Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Nirmala Sitharaman

নিশানা ওবামা, ময়দানে নির্মলা

মোদীর আমেরিকা সফরের মধ্যেই ভারতের সংখ্যালঘুদের পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদমাধ্যমে উদ্বেগ ব্যক্ত করেছিলেন ওবামা।

Nirmala Sitharaman.

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। —ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৬ জুন ২০২৩ ০৮:১৫
Share: Save:

নরেন্দ্র মোদীর আমেরিকা সফর চলাকালীন ভারতীয় মুসলিমদের নিয়ে আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার মন্তব্য যে শাসক শিবির ভাল ভাবে নেয়নি, তা আজ বুঝিয়ে দিলেন বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপির সদর দফতর থেকে সাংবাদিক সম্মেলন করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নির্মলা সীতারামন বারাক ওবামার সময়কালে অন্তত ছ’টি মুসলিম দেশে আমেরিকার হামলার প্রসঙ্গ তুলে বললেন, ‘‘যাঁর সময়কালে ছ’টি মুসলিম দেশের উপর হামলা শানিয়ে ২৬ হাজার বোমা ফেলেছিল আমেরিকা, সেই ব্যক্তির অভিযোগের কী বা দাম রয়েছে? কে বিশ্বাস করবে সেই অভিযোগ?’’

মোদীর আমেরিকা সফরের মধ্যেই ভারতের সংখ্যালঘুদের পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদমাধ্যমে উদ্বেগ ব্যক্ত করেছিলেন ওবামা। একটি বৈদ্যুতিন সাংবাদমাধ্যমে ওবামা দাবি করেন, তাঁর সঙ্গে মোদীর কথা হলে তিনি বলতেন যে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী যদি সংখ্যালঘুদের না দেখেন, তা হলে দেশটি টুকরো টুকরো হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। যা নিয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্তরে বিতর্কের সূত্রপাত হয়। পরবর্তী সময়ে আমেরিকায় সাংবাদিক সম্মেলনে মোদী দাবি করেন, ‘‘আমাদের সরকারে বৈষম্যের কোনও স্থান নেই।’’ কিন্তু ওবামার আগ বাড়িয়ে করা মন্তব্য যে বিজেপি চুপ করে হজম করবে না, তা গোড়াতেই স্পষ্ট করে দেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা। টুইটারে বারাক ওবামার নামটি ছাঁটকাট করে হিমন্ত লেখেন, ‘‘ভারতেও অনেক হুসেন ওবামা আছেন। এঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া তাঁর সরকারের অগ্রাধিকার।’’ প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের মুসলিম পরিচয় তুলে ধরাটাই লক্ষ্য ছিল হিমন্তের। কংগ্রেস ও তৃণমূলের তরফে এ নিয়ে হিমন্তের সমালোচনাও করা হয়। অন্য দিকে মোদীকে ‘অপ্রীতিকর’ প্রশ্ন করা সাংবাদিককে জনমাধ্যমে আক্রমণ শুরু করে ট্রোল বাহিনী।

এর পরে মোদী যখন মিশরে, তখন আজ রীতিমতো সাংবাদিক সম্মেলন করে অর্থমন্ত্রী নির্মলা ওবামার প্রতি তোপ দাগলেন। কৌশল করে ফিরিয়ে আনলেন ওবামা জমানায় আমেরিকার রণনীতির প্রসঙ্গ। ভারতীয় মুসলিমদের নিয়ে ওবামার দুশ্চিন্তা সম্পূর্ণ গুরুত্বহীন বিষয় বলে দাবি করে নির্মলা বলেন, ‘‘এটা পরিকল্পিত প্রচারের অঙ্গ। বিশেষ করে যখন ভারতের প্রধানমন্ত্রী আমেরিকায় রয়েছেন, সে সময়ে প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের ভারতীয় মুসলিমদের নিয়ে দুশ্চিন্তা প্রকাশের ঘটনা স্তম্ভিত করে দেওয়ার মতো।’’ বিষয়টির সঙ্গে অন্য একটি দেশের সম্পর্ক জড়িত থাকায় তিনি (ওবামা প্রসঙ্গে) ‘মেপে প্রতিক্রিয়া’ দিচ্ছেন বলে দাবি করে নির্মলা বলেন, ‘‘যে প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ভারত সম্পর্কে প্রশ্ন তুলছেন, তাঁর শাসনকালে ছ’টি মুসলিম অধ্যুষিত দেশে ২৬ হাজার বোমা বর্ষণ করেছিল আমেরিকা। এই ধরনের লোকেদের অভিযোগকে কী ভাবে বিশ্বাস করবে আমজনতা?’’

পাশাপাশি এ প্রসঙ্গে বিরোধীদেরও আক্রমণ শানাতে ছাড়েননি নির্মলা। ওবামা ভারতীয় সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় মোদী সরকারের ভূমিকা নিয়ে সরব হয়েছিলেন বিরোধীরাও। তাদের নিশানা করে নির্মলা বলেন, ‘‘বিরোধী শিবির পরিকল্পিত ভাবে দেশের আবহাওয়া বিষিয়ে দেওয়ার কৌশল নিয়েছে। কারণ তারা জানে, তারা কোনও ভাবেই নরেন্দ্র মোদীর উন্নয়নমূলক রাজনীতির সঙ্গে পাল্লা দিতে পারবে না। সেই কারণে এ ধরনের রাজনীতি করছে বিরোধীরা। যাদের পিছন থেকে মদত দিচ্ছে কংগ্রেস।’’ বিরোধীরা পাল্টা কটাক্ষ হেনে বলছেন, মোদী নিজেই তো আগে সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, বারাক ওবামা তাঁর বিশেষ বন্ধু! তিনি নাকি ‘বারাক’ বলে ডাকেন! সেই বন্ধুত্বের এ কী হাল, প্রশ্ন তাঁদের।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE