Advertisement
১৪ এপ্রিল ২০২৪
Congress-TMC

খলিস্তানি-মন্তব্যের নিন্দায় একসুর কংগ্রেস ও তৃণমূল

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গত কাল খলিস্তানি-মন্তব্য সংক্রান্ত যে ভিডিয়োটি তাঁর এক্স হ্যান্ডলে পোস্ট করেন, সেটিকে কাজে লাগান রাহুলও।

congress and TMC

—প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ০৭:৫৭
Share: Save:

বিজেপি নেতৃত্বের বিরুদ্ধে কর্তব্যরত এক আইপিএস অফিসারকে ‘খলিস্তানি’ বলার অভিযোগ ওঠার পরে ঘটনাটিকে ঘিরে বিরোধী মঞ্চ ‘ইন্ডিয়া’-র মধ্যে ঐক্যের ছবি তৈরি হল। পশ্চিমবঙ্গে কংগ্রেস এবং তৃণমূলের সম্পর্ক সংঘাতপূর্ণ। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর ধারাবাহিক আক্রমণের পরে গত বারের জেতা দু’টি লোকসভা আসনও তাঁদের ছাড়তে চায়নি তৃণমূল। কিন্তু ‘খলিস্তানি’ মন্তব্যের জেরে রাহুল গান্ধীর এক্স হ্যান্ডলে করা পোস্টকে ফের পোস্ট করতে দেখা গেল তৃণমূলকে। শুধু রাহুলের মন্তব্যই নয়, কংগ্রেসেরও পোস্টকেও রি-পোস্ট করা হয়েছে তৃণমূলের সরকারি হ্যান্ডল থেকে।

রাজনৈতিক শিবিরের বক্তব্য, এমন ঘটনা সাম্প্রতিক অতীতে একেবারেই দেখা যায়নি। তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্বের বক্তব্য, ‘‘শিখ সম্প্রদায়ের বৃহত্তর স্বার্থের কথা বিবেচনা করে আমরা সবাই একজোট হয়ে বিজেপির এই মন্তব্যের ঘোর নিন্দা করছি। সব কিছু সঙ্কীর্ণ রাজনীতির বিষয় নয়।’’ তৃণমূল শিবির মনে করাচ্ছে, রাজ্যে কংগ্রেসের সঙ্গে আসন সমঝোতা হয়নি বলে যদি কেউ ধরে নেন ‘ইন্ডিয়া’ মঞ্চ ভেঙে গিয়েছে, তা ঠিক নয়। এই ঘটনাই তার প্রমাণ।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গত কাল খলিস্তানি-মন্তব্য সংক্রান্ত যে ভিডিয়োটি তাঁর এক্স হ্যান্ডলে পোস্ট করেন, সেটিকে কাজে লাগান রাহুলও। তৃণমূলের রাজ্যসভার নেতা ডেরেক ও’ব্রায়েন মমতার পোস্টটিকে তুলে ধরে অন্যদের সঙ্গে ট্যাগ করেন পঞ্জাবের কংগ্রেস নেতা প্রতাপ সিংহ বাজওয়াকেও। প্রতাপ সেই ভিডিয়ো-সহ লেখেন, ‘ভাষায় প্রকাশ করা যায় না, এত নিন্দনীয় ঘটনা।’ কড়া পদক্ষেপও দাবি করেন তিনি।

ডেরেক পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত সিংহ মানকেও ট্যাগ করেছিলেন তাঁর পোস্টে। আজ মান তাঁর এক্স হ্যান্ডলে লেখেন, ‘বাংলায় এক জন শিখ আইপিএস অফিসারকে বিজেপি নেতার দেশদ্রোহী বলাটা অত্যন্ত জঘন্য কাজ। বোধ হয় বিজেপি জানে না, দেশকে স্বাধীন করার জন্য পঞ্জাবিরা সবচেয়ে বেশি আত্মত্যাগ করেছিলেন। দেশকে স্বাধীন রাখার ক্ষেত্রেও তাঁদের অবদান রয়েছে। বিজেপির ক্ষমা চাওয়া উচিত।’ আসন্ন লোকসভা ভোটে প্রাক্তন এনডিএ শরিক শিরোমণি অকালি দলকে ফের কাছে টানতে তৎপর হয়েছিল বিজেপি। সেই অকালির প্রধান সুখবীর সিংহ বাদলও ভিডিয়োটি পোস্ট করে এমন আক্রমণের তীব্র নিন্দা করেছেন। পশ্চিমবঙ্গের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে পঞ্জাব পুলিশ। আপ-এর রাজ্য শাখাও বিজেপি নেতাদের আচরণের তীব্র প্রতিবাদ করে বিবৃতি দিয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

BJP sandeshkhali
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE