Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০২ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

‘মোদীরাজ’ শেষ করার ষড়যন্ত্রে যুক্ত বিদ্বজ্জনরা, দাবি পুলিশের

এডিজির দাবি, গত বছরের ৩০ জুন এই রোনা উইলসনের সঙ্গে মাও নেতা সুরেন্দ্র গ্যাডলিং ওরফে প্রকাশের কথোপকথনের একটি সূত্র পায় পুলিশ। ওই কথোপকথন ‘

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ৩১ অগস্ট ২০১৮ ১৮:৪৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
সাংবাদিক বৈঠকে মহারাষ্ট্র পুলিশের এডিজি পরমবীর সিংহ।

সাংবাদিক বৈঠকে মহারাষ্ট্র পুলিশের এডিজি পরমবীর সিংহ।

Popup Close

রাজীব গাঁধী হত্যার মতো ঘটনা ঘটিয়ে ‘মোদীরাজ’ শেষ করে দেওয়ার চক্রান্ত। বিদ্বজ্জনদের গ্রেফতারির পক্ষে সাফাই দিতে গিয়ে এমনই বিস্ফোরক দাবি করল মহারাষ্ট্র পুলিশ। শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠকে মহারাষ্ট্র পুলিশের অতিরিক্ত এডিজি দাবি করেন, ধৃত বিদ্বজ্জনদের বিরুদ্ধে মাও যোগের স্পষ্ট প্রমাণ মিলেছে। মাওবাদীদের যোগসাজশে ‘রকেট লঞ্চার’ হামলার মতো বড় কোনও নাশকতার স্পষ্ট প্রমাণ মিলেছে বলেও দাবি এডিজির।

বিদ্বজ্জনদের গ্রেফতারি নিয়ে দেশ জুড়ে প্রবল চাপের মুখে শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠক করেন ডিআইজি পরমবীর সিংহ। তিনি জানান, ভীমা কোরেগাঁও কাণ্ডে এ বছরের জুনে পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হয়। তাঁদের মধ্যে ছিলেন রোনা উইলসন। তিনি ‘কবীর কলা মঞ্চ’-এর সদস্য। আবার সোমবার যাঁদের ধরা হয়েছে, তারাও সকলে এই মঞ্চের সদস্য।

এডিজির দাবি, গত বছরের ৩০ জুন এই রোনা উইলসনের সঙ্গে মাও নেতা সুরেন্দ্র গ্যাডলিং ওরফে প্রকাশের কথোপকথনের একটি সূত্র পায় পুলিশ। ওই কথোপকথন ‘প্রটেক্টেড’ বা সুরক্ষিত হলেও পুলিশ তার পাসওয়ার্ড উদ্ধার করে। সেই সূত্রেই ইঙ্গিত মেলে, নাশকতা ঘটিয়ে মোদী সরকারকে ফেলে দিয়ে চায় মাওবাদীরা।

Advertisement

আরও পড়ুন: ব্যর্থতা ঢাকতেই দেশের নজর ঘোরানোর ছক মোদীর

সাংবাদিক বৈঠকেই এডিজি একটি চিঠি দেখিয়ে দাবি করেন, ‘‘আরও একটা রাজীব গাঁধীর মতো ঘটনা ঘটিয়ে মোদীরাজ শেষ করার কথা ওই চিঠিতেই লেখা ছিল। চিঠিতে গ্রেনেড লঞ্চারের জন্য আট কোটি টাকার দরকার বলেও উল্লেখ করা হয়েছিল।’’ হাজার হাজার মাও প্রচার পুস্তিকা, ইমেল, চিঠি অন্যান্য নথিপত্র উদ্ধার হয়েছে। রাজীব গাঁধীর মতো ঘটনা বলতে ‘রাজীব হত্যার’ প্রসঙ্গই উল্লেখ করতে চেয়েছেন এডিজি। তিনি বলেন, পুলিশের হাতে এমন বহু প্রমাণ রয়েছে, যাতে প্রমাণ করা যাবে ধৃতদের সঙ্গে মাওবাদীদের যোগ রয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘বাহুবলী’ শিবরাজ, ‘বল্লালদেব’ জ্যোতিরাদিত্য, ভিডিয়ো নিয়ে উত্তাল মধ্যপ্রদেশ

মাও যোগ এবং দলিতদের বিজয় দিবসে ভীমা কোরেগাঁওয়ে গন্ডগোলে মদত দেওয়ার অভিযোগে সোমবার দেশের বিভিন্ন শহরে অভিযান চালায় পুণে পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় ভারাভারা রাও, গৌতম নওলখা, সুধা ভরদ্বাজ, অরুণ ফেরেরা ও ভার্নন গঞ্জালভেসকে। এই নিয়ে দেশ জুড়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে সরকার। তার উপর বুধবার সুপ্রিম কোর্টও বুধবার নির্দেশ দেয়, পুলিশি হেফাজত নয়, গৃহবন্দি রাখতে হবে ধৃত বিদ্বজ্জনদের। এর পর আরও সরব হন সমাজকর্মী, লেখক-কবি-সাহিত্যিক বিদ্বজ্জনরা।

(ভারতের রাজনীতি, ভারতের অর্থনীতি- সব গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদের দেশ বিভাগে ক্লিক করুন।)

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement