Advertisement
১৫ জুলাই ২০২৪
Ayodhya Ram Temple

রামমন্দিরে ভিড়ের চাপে অসুস্থ বেশ কয়েক জন, বিশৃঙ্খলা চরমে, বন্ধ করে দিতে হল মন্দিরের দরজা

মঙ্গলবার সকালে রামমন্দিরে ভিড় এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে, পদপিষ্ট হওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়। ভিড়ের চাপে বেশ কয়েক জন অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে জানা গিয়েছে।

রামমন্দির দর্শনে ভিড়, ঠেলাঠেলি, বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি। ছবি: রয়টার্স।

রামমন্দির দর্শনে ভিড়, ঠেলাঠেলি, বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি। ছবি: রয়টার্স।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০২৪ ১৩:১৮
Share: Save:

উদ্বোধনের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে অযোধ্যায় রামমন্দিরে দর্শনার্থীদের ভিড় উপচে পড়েছে। পরিস্থিতি সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে রাজ্য এবং জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার সকালে সেই ভিড় এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে, পদপিষ্ট হওয়ার মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। ভিড়ের চাপে বেশ কয়েক জন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সামলাতে শেষমেশ মন্দিরের দরজা বন্ধ করে দেন রামমন্দির কর্তৃপক্ষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নামানো হয়েছে কমব্যাট ফোর্স। ঢুকতে না পেরে অনেকেই মন্দিরের দরজার সামনে বসে পড়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

রামালালার নতুন মূর্তিতে ‘প্রাণপ্রতিষ্ঠা’ হওয়ার পর থেকেই রামমন্দিরের গেটে শয়ে শয়ে পুণ্যার্থী হাজির হন। সময় যত গড়িয়েছে সেই সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে। মঙ্গলবার থেকে সাধারণ মানুষের জন্য রামমন্দির খুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছিল। তাই দীর্ঘ প্রতীক্ষিত সেই রামমন্দির দর্শনে দেশের নানা প্রান্ত থেকে হাজির হয়েছেন হাজর হাজার পুণ্যার্থী।

সোমবার মাঝরাত থেকেই মন্দিরের গেটের সামনে লাইন পড়ে যায়। ভিড় সামলাতে আগে থেকে ব্যারিকেড করা হয়েছিল মন্দিরের সামনের অংশ। কিন্তু ভোরের আলো ফুটতেই ভিড়ের চাপে সেই ব্যারিকেড ভেঙে যায়। নিরাপত্তার বেষ্টনী ভেঙে উৎসুক জনতার ভিড় মন্দিরে ঢোকার চেষ্টা করতেই বিপত্তি বাধে। পদপিষ্টের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। ভিড় নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ এবং নিরাপত্তাবাহিনী হিমশিম খেতে হয়। ভিড় ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টাও হয়।

 ব্যারিকেড গলে রামমন্দিরে ঢোকার চেষ্টা এক মহিলা পুণ্যার্থীর। ছবি: রয়টার্স।

ব্যারিকেড গলে রামমন্দিরে ঢোকার চেষ্টা এক মহিলা পুণ্যার্থীর। ছবি: রয়টার্স।

রামলালার নতুন মূর্তি এবং রামমন্দির দর্শনে কয়েক লক্ষ পুণ্যার্থী গত কয়েক দিন ধরেই অযোধ্যায় ভিড় জমাচ্ছিলেন। মন্দির দর্শনে ভিড়ের কারণে যে বিশৃঙ্খলা তৈরি হতে পারে, তার জন্য প্রস্তুতি রেখেছিল রাজ্য প্রশাসন। কিন্তু তার পরেও পরিস্থিতি যে ভাবে হাতের বাইরে চলে গিয়েছে, তা সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। মন্দির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিলেন, দু’ভাগে মন্দির দর্শনের সুযোগ পাবেন পুণ্যার্থীরা। রামলালার মূর্তি এবং মন্দির দর্শনে প্রথম দফায় সকাল ৭টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত দরজা খোলা রাখা হবে। দ্বিতীয় দফায় দুপুর ২টো থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত।

উত্তরপ্রদেশে হাড়কাঁপানো ঠান্ডা চলছে। শৈত্যপ্রবাহের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই। কিন্তু সেই ঠান্ডাকে উপেক্ষা করেই মন্দির দর্শনে সোমবার রাত ৩টে থেকে লাইনে দাঁড়ান পুণ্যার্থীরা। প্রথম দফাতে দর্শন সেরে ফেলতে ভিড়ের পরিমাণ আরও বাড়তে থাকে। নির্ধারিত সময়ে সেই জনজোয়ার আছড়ে পড়ে মন্দিরের গেটের সামনে।

২২ জানুয়ারি উদ্বোধন হয়েছে রামমন্দির। ওই দিন ‘প্রাণপ্রতিষ্ঠা’ হয় রামলালার নতুন মূর্তির। রামমন্দির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রামমন্দিরের উদ্বোধন নিয়ে গত এক মাস ধরেই উত্তাপ বাড়ছিল অযোধ্যায়। উৎসাহ বাড়ছিল গোটা দেশে। সেই ‘শুভ মুহূর্ত’-এর অপেক্ষায় মুখিয়ে ছিলেন দেশবাসী। উদ্বোধনের দিন দেশ-বিদেশ থেকে খ্যাতনামী ব্যক্তিত্বরা হাজির হয়েছিলেন ওই সময়ের সাক্ষী হতে। রামমন্দিরের এই উদ্বোধন অনুষ্ঠানও ছিল চোখে পড়ার মতো।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Ram Mandir Inauguration
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE