Advertisement
২৮ জানুয়ারি ২০২৩
Sanghpriya Gautam

আদিত্যনাথকে সরিয়ে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী করা হোক রাজনাথকে, আওয়াজ উঠল বিজেপিতে

শুধু মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে সরিয়ে দেওয়াই নয়, যোগী আদিত্যনাথকে রাজনীতি থেকেই ছুটি দিয়ে দেওয়া হোক বলে জানিয়েছেন সঙ্ঘপ্রিয়। তাঁর কথায়,‘‘ যোগী আদিত্যনাথের ধর্ম-কর্মের কাজে পুরোপুরি পাঠিয়ে দেওয়া হোক।’’

যোগী আদিত্যনাথ এবং অমিত শাহকে সরানোর দাবি উঠল বিজেপিতে। ফাইল চিত্র।

যোগী আদিত্যনাথ এবং অমিত শাহকে সরানোর দাবি উঠল বিজেপিতে। ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
লখনও শেষ আপডেট: ০৬ জানুয়ারি ২০১৯ ১৬:৩৪
Share: Save:

উত্তরপ্রদেশ-সহ সারা দেশে দলের খোলনলচে বদল প্রয়োজন, দাবি উঠল বিজেপির ভিতরেই। যোগী আদিত্যনাথকে সরিয়ে রাজনাথ সিংহকে মুখ্যমন্ত্রী করার দাবি তুললেন উত্তরপ্রদেশে দলের গুরুত্বপূর্ণ নেতা সঙ্ঘপ্রিয় গৌতম। পাশাপাশি নিতিন গডকড়ীকে দেশের উপপ্রধানমন্ত্রী করা হোক, সংবাদ মাধ্যমকে পাঠানো বিবৃতিতে এই কথা জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement

শুধু যোগী আদিত্যনাথই নন, সঙ্ঘপ্রিয় গৌতমের নিশানায় আছেন খোদ বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ-ও। তাঁর দাবি, অমিত শাহ-র সরে যাওয়ার সময় হয়ে গিয়েছে। তাঁর জায়গায় দলের সর্বভারতীয় সভাপতি পদে নিয়ে আসা হোক মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিংহ চৌহানকে।

শুধু মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে সরিয়ে দেওয়াই নয়, যোগী আদিত্যনাথকে রাজনীতি থেকেই ছুটি দিয়ে দেওয়া হোক বলে জানিয়েছেন সঙ্ঘপ্রিয়। তাঁর কথায়,‘‘ যোগী আদিত্যনাথকে ধর্ম-কর্মের কাজে পুরোপুরি পাঠিয়ে দেওয়া হোক।’’

আরও পড়ুন: খিচুড়ি রেঁধে বিশ্বরেকর্ড! দলিত বিরোধী তকমা ঘোচাতে বিজেপির অভিনব উদ্যোগ

Advertisement

দেশের অন্যতম নেতা হিসেবে নরেন্দ্র মোদীকে মেনে নিলেও এই বর্ষীয়ান বিজেপি নেতার দাবি, ‘‘এই বছর লোকসভা নির্বাচনে মোদী ম্যাজিক কাজ করবে, সেই সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। দলের কর্মী এবং সমর্থকেরা ভিতরে ভিতরে তা বুঝতে পারছেন।’’নরেন্দ্র মোদীর সেই খামতি ঢাকতেই নিতিন গডকরীর মতো কাউকে উপ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তুলে ধরার দাবি করেছেন সঙ্ঘপ্রিয়। এই মুহূর্তে নির্বাচন হলে দু-একটি রাজ্য ছাড়া বাকি সব জায়গাতেই বিজেপি ধুয়ে মুছে সাফ হয়ে যেতে পারে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সঙ্ঘপ্রিয় গৌতম উত্তরপ্রদেশ বিজেপির অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নেতা। দীর্ঘদিন ছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ। অটলবিহারী বাজপেয়ী মন্ত্রিসভায় কৃষি এবং গ্রামোন্নয়নের মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রক সামলেছেন। তাই তাঁর মন্তব্য হাল্কা ভাবে নিচ্ছেন না কেউই।

আরও পড়ুন: বিজেপিতে গাঢ় হচ্ছে সঙ্ঘের ছায়া? উত্তরপ্রদেশে ভোটের দায়িত্বে কট্টর মোদী সমালোচক গোর্ধন

সদ্যসমাপ্ত পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে খারাপ ফল করার পর থেকেই বিজেপির অন্দরে নরেন্দ্র মোদী- অমিত শাহ জুটির একচ্ছত্র আধিপত্য নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। এতদিন মুখ না খুললেও এখন মাঝে মধ্যেই পাওয়া যাচ্ছে দলের মধ্যে বিক্ষোভের আঁচ। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মত, এই বিক্ষোভের পিছনে থাকতে পারে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের মদতও। নির্বাচনের আগে এই বিক্ষোভ সামাল দেওয়াও এখন বড় চ্যালেঞ্জ বিজেপির সামনে।

(কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী, গুজরাত থেকে মণিপুর - দেশের সব রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদের দেশ বিভাগে ক্লিক করুন।)

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.