×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৬ মে ২০২১ ই-পেপার

দীর্ঘ দিনের দাবি মেনে ব্লাডব্যাঙ্ক চালু নবদ্বীপে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কৃষ্ণনগর ও নবদ্বীপ ১৪ অগস্ট ২০১৫ ০১:২৪
উদ্বোধন আজ। ছবি: দেবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায়।

উদ্বোধন আজ। ছবি: দেবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায়।

অবশেষে অপেক্ষার অবসান ঘটতে চলেছে। আজ, শুক্রবার নবদ্বীপ স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ব্লাডব্যাঙ্ক চালু হওয়ার কথা।

এলাকার বিধায়ক তথা রাজ্যের জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি দফতরের প্রতিমন্ত্রী পুণ্ডরীকাক্ষ সাহা বলেন, ‘‘আমরা বহু দিন থেকে ব্লাডব্যাঙ্ক চালুর চেষ্টা করছিলাম। কিন্তু বাম আমলে কোনও ভাবেই সেটা করে উঠতে পারছিলাম না। তারপর আমরা সরকারে আসার পরে ফের কোমর বেঁধে নামি। অবশেষে নবদ্বীপে সেই ব্লাডব্যাঙ্ক হল।’’

নবদ্বীপ পুর এলাকা, পঞ্চায়েত ছাড়াও সংলগ্ন বর্ধমানের বিদ্যানগর, চাঁদপুর, শ্রীরামপুর, জাহান্নগর, ভাণ্ডারটিকুরি হয়ে পূর্বস্থলীর এক বিরাট অংশের কয়েক লক্ষ মানুষ নবদ্বীপ স্টেট জেনারেল হাসপাতালের উপর নির্ভরশীল। অথচ সেখানে কোনও ব্লাডব্যাঙ্ক না থাকায় দূরদুরান্ত থেকে রোগীরা এসে সমস্যায় পড়তেন। রক্তের জন্য চিকিৎসকেরা বাধ্য হয়ে রোগীদের রেফার করে দিতেন। দুর্ঘটনা বা একটু বড় অস্ত্রোপচার হলে কোনও ঝুঁকি নিতে চাইতেন না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ব্লাডব্যাঙ্ক হওয়ায় সেই সমস্যার সমাধান হল বলেই মনে করছেন চিকিৎসকেরা।

Advertisement

হাসপাতালের সুপার বাপ্পা ঢালি জানান, একটি অত্যাধুনিক ব্লাডব্যাঙ্ক পেলেন নবদ্বীপের মানুষ। এমন কিছু অত্যাধুনিক যন্ত্র এখানে আনা হয়েছে হয়েছে যা বহু জায়গাতেই নেই। রোগীর আত্মীয়-স্বজনেরা কার্ড না থাকলেও রক্ত দান করে সরাসরি রক্ত সংগ্রহ করতে পারবেন এখান থেকে। তিনি বলেন, ‘‘আমাদের নতুন ব্লাডব্যাঙ্কের রক্ত সংগ্রহ এবং তা মজুত রাখার ক্ষমতা অনেক বেশি হলেও নবদ্বীপ হাসপাতালের প্রয়োজনের সঙ্গে ভারসাম্য রেখে আপাতত এখানে ৪০ ইউনিট রক্ত সব সময় মজুত রাখা হবে বলে ঠিক হয়েছে। কারণ রক্ত বেশিদিন অব্যবহৃত হয়ে পড়ে থাকলে তা নষ্ট হয়ে যায়। আমরা তা চাইছি না।”

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ব্লাডব্যাঙ্কের সবচেয়ে বড় অভাব প্রয়োজনীয় সংখ্যক কর্মীর। একটি ব্লাডব্যাঙ্ক সুষ্ঠুভাবে চালাতে প্রায় ২৫ জন কর্মীর দরকার হয়। নবদ্বীপ সেখানে মাত্র ৪ জন কর্মী পেয়েছে। সুপার জানান, সবচেয়ে জরুরি চার জন টেকনিশিয়ানের একজনও নেই। ফলে আপাতত হাসপাতালের টেকনিশিয়ানদের দিয়েই কাজ চালানো হবে। শুরুতে ব্লাডব্যাঙ্ক খোলা থাকবে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টো পর্যন্ত।

তবে নবদ্বীপ অবশ্য খুশি। স্থানীয় বাসিন্দারা জানাচ্ছেন, বহু প্রতীক্ষার পরে ব্লাডব্যাঙ্ক হল। আশা করি, ব্লাডব্যাঙ্কের জন্য প্রয়োজনীয় কর্মীদের ব্যবস্থাও হয়ে যাবে।

Advertisement