×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

অপহরণ করে নাবালিকাকে ২২ দিন ধরে গণধর্ষণ কটকে

সংবাদ সংস্থা
কটক ১৫ অক্টোবর ২০২০ ০৯:০৬
প্রতীকী চিত্র।

প্রতীকী চিত্র।

বাবা-মায়ের সঙ্গে ঝগড়া করে বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়েছিল ১৭ বছরের কিশোরী। পথে এক ব্যক্তি তাকে বাড়ি দিয়ে আসার কথা বলে অপহরণ করে নিয়ে যায় একটি পোলট্রি ফার্মে। অভিযোগ, সেখানে ওই ব্যক্তি এবং আরও এক জন ২২ দিন ধরে ধর্ষণ করে তাকে। সম্প্রতি এই ঘটনা ঘটেছে ওড়িশার কটকে। ঘটনায় এক অভিযুক্তকে পুলিশ গ্রেফতার করলেও পলাতক অপর অভিযুক্ত।

পুলিশ সূত্রে খবর, নির্যাতিতা কিশোরী জগতসিংহপুর জেলার তিরতলের বাসিন্দা। বাড়ি থেকে পালিয়ে সে চলে এসেছিল কটকের ওএমপি স্কোয়্যার বাসস্ট্যান্ডে। সেখানে এক ব্যক্তি তাকে বাড়ি দিয়ে আসবে বলে বাইকে চাপিয়ে নিয়ে যায় গতিরতপটনা গ্রামে। চাউলিয়াগঞ্জ থানার অধীনের সেই গ্রামের একটি পোলট্রি ফার্মে ২২ দিন আটকে রাখা হয় তাকে। অপহরণকারী ব্যক্তি-সহ অপর এক জন মিলে ২২ দিন ধরে তার উপর যৌন নির্যাতন চালায় বলে অভিযোগ।

ওই ফার্মে কিছু অসামাজিক কাজ হচ্ছে বলে পুলিশকে জানিয়েছিলেন স্থানীয়রা। সেই অভিযোগ পেয়ে পুলিশ অভিযান চালাতেই উদ্ধার হয় ওই কিশোরী। সেখান থেকে এক অভিযুক্তকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এই ঘটনা নিয়ে কটকের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার প্রতীক সিংহ বলেছেন, “এক অভিযুক্তকে আমরা গ্রেফতার করেছি। তার পলাতক সঙ্গীকে ধরার জন্য পুলিশের একটি দল গঠন করা হয়েছে।” অবিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির বেশ কয়েকটি ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement

ওই নির্যাতিতাকে জেলা শিশু কল্যাণ কমিটি কাছে তুলে দেওয়া হয়েছে। আপাতত তাকে একটি অনাথাশ্রমে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন: এক মাসের মধ্যেই ফের ধর্ষণ হাথরসে, এ বার ৪ বছরের শিশু

আরও পড়ুন: ভেসে যাচ্ছে মানুষ, গাড়ি, বৃষ্টিতে ভয়াল অবস্থা হায়দরাবাদের

Advertisement