সারা জীবন যদি কোনও জিভে জল আনা পদ বিনামূল্যে পান, কেমন লাগবে? বলার অপেক্ষা রাখে না ভালই লাগবে। নিশ্চই ভাবছেন, কী ভাবে তা সম্ভব? দরকার শুধু একটু বেশি করে গুণ গাওয়ার। তা হলে আপনার কপালেও ছিঁড়ে যেতে পারে ফ্রিতে ফ্রায়েড চিকেন স্যান্ডুইচের শিকে। যেমন পেলেন ব্রি হল।

ব্রি এক জন মার্কিন সুরকার। সপ্তাহ দু’য়েক আগে তিনি তাঁর টুইটার হ্যান্ডলে প্রশংসা করেছিলেন একটি দোকানের ফ্রায়েড চিকেন স্যান্ডুইচের। সেই টুইট ভাইরাল হয়। বিপুল বেড়ে যায় দোকানের বিক্রি। রিটার্ন গিফ্ট হিসাবে তাঁকে আজীবন ফ্রি ফ্রায়েড চিকেন স্যান্ডুইচ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে ওই রেস্তরাঁ।

২৭ অগস্টের টুইটে ব্রি লেখেন, ‘যদি ওয়াশিংটন ডিসির ডিএমভি এলাকায় থাকেন, তবে রোমিং রোস্টার রেস্তরাঁর ফ্রায়েড চিকেন স্যান্ডুইচ চেখে দেখতে পারেন।’ সেই সঙ্গে লিখেছেন, এই রেস্তরাঁ কী ভাবে তৈরি হয়েছে। রেস্তারাঁ মালিকদেরও সংক্ষিপ্ত পরিচয় দেন তিনি।

আরও পড়ুন : বিকিনি পরে সমুদ্রে নামলেন সুস্মিতা সেন, মুহূর্তেই ভাইরাল ভিডিয়ো

আরও পড়ুন : চাঁদে হাঁটছেন মহাকাশচারী, পাশ দিয়ে হুশ করে বেরিয়ে গেল অটোরিকশা!

আপাত সাধারণ পোস্ট যে এভাবে ভাইরাল হবে তা মনে হয় ব্রি হল নিজেও ভাবেননি। কিন্তু সেই টুইটের প্রভাবে কয়েকদিন ধরে রেস্তরাঁর বাইরে ফ্রায়েড চিকেন স্যান্ডুইচকেনার লম্বা লাইন পড়ে যায়। রেস্তরাঁর মালিক মাইকেল হ্যাবেটামারিয়াম জানান, ব্রি হলের টুইটের পর থেকেই আমাদের ব্যবসা আরও গতি পেয়ে গিয়েছে। তাই হল-কে আর কোনও দিন আমাদের দোকানে ফ্রায়েড চিকেন স্যান্ডুইচের জন্য পয়সা দিতে হবে না। এই সুবিধা শুধু ব্রি হলের জন্য নয়, তার বয়ফ্রেন্ড ক্রিস্টোফার হেড-এর ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য বলে জানান মাইকেল। ক্রিস্টোফার একজন স্টিল ও ভিডিয়ো ফটোগ্রাফার।

রেস্তরাঁটি চালান তিন জন মিলে। মাইকেলের সঙ্গে রয়েছেন তাঁর ভাই বিনিয়াম ও বিনিয়ামের স্ত্রী হারেগ মেসফিন। তাঁরা জানিয়েছেন, চার বছর আগে তাঁরা এই রেস্তরাঁ চালু করেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তাঁরা কাউকে ফ্রায়েড চিকেন স্যান্ডুইচ ফ্রিতে দেননি। ব্রি-কেই দিচ্ছেন সেই অফার।