মেক-আপ যেমন মানুষকে সুন্দর করে তেমনই অতিরিক্ত মেক আপ চেহারাকে কদর্য করে তোলে। এ তো গেল সৌন্দর্যের দিক। কিন্তু সব চেয়ে মারাত্মক, মেক আপ ব্যবহারের কিছু ভুল দিক— এ গুলি সরাসরি ক্ষতি করে স্বাস্থ্যের।

এর মধ্যে সব চেয়ে প্রচলিত ভুল,  মেক আপ ঠিক মতো না তোলা। অনেক সময় শরীর ক্লান্ত থাকলে বা নিছকই ইচ্ছা না করলে আমরা মেক-আপ অনেক সময় তুলি না। এ ভাবেই ঘুমিয়ে পড়ি বিছানায়। চর্মরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে, এর ফলে স্থায়ীভাবে আপনার ত্বকের ক্ষতি হতে পারে।

জানেন কি, মেক-আপ না তুলে ঘুমিয়ে পড়লে কী কী ক্ষতি হতে পারে? দেখে নিন সে সব।

আরও পড়ুন

নখ ভেঙে যায় সহজেই? সমাধান পেতে এ সব রাখুন খাদ্যতালিকায়

সন্তানের ত্বক নিয়ে চিন্তায়? এ ভাবে যত্ন নিন এখন থেকেই

  • সবচেয়ে স্পর্শকাতর চোখের মেক আপ। মেক আপের সময় এই দিকেই বেশি জোর দিই আমরা। এ দিকে চোখের মেক আপ না তুলে ঘুমিয়ে পড়লে ভ্রূ ও চোখের পাতা ঝরে যায়।
  • মেক আপের কেমিক্যাল চোখের নীচের অংশের ত্বকেরও ক্ষতি করে। ডার্ক সার্কল আসে সহজেই।
  • অনেকেই লিপস্টিক ভাল করে না তুলে অথবা মুখের ফাউন্ডেশন ভাল করে না সরিয়েই ঘুমিয়ে পড়েন। এতে মেক আপের গুঁড়োয় রোমকূপ আটকে যায়। এতে ব্রণ এবং ত্বকের অন্য সমস্যাও বাড়ে। লিপস্টিকের উপাদান ঠোঁটে বসে গিয়ে তাকে আরও শুষ্ক করে তোলে। এর ফলে ঠোঁটের আশপাশে ডেড সেল তৈরি হয়।

সুতরাং এ বার থেকে সাবধান হন এই বিষয়ে। মেক আপ তুলে সুস্থ রাখুন ত্বককে।