Advertisement
২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Selfie Points in Colleges and Universities

সব কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘সেলফি পয়েন্ট’ বানাতে বলল ইউজিসি! উদ্দেশ্য কী, ব্যাখ্যাও দিল নির্দেশিকায়

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এবং কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রিন্সিপালদের এই নির্দেশিকা দিয়েছেন ইউজিসি সচিব মণীশ জোশী। শুক্রবার এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।

UGC.

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০২ ডিসেম্বর ২০২৩ ২৩:৫২
Share: Save:

বিভিন্ন ক্ষেত্রে দেশের সাফল্য উদ্‌যাপন এবং সেই সম্পর্কে দেশের যুবসমাজকে সচেতন করার লক্ষ্যে দেশের প্রতিটি কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘সেলফি পয়েন্ট’ তৈরি করার নির্দেশ দিল বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এবং কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রিন্সিপালদের এই নির্দেশিকা দিয়েছেন ইউজিসি সচিব মণীশ জোশী। শুক্রবার এই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। ‘সেলফি পয়েন্ট’-এর পটভূমিকা কী হবে সেই সম্পর্কেও বিস্তারিত নির্দেশ দিয়েছে ইউজিসি। কয়েকটি সূত্রে জানা গিয়েছে, এই সেলফি জোনের পটভূমিকায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি রাখতে বলা হয়েছে। তবে তার উল্লেখ নির্দেশিকায় কোথাও নেই।

নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই ‘সেলফি পয়েন্ট’ তৈরি করার উদ্দেশ্য বিভিন্ন ক্ষেত্রে দেশের সাফল্য উদ্‌যাপন করা। বিশেষ করে নতুন শিক্ষা নীতিতে যে সকল পদক্ষেপ করা হয়েছে সেগুলির সাফল্য যুবসমাজের কাছে তুলে ধরা। ‘সেলফি পয়েন্ট’-এর পটভূমিকা কী হবে সেই সম্পর্কেও জানিয়েছে ইউজিসি। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, সকল ‘সেলফি পয়েন্ট’-এর বিষয় থাকবে ‘এক ভারত শ্রেষ্ঠ ভারত’, জাতীয় শিক্ষা নীতি অনুযায়ী নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের উপর। ইউজিসি আরও জানিয়েছে, উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে শিক্ষা মন্ত্রক দ্বারা অনুমোদিত ত্রিমাত্রিক পটভূমিকা অনুযায়ী তৈরি ‘সেলফি পয়েন্ট’গুলিকে শিক্ষাঙ্গনের বিশেষ জায়গায় বসাতে হবে। শিক্ষার্থীদের ওই বিশেষ জায়গায় গিয়ে সেলফি তুলতে এবং সেই সব ছবি সমাজমাধ্যমেও ছড়িয়ে দিতে উৎসাহিত করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

ইউজিসির এই নির্দেশিকার প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিশানা করেছে কংগ্রেস। দলের সাধারণ সম্পাদক জয়রাম রমেশ এক্স (পূর্বতন টুইটার)-এ লিখেছেন, “আমাদের সেলফিকেন্দ্রিক এবং আত্মকেন্দ্রিক প্রধানমন্ত্রী লোকসভা ভোটের আগে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। নিজের মুখ বাঁচাতে কোনও কিছু বাদ রাখছেন না।” তিনি আরও লিখেছেন, “প্রথমে, সেনাবাহিনীকে সেলফি পয়েন্ট স্থাপন করতে বলা হয়েছিল। তার পর, তিনি আইএএস অফিসার এবং অন্যান্য ঊর্ধ্বতন সরকারি আধিকারিকদের ‘রথযাত্রা’ বার করতে বলেছিলেন। এখন, তিনি ইউজিসিকে সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে সেলফি পয়েন্ট স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE