Advertisement
০৪ মার্চ ২০২৪
Waiter beaten to Death

এঁটো প্লেট লেগেছিল গায়ে, ওয়েটার তরুণকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ বিয়েতে আসা অতিথিদের বিরুদ্ধে

পঙ্কজের হাতে থাকা এঁটো প্লেট গিয়ে লাগে ঋষভের গায়ে। তাতে রেগে যান ঋষভ। পঙ্কজ সঙ্গে সঙ্গে ক্ষমা চেয়ে নেন। কিন্তু ঋষভের রাগ কমে না। শুরু হয় পঙ্কজকে বেধড়ক মার।

representational image

— প্রতীকী ছবি।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ ১১:১৯
Share: Save:

মানুষ বড় সস্তা! এঁটো প্লেট সরানোর সময় বিয়েতে আসা এক অতিথির গায়ে লেগে গিয়েছিল। পোশাক নষ্ট হওয়ার রাগে অগ্নিশর্মা হয়ে ওয়েটার তরুণকে বেধড়ক মারধোর করলেন অতিথি এবং তাঁর বন্ধুরা। মার সইতে না পেরে মৃত্যু হল ওয়েটারের। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের গাজ়িয়াবাদে। পুলিশ অভিযুক্ত তিন জনকে হেফাজতে নিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, গত ১৭ নভেম্বর, গাজ়িয়াবাদেরই বাসিন্দা পঙ্কজ অঙ্কুর বিহারের একটি বিয়েবাড়িতে ওয়েটারের কাজ করছিলেন। সেখানেই ঘটনাটি ঘটে। জানা গিয়েছে, বিয়ের অনুষ্ঠান চলাকালীন পঙ্কজ বেশ কয়েকটি এঁটো প্লেট খাবারের জায়গা থেকে সরিয়ে নিচ্ছিলেন। তা করতে গিয়েই আচমকাই তাঁর খুব কাছে এসে পড়েন ঋষভ নামে এক অতিথি। পঙ্কজের হাতে থাকা এঁটো প্লেট গিয়ে লাগে ঋষভের গায়ে। তাতেই রেগে ওঠেন ঋষভ। পঙ্কজ সঙ্গে সঙ্গে ক্ষমা চেয়ে নেন। কিন্তু ঋষভের রাগ কমে না। কয়েক জন বন্ধুও জুটে যায় তাঁর। শুরু হয় পঙ্কজকে মারধর। মারতে মারতে পঙ্কজকে বাইরে নিয়ে যান ঋষভরা। মারের চোটে মাটিতে পড়ে যান পঙ্কজ। তবুও মার থামে না। বেশ কিছু ক্ষণ একতরফা মার চলার পর ঋষভরা চলে যান। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকেন পঙ্কজ। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। ঋষভরা আবার ফিরে এসে পঙ্কজকে তুলে একটি জঙ্গলের মধ্যে ফেলে দিয়ে আসেন বলেও জানিয়েছে পুলিশ। পর দিন জঙ্গল থেকে ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ এই ঘটনায় ঋষভ-সহ আরও দু’জনকে গ্রেফতার করেছে। কিন্তু ঋষভরা কেন এই কাণ্ড বাধালেন তা এখনও স্পষ্ট নয়। তাঁরা সকলেই মত্ত অবস্থায় ছিলেন বলেও সন্দেহ করা হচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE