Advertisement
২৩ জুলাই ২০২৪
National News

তুমুল বিক্ষোভ, কালো পতাকা, চেন্নাইয়ে রাস্তা ছেড়ে উড়ে গেলেন মোদী

চেন্নাই বিমানবন্দরে তুমুল বিক্ষোভ। বৃহস্পতিবার সকালে।

চেন্নাই বিমানবন্দরে তুমুল বিক্ষোভ। বৃহস্পতিবার সকালে।

সংবাদ সংস্থা
চেন্নাই শেষ আপডেট: ১২ এপ্রিল ২০১৮ ১৫:৪৩
Share: Save:

অনশন করে সরকারি ও দলীয় কাজ করার দিনে চেন্নাইয়ে গিয়ে তুমুল বিক্ষোভের মুখে পড়লেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কাবেরী জলবণ্টনের ইস্যুতে।

বৃহস্পতিবার সকালে চেন্নাই বিমানবন্দরে নামার পরেই বিক্ষোভের মুখে পড়েন প্রধানমন্ত্রী। বিমানবন্দরের অ্যাপ্রোচ রোড আন্না সালাইয়ে দলে দলে বিক্ষোভকারীরা জড়ো হয়ে তাঁকে কালো পতাকা দেখান। পতাকার উপর লেখা ছিল ‘গো ব্যাক মোদী’ (মোদী ফিরে যান)। ওড়ানো হয় কালো বেলুন। বিমানবন্দর চত্বরে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বেষ্টনীকে কার্যত অগ্রাহ্য করে। তুমুল বিক্ষোভের জেরে বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে সড়কপথে তাঁর গন্তব্যে পৌঁছতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী। বিমানবন্দর থেকেই তাঁকে চপারে চেপে পৌঁছতে হয় তাঁর গন্তব্যে। চেন্নাই বিমানবন্দরে এ দিনের বিক্ষোভের ছবি কয়েক লহমায় ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বিরোধীদের সংসদীয় কাজকর্ম পণ্ড করার প্রতিবাদে এ দিন দলের সব সাংসদের মতো প্রধানমন্ত্রীও অনশন করছেন। মঙ্গলবারই বিজেপি-র তরফে ঘোষণা করা হয়েছিল, অনশন করলেও তাঁর সব সরকারি ও দলীয় কাজকর্ম করবেন এ দিন প্রধানমন্ত্রী।

এ দিন প্রধানমন্ত্রী মোদীর বেশ কয়েকটি কর্মসূচি ছিল চেন্নাইয়ে। বিমানবন্দর থেকে তাঁর প্রথম গন্তব্য ছিল তিরুভিরান্তাইয়ে। বিক্ষোভের জেরে চপারে চেপেই সেখানে পৌঁছন প্রধানমন্ত্রী। উদ্বোধন করেন ‘ডেফএক্সপো’র। প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম নির্মাণে ভারত যে বিশ্বে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি দেশ হয়ে উঠেছে, তা বোঝাতেই ‘ডেফএক্সপো’র আয়োজন। চেন্নাই বিমানবন্দরে এ দিন প্রধানমন্ত্রীর জন্য রাখা ছিল আলাদা একটি বিমানও, তিনি যদি সেখান থেকে প্রথমে মাদ্রাজ আইআইটিতে যেতে চান, সে জন্য। ওই এলাকাতেই আদিয়ার ক্যানসার ইনস্টিটিউটের একটি অনুষ্ঠানে যাওয়ারও কথা ছিল প্রধানমন্ত্রীর। কিন্তু তুমুল বিক্ষোভের জেরে চপারে চেপে প্রথমে তিরুভিড়ান্তাইয়ে যান মোদী।

আরও পড়ুন- মোদী-ভূমেই জমি হারাচ্ছে বিজেপি

আরও পড়ুন- ন্যানো নিয়েও মোদীকে খোঁচা দিলেন রাহুল

কাবেরি জলবণ্টন বিরোধ মেটাতে কেন্দ্রীয় সরকার যে এখনও কাবেরি ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট বোর্ড গঠন করতে পারেনি, তার প্রতিবাদে এ দিন সকাল থেকেই বিরোধী দল ডিএমকে’র ডাকে কালো পতাকা ও কালো বেলুন নিয়ে বিক্ষোভে সামিল হন হাজার হাজার মানুষ। সেই বিক্ষোভের নেতৃত্ব দিতে দেখা যায় ডিএমকে নেতা এম কে স্টালিনকে। ছিলেন তামিল চলচ্চিত্রের বহু তারকা ও বিশিষ্ট রাজনীতিকও। চলচ্চিত্র প্রয়োজক ভারতীরাজা বিক্ষোভকারীদের যে দলটির নেতৃত্বে ছিলেন, তার ২০০ জনকে পুলিশ আটক করে। চেন্নাই বিমানবন্দর চত্বরে যাঁরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন, তাঁদের নেতৃত্বে ছিলেন দুই চলচ্চিত্র পরিচালক ভেত্রিমারান ও আমির। চেন্নাইয়ের লিটল মাউন্ট এলাকায় এ দিনের বিক্ষোভের নেতৃত্বে ছিলেন এমডিএমকে নেতা ভাইকো।

বিক্ষোভের হাত থেকে বাঁচাতে মাদ্রাজ আইআইটি থেকে এ দিন আলাদা একটি পথে আঁটোসাঁটো নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে নিয়ে যাওয়া হয় পাশের আদিয়ার ক্যানসার ইনস্টিটিউট চত্বরে।

বিমানবন্দর থেকে সড়কপথে না গিয়ে চপারে চেপে তিরুভিরান্তাইয়ে যাওয়ায় এ দিন প্রধানমন্ত্রীকে ‘কাপুরুষ’ বলেন এমডিএমকে নেতা ভাইকো।

কাবেরি জলবণ্টন বিরোধ নিয়ে বিক্ষোভের জেরে আইপিএলের ৬টি ম্যাচ ইতিমধ্যেই বাতিল হয়েছে চেন্নাইয়ে।

কাবেরির জল নিরপেক্ষ ভাবে তামিলনাড়ু ও কর্নাটকের মধ্যে বিলিবণ্টনের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের সংশ্লিষ্ট বোর্ড গঠনে ব্যর্থতার প্রেক্ষিতে গত ২৯ মার্চ থেকেই চলছে এই বিক্ষোভ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE