Advertisement
২৮ নভেম্বর ২০২২
National News

ডাস্টার দিয়ে পিটিয়ে ক্লাসে ছাত্রের হাত ভাঙলেন শিক্ষিকা

স্টেপিং স্টোন ইন্টারমিডিয়েট স্কুলের সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে বছর চোদ্দর অভিনব। স্কুল সূত্রে খবর, ওই দিন একটা পিরিয়ড শেষ হওয়ার পর ক্লাসের মধ্যেই চার জন সহপাঠীর সঙ্গে গল্প করছিল অভিনব। সেই সময় ক্লাসে যারা কথা বলছিল তাদের নাম লিখে রাখছিল ক্লাস মনিটরের দায়িত্বে থাকা শ্রেয়াংস শ্রীবাস্তব নামে এক পড়ুয়া। অভিনবের নামও ওঠে সেই তালিকায়।

ডাস্টার দিয়ে মেরে অভিনবের হাত ভেঙে দিয়েছেন শিক্ষিকা। ছবি:ইউটিউবের সৌজন্যে।

ডাস্টার দিয়ে মেরে অভিনবের হাত ভেঙে দিয়েছেন শিক্ষিকা। ছবি:ইউটিউবের সৌজন্যে।

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১২:৫০
Share: Save:

ক্লাসে সহপাঠীর সঙ্গে কথা বলায় ছাত্রকে ডাস্টার দিয়ে মেরে হাত ভেঙে দিলেন শিক্ষিকা। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার উত্তরপ্রদেশের কানপুরে। অভিযুক্ত শিক্ষিকাকে স্কুল থেকে বরখাস্ত করেছেন প্রিন্সিপাল।

Advertisement

আরও পড়ুন: গুজবে হুড়োহুড়ি, মুম্বইয়ে পদপিষ্ট হয়ে মৃত অন্তত ২২

স্টেপিং স্টোন ইন্টারমিডিয়েট স্কুলের সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে বছর চোদ্দর অভিনব। স্কুল সূত্রে খবর, ওই দিন একটা পিরিয়ড শেষ হওয়ার পর ক্লাসের মধ্যেই চার জন সহপাঠীর সঙ্গে গল্প করছিল অভিনব। সেই সময় ক্লাসে যারা কথা বলছিল তাদের নাম লিখে রাখছিল ক্লাস মনিটরের দায়িত্বে থাকা শ্রেয়াংস শ্রীবাস্তব নামে এক পড়ুয়া। অভিনবের নামও ওঠে সেই তালিকায়। পরে শিক্ষিকা ক্লাসে এলে ওই নামগুলো দেখায় শ্রেয়াংস। নীতি বিজ্ঞানের শিক্ষিকা নিধি অভিনবের নাম দেখেই তাকে মারধর করতে শুরু করেন। অভিনব জানিয়েছে, শিক্ষিকার হাতে কাঠের ডাস্টার ছিল। তাই দিয়েই তিনি তার হাতে বার বার মারতে থাকেন। অভিনব তাঁকে জানায় যে, তার হাত খুব দুর্বল। কিন্তু শিক্ষিকা সে কথা শোনেননি। বার বার মারের ফলে অভিনবের হাত ভেঙে যায়। স্কুল গার্ডের থেকে ফোন চেয়ে বাবাকে সব জানায় অভিনব।

আরও পড়ুন: মহিলার হাত কামড়ে চড় খেল বাঘ

Advertisement

অভিনবের বাবা অনুপ কুমার মিশ্রের কথায়, শিক্ষিকার অমানুষিক আচরণে তাঁর ছেলের হাত ভেঙে গিয়েছে। স্কুল প্রিন্সিপাল কৃষ্ণা ওয়াধার কাছে ওই শিক্ষিকার নামে অভিযোগ জানান তিনি। প্রিন্সিপাল জানিয়েছেন, এই ঘটনা নিয়ে স্কুলে বিক্ষোভ হতে পারে। তাই অভিযুক্ত শিক্ষিকাকে বরখাস্ত করেছেন তিনি। তাঁর কথায়, নিজের উপর ওঠা সব অভিযোগকেই অস্বীকার করেছিলেন ওই শিক্ষিকা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.