Advertisement
২৬ মে ২০২৪
Security breach in Parliament

‘লাফিয়ে নেমে জুতো থেকে কী একটা বার করে ছুড়ল, দেখি হলুদ ধোঁয়া, কী করব বুঝে উঠতে পারছিলাম না’

নতুন সংসদ ভবনের গ্যালারি থেকে বুধবার দু’জন লাফিয়ে পড়েন নীচে। তার পরেই মোজার ভিতর থেকে এক ধরনের হলুদ গ্যাস বার করে ছড়িয়ে দিতে চাইলেন। সংসদে থাকা সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার এমনটাই জানিয়েছেন।

TMC MP Kakoli Ghosh Dastidar Scared on Parliament incident

বুধবার লোকসভায় শীতকালীন অধিবেশন চলাকালীন ‘রং বোমা’ ছোড়েন হামলাকারীরা। ছবি: টুইটার।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৩ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৫:০৬
Share: Save:

সংসদ ভবনের গ্যালারি থেকে যখন দু’জন লাফিয়ে পড়লেন, তখন সেখানে প্রচুর সাংসদ উপস্থিত। তাঁর মধ্যেই ছিলেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরী। ছিলেন বারাসতের তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদারও। দু’জনেই নিজেদের অভিজ্ঞতায় জানিয়েছেন, ‘‘জুতোর মধ্যে থেকে বের করে কি একটা হলুদ রঙের গ্যাস ছড়িয়ে দিল ওরা।’’

কাকলির অভিযোগ, সেই সময় নিরাপত্তারক্ষীদের সাহায্য চাইলেও, কাউকে আসতে দেখা যায়নি। কাকলি জানিয়েছেন, নিরাপত্তারক্ষীদের দেখা না পাওয়া গেলেও কয়েক জন সাংসদ নিজেদের উদ্যোগে ওই দু’টি ছেলেমেয়েকে পাকড়াও করেন। পরে পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলে, তৃণমূলের লোকসভার দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দলের অন্য সাংসদেরা নিজেদের জন্য বরাদ্দ ঘরে ফিরে যান। কাকলি বলেন, ‘‘অন্য সাধারণ দিনের মতো সংসদ চলছিল। আচমকাই চিৎকার শুনে দেখি দু’টি ছেলেমেয়ে চিৎকার করতে করতে লাফিয়ে পড়েছে গ্যালারি থেকে। দ্রুততার সঙ্গে ওরা মোজার ভিতর থেকে এক ধরনের জিনিস বার করে ছড়িয়ে দিতে চাইল।’’ কাকলির কথায়, ‘‘ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। ভাবছিলাম কোনও বিষাক্ত গ্যাস নয় তো! কারণ ২২ বছর আগে আজকের দিনেই তো সংসদে জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটেছিল। আবারও কি তেমন ঘটনা ঘটল! আগের বার তো সংসদ ভবনের বাইরে হামলা হয়েছিল। কিন্তু এ বার একেবারে সংসদ ভবনের ভিতরেই এই ধরনের ঘটনা ঘটনায় সাংসদরা ভীত।’’

ঘটনায় হতচকিত সাংসদ কাকলি। তিনি বলেন, ‘‘যে সরকার বার বার নিজেদের দেশের পাহারাদার বলে দাবি করে, তাদের জমানাতেই এমন ঘটনা ঘটে গেল! যে সরকারের আমলে সাংসদদের কোনও নিরাপত্তা নেই, সেখানে দেশের সাধারণ মানুষের নিরাপত্তাই বা কিসের?’’ তাঁর আরও দাবি, ‘‘নতুন সংসদ ভবন এত খরচ করে তৈরি করা হয়েছে। কিন্তু নিরাপত্তা বলতে যে কিছু নেই, তা এই ঘটনাই প্রমাণ করে দেয়।’’

কংগ্রেসের লোকসভার দলনেতা অধীর আবার বলেন, ‘‘হঠাৎ দেখলাম দু’জন ঝাঁপিয়ে পড়ল গ্যালারি থেকে, তার পর হাতে থাকা কী একটা যেন গ্যাসের মতো ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছিল। কোনওক্রমে সাংসদরাই তাদের ধরে ফেলেন। কোনও নিরাপত্তারক্ষী নয়, সাংসদরাই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। তার পর দেখলাম নিরাপত্তারক্ষীরা ওদের বাইরে নিয়ে গেল।’’ তাঁর আরও সংযোজন, ‘‘আজ সকালেই আমরা সবাই মিলে ২০০১ সালের হামলার ঘটনায় শহিদদের স্মরণ করলাম। আর আজকের দিনেই হামলা হল, কোথাও না কোথাও গলদ রয়ে গিয়েছে। নতুন ভবনেও সেই গলদ রয়ে গিয়েছে।’’

রাজ্যসভার অধিবেশন দুপুর ২টো পর্যন্ত মুলতুবি থাকায় রাজ্যসভার তৃণমূল শান্তনু সেনও সংসদ চত্বরে ছিলেন। তিনি বলেন, ‘‘কোন সাংসদদের অতিথি হিসেবে এই হামলাকারীরা সংসদে প্রবেশ করেছিলেন, তা আগে খতিয়ে দেখা দরকার। কিন্তু এমন ঘটনায় সংসদ ভবনের নিরাপত্তা নিয়ে মোদী সরকারকে প্রশ্নের মুখে পড়তে হবেই।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE