×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৩ মে ২০২১ ই-পেপার

মানবিকতার কারণেই সাহায্য মোদীকে, সুষমার পাশে থেকে জানালো দল

সংবাদ সংস্থা
১৪ জুন ২০১৫ ১৮:৫৭

ললিত মোদী বিতর্কে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সমর্থনেই মুখ খুলল বিজেপি। মোদীকে ভিসা দেওয়া নিয়ে বিরোধীদের তীব্র সমালোচনা সত্ত্বেও বিজেপি-র কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের মতে সুষমা এ ক্ষেত্রে কোনও ভুল কাজ করেননি।

সুষমার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ইডি-র কালো তালিকাভুক্ত প্রাক্তন আইপিএল কর্তা মোদীকে ব্রিটিশ ভিসা দিতে নিজের প্রভাব খাটিয়েছেন তিনি। মোদীকে দেশ ছাড়তে প্রয়োজনীয় নথিপত্র তৈরিতে সাহায্য করা ছাড়াও সুষমা ব্রিটিশ এমপি কিথ ভাজের উপর চাপ সৃষ্টিও করেন বলে সে দেশের সংবাদমাধ্যামে প্রকাশিত হয়েছে। নথির বিষয়টি স্বীকার করলেও সুষমার পাল্টা দাবি, স্ত্রীর অসুস্থতার জন্যই মোদীর দেশ ছাড়া জরুরি হয়ে পড়েছিল। মোদী নাকি তাঁকে জানিয়েছিলেন, তাঁর ক্যান্সার-আক্রান্ত স্ত্রীর অস্ত্রোপচারের জন্যই পর্তুগালে যাওয়া জরুরি হয়ে পড়েছিল। ফলে মানবিক কারণেই মোদীর ভিসা সংক্রান্ত বিষয়ে এগিয়েছিলেন তিনি।

২০১০ সালে আইপিএল-এ স্পট ফিক্সিং-কাণ্ডে নাম জড়িয়েছিল টুর্নামেন্টের তৎকালীন চেয়ারম্যান মোদীর। আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিসও জারি করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। কিন্তু সে সময় দেশ ছেড়ে ব্রিটেনে চলে যান তিনি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে অভিযোগ, সুষমার সুপারিশেই ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি সে দেশের অভিবাসন দফতরের উপর চাপ সৃষ্টি করেন। এর পর মোদীর ভিসা মঞ্জুর হয়। ললিত মোদী অবশ্য সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

Advertisement

এ দিন সুষমা বলেন, “নিয়ম-নীতি মেনেই ব্রিটিশ হাই কমিশনারকে এ বিষয়ে পদক্ষেপ করতে বলা হয়েছিল।”

গোটা ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়েছে। বিদেশমন্ত্রী ইস্তফার দাবিতে সরব হয়েছে রাজনীতিকদের একাংশ। কিন্তু, এ নিয়ে সুষমার পাশে দাঁড়িয়ে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বলেন, “নিয়মের মধ্যে থেকেই ললিত মোদীকে সাহায্য করেছিলেন সুষমা।” স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ বলেন, “বিদেশমন্ত্রীর কাজে কোনও ভুল হয়নি। এ বিষয়ে সরকারও তাঁর পাশে আছে।”

Advertisement