই নির্বাচন একসঙ্গে করানোর পক্ষপাতী। নীতি আয়োগ এ বার সেই লক্ষ্যেই কাজ শুরু করে দিল।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শুধু নন, রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ও লোকসভা ও বিধানসভার ভোট একসঙ্গে করার পক্ষপাতী। —ফাইল চিত্র।

লোকসভা এবং বিধানসভা নির্বাচন একসঙ্গে করানোর লক্ষ্যে এগোতে যে প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে, সেই প্রক্রিয়ার নোডাল এজেন্সি হিসেবে নির্বাচন কমিশনকে কাজ করতে বলেছে নীতি আয়োগ। সংবিধান বিশেষজ্ঞ, তাত্ত্বিক, সরকারি কর্তা এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি-সহ সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে নিয়ে একটি ‘ওয়ার্কিং গ্রুপ’ তৈরি করতে কমিশনকে পরামর্শ দিয়েছে আয়োগ। সেই ওয়ার্কিং গ্রুপ আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে নির্বাচনী সংস্কারের পথ খুঁজে বার করবে। যে রিপোর্টটিতে নীতি আয়োগ এই নির্বাচনী সংস্কারের সুপারিশ করেছে। সেই রিপোর্ট আয়োগের গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্যদের দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের হাতে ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছে নীতি আয়োগের এই সুপারিশ।

আরও পড়ুন: ভিআইপি কালচার তুলে ইপিআই চাই, মোদীর মন কি বাত

নির্বাচনী সংস্কারের যে সুপারিশ নীতি আয়োগ করছে, সেই সুপারিশের রূপায়ণের জন্য সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের সহযোগিতাও চাওয়া হয়েছে। ২০২৪ সালে লোকসভা এবং বিধানসভার নির্বাচন এক সঙ্গে করাতে হলে কয়েকটি বিধানসভার মেয়াদ অনেকটা বাড়াতে হতে পারে এবং কয়েকটির মেয়াদ বেশ কানিকটা কমাতে হতে পারে বলেও আভাস দিয়েছে নীতি আয়োগ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE