Advertisement
১০ ডিসেম্বর ২০২৩

১০ নয়, ২০ বছরের জেল ধর্ষক ‘বাবা’ রাম রহিমের

ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হয়েছে গোটা রোহতক। সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতের সেই বিচারক জগদীপ সিংহকে ইতিমধ্যেই বিশেষ নিরাপত্তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। হাঙ্গামা ঠেকাতে ইতিমধ্যেই আটক করা হয়েছে প্রায় হাজার জনকে।

১০ বছরের কারাদণ্ড রাম রহিমের।

১০ বছরের কারাদণ্ড রাম রহিমের।

সংবাদ সংস্থা
রোহতক শেষ আপডেট: ২৮ অগস্ট ২০১৭ ০৮:৪৯
Share: Save:

• প্রথমে জানা যায় ১০ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে তাঁর। পরে সিবিআইয়ের মুখপাত্র জানান, দু’টি মামলাতেই ১০ বছর করে মোট ২০ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে তাঁর।

• আদালত কক্ষ ছাড়তে চাইলেন না রাম রহিম। জোরজবরদস্তি তাঁকে বাইরে বার করা হল।

• সূত্রের খবর, আরও শাস্তি চেয়ে দুই অভিযোগকারিনীও উচ্চ আদালতে যাবেন।

• উচ্চ আদালতে এই রায়ের বিরুদ্ধে আবেদন করবে ডেরা, জানালেন আইনজীবীরা।

• জরুরি ভিত্তিতে বৈঠক ডাকলেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীও।

• চণ্ডীগড়ে নিজের বাসভবনে রাজ্যের ডিজিপি এবং স্বরাষ্ট্রসচিবের সঙ্গে জরুরি ভিত্তিতে বৈঠক ডাকলেন হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী।

• রাম রহিমের আইনজীবী জেলে তাঁর সঙ্গে কিছু ওষুধ নিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করেন বিচারকের কাছে।

• রাম রহিম সিংহকে মেডিক্যাল চেকআপের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এরপর তাঁকে জেলের পোশাক দেওয়া হবে এবং জেলে আলাদা ঘরে রাখা হবে।

• ডেরা চেয়ারপার্সন বিপাস্যনা ইনসান সমস্ত অনুগামীদের শান্তি বজায় রাখতে বলেন।

• দুই নির্যাতিতাকে ১৪ লক্ষ টাকা করে জরিমানা দিতে হবে তাঁকে।

• বাবা রাম রহিমের ১০ বছরের কারাদণ্ড।

• বিকেল ৩টে ২৫ মিনিটে চূড়ান্ত সাজা ঘোষণা।

• বিরলের মধ্যে বিরলতম ঘটনা বলল সিবিআই। সর্বোচ্চ সাজা চাইল।।

• হরিয়ানার সিরসায় হিংসা। দুটো গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিল ডেরা সমর্খকেরা।

• রাম রহিমের সমাজ সেবা করেন তাই তাঁকে কম সাজা দেওয়ার অনুরোধ করলেন বিচারক।

• বক্তব্য শোন শেষ। বেলা ৩টে ১৫ মিনিট নাগাদ রায় দিতে শুরু করলেন বিচারক।

কান্নায় ভেঙে পড়লেন রাম রহিম। হাত জোড় করে বিচারকের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা।

• রাম রহিম একজন সমাজসেবক। জনগণের কল্যাণের জন্য তিনি কাজ করেন। এ সব মাথায় রেখেই বিচারের অনুরোধ করেন রাম রহিমের আইনজীবী।

• দু’পক্ষের আইনজীবীকেই ১০ মিনিট করে বলার সময় দিলেন বিচারক জগদীপ সিংহ।

• জেল থেকে ৮০০ মিটার দূর পর্যন্ত এলাকা ধুধু করছে। আখের খেত আর ওবিভ্যান ছাড়া আর কিছু নেই।

• দুপুর আড়াইটে আদালতে সাজা ঘোষণার প্রক্রিয়া শুরু হল।

• দুপুর সওয়া দুটো নাগাদ জেলে পৌঁছলেন বিচারক জগদীপ সিংহ।

• দুপুর পৌনে দুটো নাগাদ কপ্টারে জেলে প্রবেশ করলেন দু’পক্ষের আইনজীবীরা। আর কিছু ক্ষণের মধ্যেই সাজা ঘোষণা হতে চলেছে।

• জেলের বাইরের নিরাপত্তায় প্রায় ৩ হাজার আধা সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

• জেলের দিকে যে সমস্ত রাস্তা গিয়েছে, তার সব ক’টাই আটকে দেওয়া হয়েছে।

• রোহতকের ডেপুটি কমিশনার জানিয়েছেন, কেউ গোলমাল বাধানোর চেষ্টা করলে এক বার সতর্ক করা হবে, না শুনলেই গুলি।

• হরিয়ানা ঘেঁষা পঞ্জাব এবং গাজিয়াবাদ ও নয়ডাতেও স্কুল, কলেজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

• হরিয়ানার সমস্ত স্কুল, কলেজ বন্ধ।

• দুপুর আড়াইটে নাগাদ সাজা ঘোষণা করবেন বিচারক।

• দুপুর ২টো নাগাদ রোহতকের জেলে আসবেন বিচারক।

ধর্ষণ মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে রোহতকের সুনারিয়ার জেলে বন্দি ডেরা সচ্চা সৌদার প্রধান, গুরমিত রাম রহিম সিংহ। সোমবার দুপুরের মধ্যেই তাঁর শাস্তির মেয়াদ শোনাবেন বিচারক। শুক্রবার সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতের রায়ে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন রাম রহিম। রায় বের হতেই ডেরা সমর্থকদের লাগামছাড়া তাণ্ডবে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ৩৮ জনের। ডেরা সমর্থকদের না ঠেকাতে পারায় আঙুল উঠেছে প্রশাসনের দিকে। সে দিনের কথা মাথায় রেখে আর কোনও রকম ঝুঁকি নিতে চাইছে না প্রশাসন। নিরাপত্তার স্বার্থে জেলের মধ্যেই উড়িয়ে নিয়ে আসা হচ্ছে বিচারক-সহ গোটা আদালত। ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হয়েছে গোটা রোহতক। সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতের সেই বিচারক জগদীপ সিংহকে ইতিমধ্যেই বিশেষ নিরাপত্তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। হাঙ্গামা ঠেকাতে ইতিমধ্যেই আটক করা হয়েছে প্রায় হাজার জনকে। ডেরার সদর দফতর থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ৩০ হাজার ভক্তকে। জেলায় মোতায়েন করা হয়েছে ২৮ কোম্পানি আধা সামরিক বাহিনী।

আরও পড়ুন: পঞ্চকুলায় তাণ্ডবের ছক রাম রহিমের পরিকল্পিত

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE