• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘ফ্যাসিবাদী’ মোদী সরকারের হিন্দু রাষ্ট্রের অ্যাজেন্ডা! সিএবি-র বিরুদ্ধে গলা চড়ালেন ইমরান

Imran
নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। —ফাইল চিত্র

Advertisement

৩৭০ অনুচ্ছেদ রদের বিরুদ্ধে গলা চড়িয়েছিল পাকিস্তান। এমনকি, আন্তর্জাতিক মঞ্চে গিয়েও কিছু লাভ হয়নি। এ বার নাগরকিত্ব সংশোধনী বিল নিয়েও তীব্র প্রতিবাদ করল ইসলামাবাদ। এই বিলের নিন্দা করে ইমরান খান বলেছেন, মানবাধিকার ও ভারত-পাক দ্বিপাক্ষিক চুক্তি লঙ্ঘিত হয়েছে। মোদী সরকারকে ‘ফ্যাসিবাদী’ বলেও আক্রমণ করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী। যদিও ইমরানের মন্তব্যকে পাত্তাই দিচ্ছে না ভারত।

সোমবার মধ্যরাতে ভোটাভুটিতে লোকসভায় পাশ হয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল। তবে সরকার পক্ষের সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকায় রাজ্যসভায় বিল পাশ নিয়ে সংশয় রয়েছে। কিন্তু তার আগেই এই নিয়ে নিজেদের ক্ষোভ উগরে দিল পাকিস্তান। টুইটারে ইমরান খান লিখেছেন, ‘‘ভারতের লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ হয়েছে। আমরা এই বিলের তীব্র নিন্দা করছি। এটা আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন ও ভারত-পাক দ্বিপাক্ষিক চুক্তির বিরোধী।’’

মোদী সরকারের বিরুদ্ধে হিন্দুত্বের রাজনীতির অভিযোগ তুলে তাকেও নিশানা করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান। তাঁর বক্তব্য, ‘‘এটা আরএসএস-এর হিন্দু রাষ্ট্র করার নকশার বর্ধিত অংশ যার পরিকল্পনা করেছে ফ্যাসিবাদী মোদী সরকার।’’

কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নেওয়া এবং জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখকে আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণার সময়ও তীব্র বিরোধিতা করেছিল পাকিস্তান। এই ইস্যুকে রাষ্ট্রপুঞ্জে টেনে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মহলকে ভারতের বিরুদ্ধে একজোট করার চেষ্টা করলেও চিন ছাড়া কার্যত কাউকে পাশে পাননি ইমরান। ভারতও তাতে কার্যত পাত্তাই দেয়নি। অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে পাকিস্তানকে উপেক্ষা করেছে মোদী সরকার। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের ক্ষেত্রেও একই অবস্থান নয়াদিল্লির। 

আরও পড়ুন: সিএবি-র বিরুদ্ধে সরব কংগ্রেস, গণতন্ত্রের উপর হামলা, বললেন রাহুল, লড়াইয়ের বার্তা প্রিয়ঙ্কার

আরও পড়ুন: নাগরিকত্ব বিলে ‘ধর্মীয় বৈষম্য’, অমিত শাহের উপর নিষেধাজ্ঞার সুপারিশ মার্কিন কমিশনের

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন