Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪

ফের প্যারোল, ৩০ দিনের জন্য বাড়ি ফিরছেন সঞ্জয় দত্ত

প্রশাসনের মঞ্জুর করা ৩০ দিনের প্যারোলে বাড়ি ফিরছেন সঞ্জয় দত্ত। মেয়ের অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে এই প্যারোলের জন্য তিনি আদালতের কাছে আবেদন করেছিলেন গত জুন মাসে। দু’ দিন আগে পুণের ডিভিশনাল কমিশনার তাঁর এই আবেদন মঞ্জুর করেছেন। সব কিছু ঠিক থাকলে আর দিন দুয়েকের মধ্যেই বাড়ি ফিরবেন সঞ্জয়।

ছবি: গেটি ইমেজেস।

ছবি: গেটি ইমেজেস।

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ২৬ অগস্ট ২০১৫ ১১:১২
Share: Save:

প্রশাসনের মঞ্জুর করা ৩০ দিনের প্যারোলে বাড়ি ফিরছেন সঞ্জয় দত্ত। মেয়ের অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে এই প্যারোলের জন্য তিনি আদালতের কাছে আবেদন করেছিলেন গত জুন মাসে। দু’ দিন আগে পুণের ডিভিশনাল কমিশনার তাঁর এই আবেদন মঞ্জুর করেছেন। সব কিছু ঠিক থাকলে আর দিন দুয়েকের মধ্যেই বাড়ি ফিরবেন সঞ্জয়।

৩০ দিনের এই প্যারোল আরও ৬০ দিন বাড়ানো হতে পারে বলে সূত্রের খবর। সে ক্ষেত্রে মোট তিন মাসের জন্য ‘ছাড়পত্র’ পেতে পারেন বলিউডের ‘খলনায়ক’।

পরিবারের পক্ষে খুশির খবর হলেও সঞ্জয় দত্তর এই সাময়িক মুক্তি নিয়ে বিতর্ক কিন্তু থামছে না। অভিযোগ উঠছে, সেলিব্রিটি বলেই বার বার প্যারোলে ছাড় পাচ্ছেন তিনি। ২০১৩-য় প্রথমবার জেলে যাওয়ার পর থেকেই একাধিকবার ছাড়পত্র পেয়েছেন সঞ্জয়। ওই বছরের অক্টোবরে প্রথম প্যারোলে মুক্তি পান তিনি। সে বার অবশ্য সময়সীমা বাড়ানো হয়েছিল মাত্র ১৪ দিন। তার পর ২০১৪-র জানুয়ারি মাসে ৩০ দিনের প্যারোলে মুক্তি পান সঞ্জয়, যা পরে আরও ৬০ দিন বাড়ানো হয়। ২০১৪-র ডিসেম্বরেই ফের প্যারোলে মুক্তি মেলায় সঞ্জয় দত্তর কারাবাস নিয়ে বিতর্ক দানা বাঁধতে থাকে।

মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র দফতর সূত্রে খবর, কোনও কারণে কয়েদি বা তার পরিবারের কেউ গুরুতর ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে তবেই একমাত্র প্যারোলে মুক্তি পাওয়া যায়। ৩০ দিনের জন্য পাওয়া এই প্যারোল বছরে দু’ বার করে আরও ৩০ দিন বাড়ানো যেতে পারে, তবে তার চেয়ে বেশি কোনও ভাবেই নয়। তাই সঞ্জয় দত্তর দীর্ঘমেয়াদি প্যারোল নিয়ে সঙ্গত কারণেই প্রশ্ন উঠছে।

স্বরাষ্ট্র দফতরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি বিজয় সৎবীর সিংহ এ প্রসঙ্গে বলেন, “আমরা খবর পেয়েছি পুণের ডিভিশনাল কমিশনার এই প্যারোল মঞ্জুর করেছেন। সব আইনি প্রথা শেষ হলে সঞ্জয় বাড়ি ফিরতে পারবেন।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE