Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

চাঁদে হাঁটছেন মহাকাশচারী, পাশ দিয়ে হুশ করে বেরিয়ে গেল অটোরিকশা!

অভিকর্ষ বল কম থাকলে যে ভাবে হাঁটতে হয় সেভাবেই হাঁটছেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু তারপরেই ভুল ভাঙবে। দেখা যাচ্ছে, ওই ব্যক্তির গায়ে গাড়ির লাল ইন্ডিকে

সংবাদ সংস্থা
বেঙ্গালুরু ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৭:২৯
বেঙ্গালুরুর রাস্তায় মুন ওয়াক করছেন বাদল। ছবি : ফেসবুক থেকে নেওয়া।

বেঙ্গালুরুর রাস্তায় মুন ওয়াক করছেন বাদল। ছবি : ফেসবুক থেকে নেওয়া।

ভারতের চন্দ্রযান-২ প্রস্তুতি নিচ্ছে চাঁদের নামার। কিন্তু তার আগেই চাঁদের মাটিতে নেমে পড়লেন বাদল নানজুনদাস্বামী। চমকে গেলেন নাকি? চমকানোই স্বাভাবিক। আসলে ফেসবুকে সম্প্রতি একটি ভিডিয়ো পোস্ট হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে এক ব্যক্তি স্পেস সুট পরে চাঁদের মাটিতে হাঁটছেন। অবাক হবেন না, এটা আসলে বেঙ্গালুরুর এক রাস্তার ছবি।

বাদল নানজুনদাস্বামী নামে এক ব্যক্তির ফেসবুক প্রোফাইলে একটি ৫৬ সেকেন্ডের ভিডিয়ো পোস্ট করা হয়েছে। সেখানে প্রথমে দেখা যাচ্ছে, মহাকাশচারীদের মতো স্পেস সুট পরে এক ব্যক্তি অসমান জমির ওপর হেঁটে চলেছেন। উপর থেকে ধরা হয়েছে ক্যামেরা। প্রথম কয়েক সেকেন্ড দেখলে মনে হবে সত্যিই চাঁদের উপর হেঁটে বেড়াচ্ছেন কেউ। অভিকর্ষ বল কম থাকলে যে ভাবে হাঁটতে হয় সেভাবেই হাঁটছেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু তারপরেই ভুল ভাঙবে। দেখা যাচ্ছে, ওই ব্যক্তির গায়ে গাড়ির লাল ইন্ডিকেটরের আলো পড়ছে। তখনই প্রাথমিক সন্দেহটা হবে। তারপরেই দেখা যাচ্ছে, পাশ দিয়ে বেরিয়ে গেল একটি অটোরিকশা, গাড়ি। ক্যামেরার অ্যাঙ্গেল ঘুরতেই দেখা গেল গর্তে ভরা একটি রাস্তার উপর দিয়ে হাঁটছেন ওই ব্যক্তি। গর্ত বাঁচিয়ে পাশ দিয়ে চলেছে যানবাহন।

আসলে বাদল নানজুনদাস্বামী অভিনব এই পদ্ধতিতে বেঙ্গালুরু প্রশাসনকে দেখাতে চেয়েছেন, শহরের রাস্তার কী হাল। শহরের নানা জায়গায় এমন গর্ত তৈরি হয়েছে, মনে হবে যেন কোনও এবড়োখেবড়ো গ্রহের ভূমি। বাদল তাঁর পোস্টে লিখেছেন ‘হ্যালো বিবিএমপি কমিশনার’। বিবিএমপি হল বৃহত্ বেঙ্গালুরু মহানগর পালিকা, শহরে রাস্তা ঘাটের দায়িত্বে আছে। তাদেরকেই চোখে আঙুল দিয়ে দেখাতে চেয়েছেন শহরের রাস্তার অবস্থা।

Advertisement

আরও পড়ুন : দুধের শিশুকে গ্রেফতারের ‘হুমকি’ পুলিশ বাবার! তীব্র প্রতিবাদ ‘অভিযুক্ত’-র!

সোমবার, ২ অগস্ট সকাল ৬টা ৫৫ মিনিটে ভিডিয়োটি পোস্ট হয়েছে। তা ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত ভিডিয়োটি ৪ লক্ষ ৬৫ হাজারের বেশি বার দেখা হয়েছে। শেয়ার হয়েছে ১৪ হাজারের বেশি। যাঁরা পোস্টটিতে কমেন্ট করেছেন প্রায় প্রত্যেকেই তাঁরা প্রশংসা করেছেন বাদলের এই উদ্যোগের। যে ভাবে তিনি শহরের রাস্তার হাল তুলে ধরেছেন তা সত্যিই অভিনব।

আরও পড়ুন

Advertisement