Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০২ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

‘দিল্লি ৪ গুণ অক্সিজেন চেয়েছে বলা হয়নি’

কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দিতে প্রয়োজনের তুলনায় ৪ গুণ বেশি অক্সিজেন চাওয়ার গুরুতর অভিযোগ উঠেছে দিল্লি সরকারের বিরুদ্ধে।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৭ জুন ২০২১ ০৬:২৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
এমস প্রধান রণদীপ গুলেরিয়া

এমস প্রধান রণদীপ গুলেরিয়া

Popup Close

কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দিতে প্রয়োজনের তুলনায় ৪ গুণ বেশি অক্সিজেন চাওয়ার গুরুতর অভিযোগ উঠেছে দিল্লি সরকারের বিরুদ্ধে। সুপ্রিম কোর্টের গঠন করা অডিট কমিটির এই রিপোর্ট ঘিরে গত কাল থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে দ্বন্দ্ব তুঙ্গে আম আদমি পার্টির (আপ)। যদিও অডিট কমিটির নেতৃত্বে থাকা এমস প্রধান রণদীপ গুলেরিয়া আজ বলেছেন, দিল্লি অক্সিজেনের চাহিদা ৪ গুণ বাড়িয়ে বলেছে এমনটা কোথাও বলা হয়নি। তাঁর কথায়, ‘‘এটা অন্তর্বর্তী রিপোর্ট। চূড়ান্ত রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। বিষয়টি সুপ্রিম কোর্টের বিচারাধীন।’’

শুক্রবার থেকে বিজেপি ঘনিষ্ঠ একটি সূত্রের মারফত দিল্লিতে অক্সিজেনের চাহিদা সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট সংবাদমাধ্যমে ঘুরছে। যেখান থেকেই বিতর্কের সূত্রপাত। সরকারি সূত্রের বক্তব্য, ওই রিপোর্ট সুপ্রিম কোর্টের তৈরি করা অডিট কমিটির। যদিও একে ‘ভুয়ো’ বলে দাবি করেছে আপ। উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসৌদিয়া জানান, দিল্লি সরকার এ নিয়ে অডিট কমিটির সঙ্গে কথা বলেছে। তারা জানিয়েছে, এই রিপোর্টটিতে কমিটি সম্মতি দেয়নি। একে বিজেপির অপপ্রচার বলে দাবি করেছেন তিনি।

কেন্দ্রের বক্তব্য, দ্বিতীয় তরঙ্গের সময়ে রাজধানীতে অক্সিজেনের চাহিদা কত, তা নির্ধারণ করতে ভুল উপায় বেছেছিল দিল্লি সরকার। তাই গত ৩০ এপ্রিল সুপ্রিম কোর্টে দিল্লির জন্য প্রয়োজনের তুলনায় ৪ গুণ বেশি অক্সিজেন চেয়েছিল তারা। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ওই সময়কালে দিল্লির অক্সিজেনের চাহিদা ১১৪০ মেট্রিক টন বলে দাবি করেছিল কেজরীবাল সরকার। কিন্তু চাহিদা ছিল ২৮৯ মেট্রিক টন। কেন্দ্রের দাবি, দিল্লিকে অক্সিজেন জোগান দিতে গিয়ে ১২টি রাজ্যে অক্সিজেন-ঘাটতি চরমে ছিল।

Advertisement

কেন্দ্রের সঙ্গে এই টানাপড়েনের মধ্যেই আজ কেজরীবাল বলেছেন, ‘‘অক্সিজেন নিয়ে ঝগড়া শেষ হলে একটু কাজের কথা হোক? সকলে একসঙ্গে এমন একটা ব্যবস্থা করা হোক, যাতে তৃতীয় ঢেউয়ের সময়ে কেউ অক্সিজেনের অভাবে
না পড়েন।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement